Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

টুকরো টুকরো খুশি দিয়ে গড়া খুদে পাঠকের পৃথিবী

চিরশ্রী মজুমদার 
কলকাতা ০৯ অক্টোবর ২০২১ ০৬:৫৬

ছোটদের দুনিয়ায় মিশে গিয়ে তাদেরই ভাষায় কবিতা লিখে নির্মল আনন্দ উপহার দিয়েছেন জয় গোস্বামী, পূজাবার্ষিকী আনন্দমেলা-য় (সম্পা: সিজার বাগচী)। স্মরণজিৎ চক্রবর্তীর ‘নিঃসঙ্গ প্রহরী’ উপন্যাসে আমাজ়নের জল-জঙ্গলের রোমাঞ্চ। রমরমে রহস্যে ঠাসা উপন্যাসগুলির ফাঁকে মন হালকা করে প্রচেত গুপ্তের গল্পে ডাকাতের হৃদয় পরিবর্তন। বিপত্তারণে ক্যাপ্টেন আমেরিকার চেয়ে কম যান না গণ্ডগ্রামের হাসিপাগলি— জেনে তৃপ্তি আসে, কষ্টও হয়। বিষাদেও শিহরনের রেশ পাক দিয়ে যায় রাজশ্রী বসু অধিকারীর ‘হরিমতীর ঝিল’-এ। মেজাজ ফের চাঙ্গা করে দেয় বাঙালি টিনটিন রাপ্পা রায়ের কৌতুক-চঞ্চল কমিক্স আর শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের অদ্ভুতুড়ে সিরিজ়ের নবতম আকর্ষণ ‘আশুবাবুর টেলিস্কোপ’। কুনাল বর্মণের প্রচ্ছদে দুর্গা পরিবারের স্নিগ্ধ রূপ।

শুধুই শারদ-পত্রিকা নয়, পুজোর দিনগুলোয় আয়েস করে পড়ার মতো শক্ত বাঁধাইয়ের আস্ত একখানা রংচঙে বই বলেই মনে হয় ডিঙিনৌকো-কে (সম্পা: সুনির্মল চক্রবর্তী)। উপন্যাসের চলনপথেই গল্পচ্ছলে বিজ্ঞান-ভূগোলের তথ্যও বুঝিয়ে দিয়েছেন যশোধরা রায়চৌধুরী; দ্য জাঙ্গল বুক-এর শের খানের মোড়কে বাস্তব পৃথিবীর দুর্বৃত্তদের চেনার উপায় বাতলেছেন শেখর বসু। ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায়ের ‘মাতাপ্রসাদের কীর্তি’ গল্পে ছোটনাগপুরের বন্ধুর ভূপ্রকৃতির সঙ্গে অদ্ভুত সঙ্গত দিয়েছে মানুষের বুদ্ধির জোর আর পাথরের মতো পেশি। হাসি, মজা, রূপকথা, অ্যাডভেঞ্চার— নানা স্বাদের গল্প; পবিত্র সরকার, আনসার উল হক প্রমুখের ছড়া-কবিতার পাশাপাশি পুজোয় বন্ধুরা মিলে মঞ্চায়নের উপযোগী নাটকের ভাবনাও মিলবে। আজকের লেখকদের সঙ্গেই ‘ফিরে দেখা’ বিভাগে রবীন্দ্রনাথ, শরৎচন্দ্র, অন্নদাশঙ্কর, নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী, শঙ্খ ঘোষের গদ্য-পদ্য। এতে বরেণ্যদের সাহিত্যকীর্তির সঙ্গে ছোটদের পরিচয় গাঢ় হবে। কমিক্সে বোম্বাগড়ের রাজার দেশের সচিত্র সবিস্তার খবরাখবর ভাল চমক। পত্রিকার বিন্যাসকলা, অলঙ্করণ ছোটদের মন টানবে।

এগারোটি উপন্যাস, পাঁচটি বড়গল্প, পঁচিশটি গল্প; ছড়া-কবিতা-লিমেরিক, কমিক্স, নাটক, খেলা ও ভ্রমণ নিয়ে লেখা— পুজোর ছুটি জমিয়ে দেওয়ার সবই মজুত আমপাতা জামপাতা ছোটদের আনন্দবার্ষিকী ১৪২৮ সংখ্যায় (সম্পা: দেবাশিস্ বসু)। প্রায় পাঁচশো পাতার মস্ত পত্রিকা, সুন্দর ছাপা, ছবি ও অলঙ্করণ এগিয়ে নিয়ে যাবে খুদে পাঠককে। অবনীন্দ্রনাথ, নারায়ণ দেবনাথ, শঙ্খ ঘোষকে নিয়ে বিশেষ রচনা, অস্কার ওয়াইল্ড আর এনিড ব্লাইটনের অনুবাদ, বিভূতিভূষণের কাহিনি থেকে আশিস ভট্টাচার্যের চমৎকার আঁকা-লেখায় কমিক্স নজর কাড়ে। গল্প-নাটক-উপন্যাসে অমর মিত্র, পবিত্র সরকার, সৌমিত্র বসু, শেখর বসুদের পাশে সৈকত মুখোপাধ্যায়, অংশুমান কর থেকে বিবেক কুন্ডু; অশোককুমার মিত্র, মৃদুল দাশগুপ্ত, রত্নেশ্বর হাজরা, শ্যামলকান্তি দাশের ছড়া আর অলয় ঘোষালের প্রচ্ছদে পুজোর গন্ধ।

Advertisement

বন্দিপুর অরণ্যের চিতাবাঘ যুবরাজকে কেন সকলে সমঝে চলে, সুব্বু চিতাবাঘ কী ভাবে সাপের ছোবল থেকে বাঘুকে বাঁচিয়েছিল, সেই আরণ্যক গুপ্তকথার খোঁজ সঞ্চিতা-য় (সম্পা: তরুণকুমার সরখেল) সৌম্যনারায়ণ আচার্যের গল্পে। সত্যজ্যেঠুর পোষা টিকটিকি, ফিফাই ভূতের কাণ্ডকারখানার হদিসও এখানে। কম পঠিত লেখকদের অভিনব বিষয়ভাবনায় ঋদ্ধ পত্রিকার গল্প, কবিতা, রম্যরচনা, মহাজীবনের কাহিনির সম্ভার। কিন্তু ছোটদের সাহিত্য পত্রিকায় এত মুদ্রণ প্রমাদ অবাঞ্ছিত। খানিকটা একই সমস্যা কিশোর দুনিয়া-য় (সম্পা: তাপস মুখোপাধ্যায়)। অথচ স্বল্প পরিসরে পড়ার উপকরণ অঢেল। প্রকৃতি, পশুরাজ্য, মানবজীবনের দোষ-ত্রুটি, টুকরো খুশি নিয়ে ২৫টি ছোট বড় গল্প, ভ্রমণকাহিনি, কবিতা। গদ্য-পদ্যে-ছবিকাহিনিতে মজিয়ে রাখার পাশাপাশি পূজাবার্ষিকীর অন্যতম বৈশিষ্ট্য কালোপযোগী নিবন্ধ সাজিয়ে ছাত্রছাত্রীদের জ্ঞানভান্ডার সমৃদ্ধ করা। সে দিকে লক্ষ রেখেছে পত্রিকা। শঙ্খ ঘোষের প্রতি কবিতা-প্রণতি, ভগিনী নিবেদিতাকে হৃদয়ার্ঘ্য অর্পণ ছাড়াও বিশেষ নিবন্ধ ও পুনঃপ্রকাশিত লেখার মাধ্যমে রয়েছে সার্ধশতবর্ষে অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি।

মায়াকানন-এ (সম্পা: অর্ক পৈতণ্ডী) রয়েছে সাতটি উপন্যাস ও চারটি উপন্যাসিকা। ইংরেজ লেখক এম আর জেমস-এর কাহিনিটি বঙ্গানুবাদে পড়েও গা শিরশির করে। সুদৃশ্য প্রচ্ছদে রূপকথার আমেজ। অতিমারির তরাসে পুজোতেও অনেকটা সময় ছোটরা গৃহবন্দি হলেও, শীর্ষেন্দু-সঞ্জীব, প্রফুল্ল রায়, বুদ্ধদেব গুহের নতুন-পুরনো গল্পে, নির্বেদ রায়ের সিংহকাহনে মন উৎসবের রঙে উজলা রাখবে শুকতারা (সম্পা: রূপা মজুমদার)। সৈকত মুখোপাধ্যায়, শিশির বিশ্বাসের উপন্যাসের অলৌকিক প্লটে কালীপুজোর হিমেল বাতাস।

সুব্রত গঙ্গোপাধ্যায়ের গল্পের ঘ্রাণমাখা প্রচ্ছদেই পুজো মাতিয়ে দিয়েছে কিশোর ভারতী (সম্পা: ত্রিদিবকুমার চট্টোপাধ্যায়)। বিশেষ প্রাপ্তি প্রয়াত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও অনীশ দেবের অপ্রকাশিত রচনা। দুষ্প্রাপ্য গল্প ও কবিতা বিভাগে সোনালি অতীত থেকে কচিকাঁচাদের খুশির পসরা পাঠিয়েছেন লীলা মজুমদার, শিবরাম, হেমেন্দ্রকুমার, বনফুল। নচিকেতা, পি সি সরকার (জুনিয়র)-ও ছোটদের জন্য লিখেছেন। দুষ্টুমিতে সুমিষ্ট ওঙ্কারনাথের কমিক্স ‘সাজ্য’। চিত্রকাহিনির অবয়বে সায়ন পাল করোনার কালপঞ্জি সাজিয়েছেন। অনিতা অগ্নিহোত্রী, বাণী বসু, চুমকি চট্টোপাধ্যায়ের গল্প, আর্থার কোনান ডয়েলের জলদস্যু-কাহিনির বঙ্গানুবাদ, শ্রীজাতর কবিতা, সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়ের বড়মামার কীর্তি সমেত ইতিহাস-অ্যাডভেঞ্চারে ভরা আটখানা ছোট বড় উপন্যাসে আছে কল্পনাকে শাণিয়ে নেওয়ার সুযোগ, সঙ্গে নতুন শব্দ শেখার মজায় শারদীয়া জমাটিয়া।

আরও পড়ুন

Advertisement