বার্ন স্ট্যান্ডার্ড নিয়ে জাতীয় কোম্পানি আইন আপিল আদালতের (এনসিএলএটি) রায় খারিজ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, বার্নের ক্ষেত্রে দেউলিয়া আইন প্রযোজ্য হবে না। ফলে সংস্থাটি ঘিরে ফের তৈরি হয়েছে আইনি জটিলতা। তবে আদালত আরও বলেছে, বার্ন বন্ধ (ক্লোজার) বা কর্মী ছাঁটাইয়ের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আইনের সাহায্য নিতে পারবে সব পক্ষ। 

সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, কারখানা বন্ধ করা থেকে স্বেচ্ছাবসর দেওয়া-সহ সমস্ত পদক্ষেপই কর্তৃপক্ষ করেছেন দেউলিয়া আইন মোতাবেক জাতীয় কোম্পানি আইন ট্রাইবুনালের (এনসিএলটি) রায় মেনে। এই পরিস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিয়েছে যে, বার্ন স্ট্যান্ডার্ডের ক্ষেত্রে দেউলিয়া আইন প্রয়োগ করা যাবে না। সে কারণেই তৈরি হয়েছে জটিলতা। 

গত বছর ৬ মার্চ এনসিএলটির কলকাতা বেঞ্চ বার্ন স্ট্যান্ডার্ড গোটানো এবং সমস্ত কর্মীকে স্বেচ্ছাবসর দেওয়ার পরিকল্পনা অনুমোদন করে। এর আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে সংস্থা বন্ধ করার প্রস্তাব পাশ হয়। কিন্তু সেই রায়ের বিরুদ্ধে সংস্থার অবসরপ্রাপ্ত কর্মীরা এবং একটি পাওনাদার সংস্থা চলতি বছরের মে মাসে এনসিএলএটিতে মামলা করে। আপিল আদালত তাদের রায়ে জানায়, সংস্থা বন্ধ করা চলবে না। প্রয়োজনে কর্তৃপক্ষ নতুন পরিকল্পনা জমা দিতে পারেন। ছাঁটাই হওয়া ৫৭ জন কর্মীকেও ফেরত নিতে হবে বলে রায়ে জানিয়ে দেয় এনসিএলএটি। 

এর পরে গত মাসে আপিল ট্রাইবুনালের রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন বার্ন স্ট্যান্ডার্ড কর্তৃপক্ষ। সেই মামলার রায়ই সম্প্রতি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।