নোটবন্দির কারণে দেশে প্রত্যক্ষ কর আদায় বেড়েছে বলে বার বার দাবি করেছে মোদী সরকার। বলেছে, যাঁরা এত দিন কর থেকে গা বাঁচিয়ে চলতেন, তাঁরা বাধ্য হচ্ছেন মিটিয়ে দিতে। অথচ এ বার কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ কর পর্ষদের (সিবিডিটি) কর্তারাই বলছেন, আদতে প্রত্যক্ষ কর সংগ্রহের বৃদ্ধি লক্ষ্যের তুলনায় কম হয়েছে। যে কারণে আয়কর দফতরের আধিকারিকদের চলতি অর্থবর্ষের শেষ তিন মাসে আদায়ের চেষ্টা যতটা সম্ভব বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছেন তাঁরা। বলেছেন, সমীক্ষা চালিয়ে দেখতে, কারা ইচ্ছাকৃত ভাবে কর ফাঁকি দিচ্ছেন। এমনকি ওই সব ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতেও বলা হয়েছে। 

প্রত্যক্ষ কর পর্ষদের চেয়ারম্যান সুশীল চন্দ্র জানিয়েছেন, ডিসেম্বরের শেষে প্রত্যক্ষ কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা বাঁধা হয়েছিল ১৪.৭ শতাংশে। সেখানে সংগ্রহের হার ছিল ১৩.৬%। বিশেষ করে বকেয়া কর আদায়ের হার বেশ খারাপ বলে দাবি তাঁর। ইতিমধ্যেই আয়কর দফতরের প্রিন্সিপাল চিফ কমিশনারকে চিঠি দিয়ে আধিকারিকদের কোমর বেঁধে নামতে বলেছেন তিনি।