Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

২০ হাজার কোটি নিতে পারবে না ভারত, আন্তর্জাতিক ট্রাইবুনালে জয় পেল ভোডাফোন

সংবাদ সংস্থা
হেগ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ২১:৫৫
ভারতের বিরুদ্ধে বড় জয় পেল ভোডাফোন।

ভারতের বিরুদ্ধে বড় জয় পেল ভোডাফোন।

সুপ্রিম কোর্টে ভোডাফোনের সঙ্গে মামলা হেরে যাওয়ার পর আইন বদলে ফেলেছিল ভারত সরকার। চাপানো হয়েছিল রেট্রোস্পেক্টিভ এফেক্ট। এ বার আন্তর্জাতিক ট্রাইবুনালেও ভারত সরকারের বিরুদ্ধে বড়সড় জয় পেল এই ব্রিটিশ টেলিকম সংস্থা। ২০ হাজার কোটির বকেয়া কর মকুব হয়ে গেল হেগ-এ আন্তর্জাতিক মধ্যস্থতা ট্রাইবুনালের রায়ে। মামলা চালানোর খরচ হিসাবে ভোডাফোনকে আরও ৪০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও বলেছে ট্রাইবুনাল। সেই টাকা ভারত সরকারকেই দেওয়া উচিত বলে শুক্রবার জানিয়ে দিয়েছে তারা।

প্রায় দেড় দশক ধরে কর নিয়ে সঙ্ঘাত চলছে ভারত সরকারের সঙ্গে ভোডাফোনের। শেষ পর্যন্ত শুক্রবার ভারত সরকারের দাবিকে অন্যায্য বলে উল্লেখ করে আন্তর্জাতিক ট্রাইবুনাল নির্দেশ দিয়েছে, ভোডাফোনের কাছে ওই ২০ হাজার কোটি টাকা আর চাইতে পারবে না ভারত সরকার। ট্রাইবুনালের যুক্তি, নয়াদিল্লির ওই দাবি ভারত-নেদারল্যান্ড বিনিয়োগ চুক্তির পরিপন্থী।

ভোডাফোনের হয়ে ট্রাইবুনালে সওয়াল করেছে নয়াদিল্লির আইন বিষয়ক পরামর্শদাতা একটি সংস্থা। ওই সংস্থার ম্যানেজিং পার্টনার অনুরাধা দত্ত এ দিনের রায়ের পর বলেছেন, ‘‘অবশেষে বিচার পেল ভোডাফোন। ভারত সরকার রেট্রোস্পেক্টিভ সংশোধনী কার্যকর করে কর আদায় করার চেষ্টা করেছিল, যা আগেই খারিজ হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। এ দিন ট্রাইবুনাল বলেছে, এটা দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তির বিরোধী।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: অক্টোবরে বঙ্গ বিজেপি-র সঙ্গে বিশেষ বৈঠকে অমিত শাহ

আরও পড়ুন: ২৮ অক্টোবর থেকে তিন দফায় ভোট বিহারে, ফলাফল ১০ নভেম্বর

টেলিকম পরিষেবা সংস্থা হাচিসন হামপোয়া-র হাতবদল হয় ২০০৭ সালে। ওই সময় ভোডাফোন হাচিসনকে অধিগ্রহণ করে ১,১০০ কোটি ডলারে। সেই অঙ্ক ভোডাফোনের আয় হিসেবে ধরে নিয়ে তার উপর কর চাপায় ভারত সরকার। কর না দেওয়ায় তার উপর জরিমানা ধার্য করা হয় ৭,৯০০ কোটি টাকা। কর ও জরিমানা মিলিয়ে মোট দু’হাজার কোটি টাকা বকেয়া এবং তা আদায়ের নোটিস ধরায় ভারতীয় অর্থ মন্ত্রক। গোড়া থেকেই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল ভোডাফোন। ২০১২ সালে সেই মামলায় সুপ্রিম কোর্টে জয় পায় এই টেলি পরিষেবা সংস্থা। কিন্তু সেই সময় আইন সংশোধন করে তাতে চাপানো হয় রেট্রোস্পেক্টিভ এফেক্ট। অর্থাৎ পুরনো লেনদেনেও কর দিতে হবে— এমন আইন তৈরি হয়। এর পর ২০১৪ সালে আন্তর্জাতিক মধ্যস্থতা ট্রাইবুনালের দ্বারস্থ হয় ভোডাফোন। সেই মামলাতেই এ দিন রায় দিয়েছে ট্রাইবুনাল।

আরও পড়ুন

Advertisement