রাজধানীর বাজারের নাম মাহাত্ম্য 

‘বেঙ্গলি মার্কেট’। দিল্লির প্রাণকেন্দ্রে এই পরিচিত বাজারটির নাম শুনে যদি ভাবেন এর সঙ্গে বাঙালিদের সম্পর্ক রয়েছে, তা হলে ঠকবেন। আসলে লালা বঙ্গালিমল লোহিয়া নামে অম্বালার এক ব্যবসায়ীর নাম থেকে এই বাজারের নাম হয়। বঙ্গালিমল থেকে ছোট হতে হতে বঙ্গালি মার্কেট, এখন লোকমুখে সেটাই বেঙ্গলি মার্কেট। এমস-এর কাছে ‘আইএনএ মার্কেট’-এর নাম শুনেও অনেকেই ভাবেন, এর উৎপত্তি নিশ্চিত ভাবেই নেতাজির আইএনএ বা ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল আর্মির নামে। আসলে এর নামকরণ হয় বেসরকারি বিমান সংস্থা ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল এয়ারওয়েজ়-এর থেকে, ভারত সরকার অধিগ্রহণের পর যা ইন্ডিয়ান এয়ারলাইন্সের সঙ্গে মিশে গিয়েছিল। খান মার্কেটের নামও খান আবদুল গফ্ফর খানের নামে হয়নি, তাঁর ভাই খান আবদুল জব্বর খানের নাম থেকে হয়েছিল। ‘সীমান্ত গাঁধী’র নামে বরং করোলবাগের কাছে বৈদ্যুতিন সরঞ্জামের জন্য খ্যাত গফ্ফর মার্কেটের নামকরণ হয়। 

আরম্ভ: দিল্লির করোলবাগে আবদুল গফ্‌ফর খান মার্কেট উদ্বোধনের দিনের ছবি

 

দিনে ১২৫

দেশের রাজধানীতে সবচেয়ে বেশি চুরি যায় কোন জিনিস? গাড়ি। বড়, মেজো থেকে ছোট বাবু, মায় আমজনতারও গাড়ি চুরি যায় নিয়মিত। দিল্লি পুলিশের বচ্ছরকার হিসেব বলছে, ২০১৯-এ দিল্লিতে ৯,৩৩৩টি গাড়ি চুরি গিয়েছে। গড়ে দিনে ১২৫টি গাড়ি চুরি যায়। এমনকি নেতারাও রেহাই পান না। বছর বছর লাফিয়ে বাড়ছে গাড়ি চুরির ঘটনা। এক বছরে প্রায় দশ শতাংশ বৃদ্ধি সহজ কথা নয়!

 

 

আছে নাকি?

‘‘আপনার কাছে কি ভিডিয়োটা আছে?’’ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অন্ধ্রে চন্দ্রবাবু নায়ডুর সভায় যোগ দেওয়ার পর থেকেই দিল্লির বাঙালি সাংবাদিকদের কাছে রাজনীতিকদের থেকে এই প্রশ্ন আসছে। মুখ্যমন্ত্রী সেই সভায় তেলুগুতে বক্তৃতা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী বা কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা, এমনকি অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও কলকাতার অনুষ্ঠানে গেলে দু’একটি কথায় বলেন, ওড়িশায় গেলে বলেন ওড়িয়াতে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিশাখাপত্তনমে গিয়ে তেলুগুতে বেশ কয়েকখানি কথা একেবারে গড়গড়িয়ে বলে এসেছেন। সেই ভিডিয়োই এখন দিল্লিতে ভাইরাল। সকলেই বাঙালি মুখ্যমন্ত্রীর মুখে তেলুগু শুনতে চান।

 

উল্লসিত

এত দিন সূর্যাস্ত হলেই পর্যটকদের জন্য বন্ধ হয়ে যেত লাল কেল্লার দরজা। শুধুমাত্র ‘লাইট অ্যান্ড সাউন্ড’ শোয়ের দর্শকরা সন্ধ্যার পরে লাল কেল্লার প্রাচীরের ভিতরে গা ছমছমে আলো-আঁধারির অভিজ্ঞতা টের পেতেন। আর টের পেতেন মশার উপস্থিতি। লাল কেল্লার মতোই বিখ্যাত তার মশক বাহিনী। তাই লাইট অ্যান্ড সাউন্ড শোয়ের দর্শকদের জন্য মশা প্রতিরোধক ক্রিমের বন্দোবস্ত থাকত। এ বার পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, লাল কেল্লা খোলা থাকবে রাত ন’টা পর্যন্ত। কিছু দিনের মধ্যে ‘পুরানা কিলা’ও রাত পর্যন্ত খোলা রাখার ব্যবস্থা হবে। পর্যটকরা খুশি। শোনা যাচ্ছে, লাল কেল্লার বিখ্যাত মশা বাহিনীও উল্লসিত।

 

 

তিনিই ভরসা

পাত্রাধার: অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি

এক বার তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের হয়ে লড়াই করছেন। পরক্ষণেই লড়ছেন কংগ্রেসের হয়ে। কিছু ক্ষণ পরেই আবার চন্দ্রবাবু নায়ডুর হয়ে রুখে দাঁড়াচ্ছেন। কংগ্রেসের নেতা তথা আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভিকে ইদানীং এমনই ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের হয়ে রাজীব কুমার-সিবিআই সংক্রান্ত মামলায় তিনি মমতার সরকারের হয়ে লড়ছেন। ও দিকে চন্দ্রবাবু নায়ডুর নেতৃত্বে বিরোধী দলের নেতারা ইভিএম-ভিভিপ্যাট নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা ঠুকেছেন। সেখানেও বিরোধী শিবিরের আইনজীবী তিনিই। আবার গাঁধী পরিবারের জামাই রবার্ট বঢরা, পি চিদম্বরম ও তাঁর ছেলে কার্তির বিরুদ্ধে সিবিআই-ইডি’র মামলাতেও প্রধান আইনজীবী হিসেবে ভরসা সেই অভিষেকেই!

 

 

আগাম ভোট

এ দেশে লোকসভা ভোট শুরু ১১ এপ্রিল থেকে। ইজ়রায়েলের জাতীয় নির্বাচন ৯ এপ্রিল। এ দেশে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার আগেই ভারতে ইজ়রায়েলের সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ হয়ে গেল। দিল্লি, মুম্বই, বেঙ্গালুরুতে নিযুক্ত ইজ়রায়েলের কূটনীতিক ও তাঁদের পরিবারের লোকেরা আগেভাগেই ব্যালটে ভোট দিয়ে দিলেন। তিনটি বাক্সে বন্দি সেই ব্যালট রওনা দিল ইজ়রায়েলে।