• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

একদিনে আক্রান্ত বেড়ে ৬০, বাজার বন্ধ সাতদিন

Corona
প্রতীকী ছবি।

জেলায় করোনার দাপট বাড়ছে।  বুধবার জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ৬০ জনের করোনায় আক্রান্তের খবর মিলেছে।

তমলুক শহর, শহিদ মাতঙ্গিনী ব্লক ও নন্দকুমার এলাকায় নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় বাসিন্দাদের উদ্বেগ বেড়েছে। শহিদ মাতঙ্গিনী ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এক মহিলা স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হয়েছেন বলে জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর।

গত সোমবার রাতে ওই স্বাস্থ্যকর্মীক করোনা পজ়িটিভ রিপোর্ট আসার পরে মঙ্গলবার তাঁকে চণ্ডীপুর করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও সংলগ্ন চত্বর জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে। জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক বলেন, ‘‘ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের এক কর্মীর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।’’

এদিকে শহিদ মাতঙ্গিনী ব্লকের কাখরদা পঞ্চায়েত এলাকায় মঙ্গলবার রাতে ৫ জন সহ বিভিন্ন এলাকার ১৪ জনের করোনা পজ়িটিভ রিপোর্ট আসে বলে জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর। এই পরিস্থিতিতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে শহিদ মাতঙ্গিনী ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্র সংলগ্ন নোনাকুড়ি বাজারের দোকানপাট সাতদিন বন্ধ রাখার জন্য  ব্লক প্রশাসনের তরফে বাজার কমিটিকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। বুধবার বল্লুক-১ পঞ্চায়েতের তরফে মাইক প্রচার করে বাজার বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। পঞ্চায়েত প্রধান শরৎ মেট্যা বলেন, ‘‘প্রশাসনের নির্দেশ মেনে বাজার সাতদিন বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করা হয়েছে।’’

তমলুক শহরের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে এক ব্যক্তির করোনা পজ়িটিভ রিপোর্ট এসেছে বলে বুধবার জানান পুর প্রশাসক রবীন্দ্রনাথ সেন। শহরের করোনা পরিস্থিতির অবনতির জেরে বাসিন্দাদের বাড়ির বাইরে বের হওয়া ও যাতায়াত নিয়ন্ত্রণে কয়েকটি ওয়ার্ড গণ্ডিবদ্ধ করা হয়েছে। বুধবার কাঁথি শহরে এক করোনা আক্রান্তের হদিস মিলেছে। জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, শহরের এক ব্যবসায়ীর লালা রসের নমুনা সংগ্রহ করেছিল কাঁথি মহকুমা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এদিন তাঁর রিপোর্ট করোনা পজ়িটিভ আসে। আক্রান্ত ব্যবসায়ীকে পাঁশকুড়া কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। করোনায় আক্রান্তের খবরে এ দিন বিকেল থেকে শহরের একাংশ সিল করে গিয়েছে প্রশাসন। নন্দীগ্রাম স্বাস্থ্য জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সুব্রত রায় বলেন, ‘‘এদিন বেশ কয়েকজনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট মিলেছে। তাঁদের চিহ্নিত করে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা হচ্ছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন