• বাসুদেব ঘোষ 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

এনআরসি-র পক্ষে, বিপক্ষে স্টল মেলায়

Political Campaign
জয়দেব মেলায় তৃণমূল ও বিজেপির স্টল। নিজস্ব চিত্র

জয়দেবের মেলাতেও এনআরসি, সিএএ নিয়ে প্রচার চালাবে রাজনৈতিক দলগুলি। কেউ পক্ষে, কেউ বিপক্ষে। এর আগে পৌষমেলাতেও স্টল করে রাজনৈতিক দলগুলিকে এ ভাবেই প্রচার চালাতে দেখা গিয়েছিল।

মেলা ঢোকার মুখেই ইলামবাজার ব্লক তৃণমূলের পক্ষ থেকে গেট করা হয়েছে। সেখানে মেলা দেখতে আসা দর্শনার্থীদের স্বাগত জানানোর পাশাপাশি এনআরসি ও সিএএ বিরুদ্ধে পোস্টারও দেওয়া হয়েছে। অজয়ের ফেরিঘাটের ধারে তৃণমূলের পক্ষ থেকেও মেলায় স্টল করা হয়েছে। তৃণমূলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, স্টল থেকে এনআরসি ও সিএএ-এর বিরুদ্ধে মেলার কয়েকটা দিন জন সাধারণের কাছে প্রচার করা হবে। তৃণমূলের ব্লক সভাপতি ফজরুল রহমান বলেন, ‘‘পৌষমেলার মতো জয়দেব মেলাতেও আমরা স্টল করে মঙ্গলবার থেকেই এনআরসি ও সিএএ-এর বিরুদ্ধে প্রচার চালাব।’’ 

জয়দেব টিকরবেতা রাস্তায় বিজেপির পক্ষ থেকেও স্টল করা হয়েছে। সেই স্টল মকর সংক্রান্তির দিন, অর্থাৎ বুধবার বিজেপির জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মণ্ডলের উদ্বোধন করার কথা। সেই স্টল থেকে এনআরসি ও সিএএ-এর  সমর্থনে মানুষকে বোঝানো হবে। দেশে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন কেন প্রয়োজন তার পক্ষে বেশ কিছু বই রেখে সেগুলি বিক্রির পাশাপাশি লিফলেট বিলি করে প্রচার চালানো হবে বলে জানিয়েছেন ইলামবাজার ব্লকের বিজেপি নেতা শিবদাস ঘোড়ুই। তিনি বলেন, ‘‘নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝানো হচ্ছে। তার জন্য আমরা মেলায় স্টল করে সিএএ-এর সমর্থনে প্রচার চালাব।’’ 

সিপিএমের স্টল থেকেও প্রচারের আয়োজন করা হয়েছে। সিপিএমের জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মহম্মদ কামালউদ্দিন বলেন, ‘‘স্টল থেকে দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি জানিয়ে এনআরসি এবং সিএএ-এর বিরুদ্ধে প্রচার চালাব।’’

মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক ভাবে মেলার সূচনা করেন রাজ্যের মৎস্যমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ। এ দিন থেকেই দূরদূরান্ত থেকে ভক্তেরা ভিড় জমাতে শুরু করেছেন মেলায়। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন