Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Ukraine-Russia War: ইউক্রেন যুদ্ধ কেড়ে নিয়েছে রুশ হিরের ‘জৌলুস’! ক্ষতির মুখে গুজরাতের ব্যবসায়ীরা

বিশ্বের এক তৃতীয়াংশ কাঁচা হিরে সরবরাহ করে রুশ কোম্পনি আলরোসা পিজেএসসি। যুদ্ধের কারণে তারা আমেরিকা ও ইউরোপের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছে।

সংবাদ সংস্থা
সুরত ১৪ মে ২০২২ ১৩:৩৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Popup Close

ইউক্রেনে হামলার জেরে রাশিয়ার উপর অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করেছে আমেরিকা-সহ পশ্চিমী দুনিয়া। আর তারই জেরে ক্ষতির মুখে নরেন্দ্র মোদীর রাজ্যের হিরে ব্যবসায়ীরা। নিষেধাজ্ঞার জেরে সাইবেরিয়ার হিরের খনি থেকে সরবরাহ বন্ধ। ফলে গুজরাতের বাণিজ্য-নগরী সুরতে হিরে কাটা ও পালিশের কাজ প্রায় লাটে ওঠার অবস্থা।

আমেরিকা এবং ইউরোপের একাধিক সংস্থা রাশিয়া থেকে হিরে এনে সুরতে কাটা ও পালিশের কাজ করায়। তার পর সেই হিরে পাড়ি দেয় পশ্চিমের গয়না বিপণিগুলিতে। বিশ্বের এক তৃতীয়াংশ কাঁচা হিরে সরবরাহ করে রুশ সংস্থা আলরোসা পিজেএসসি। আমেরিকা-ইউরোপের অনেকগুলি রত্ন ব্যবসায়ী সংস্থা তাদের সঙ্গে লেনদেনে জড়িত।

যুদ্ধ পরিস্থিতির কারণে নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছে আলরোসা পিজেএসসি। বার্ষিক কয়েক হাজার কোটি টাকার সেই বাণিজ্য তাই থমকে গিয়েছে। অথচ দক্ষিণ গুজরাতের সুরত শহরেই সারা বিশ্বের ৮০ শতাংশ মতো হিরে কাটা ও পালিশের কাজ হয়। এবড়ো-খেবড়ো পাথরে তাক লাগানো বিচ্ছুরণ নিয়ে আসেন দক্ষ কারিগরেরা।

Advertisement

শিল্পমহল সূত্র বলছে, হিরের পর্যাপ্ত জোগান প্রায় না থাকায় বহু কারিগরই কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হচ্ছেন। ব্যবসা তলানিতে ঠেকেছে অলি-গলিতে ছড়িয়ে থাকা হাজার হাজার সেই সব ব্যবসায়ীরও, যাঁরা পালিশ করা হিরে কারিগরদের থেকে নিয়ে বিভিন্ন সংস্থা বা বড় ব্যবসায়ীর কাছে বেচেন। সরকারি পরিসংখ্যান বলছে, ভারতে প্রায় ১০ লক্ষ মানুষের রুটি-রুজি হিরে শিল্পের সঙ্গে জড়িয়ে। যার মধ্যে বেশির ভাগই সুরতের।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement