ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়ার পর কেটে গিয়েছে এক সপ্তাহ। কিন্তু এখনও পর্যন্ত উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগমে কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের বেতন ও পেনশন হয়নি বলে খবর।

নিগমের রায়গঞ্জের ডিভিশনাল ম্যানেজার সুবীর সাহার দাবি, ‘‘নিগমের কর্মীদের চলতি মাসে বেতন দেওয়ার ব্যাপারে বুধবার সরকারি নির্দেশিকা জারি হয়েছে। তবে চলতি মাসে এখনও পর্যন্ত অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের পেনশন দেওয়ার সরকারি নির্দেশিকা জারি হয়নি। আশা করছি, শীঘ্রই তা জারি হয়ে যাবে।’’

সূত্রের খবর, উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় নিগমের ২২টি ডিপোতে চালক, কনডাক্টর, টেকনিসিয়ান, সাধারণ কর্মী-সহ বিভিন্ন পদ মিলিয়ে ৩৩৪৭ জন কর্মী রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ১০১৯ জন স্থায়ী ও ২৩২৮ জন চুক্তিভিত্তিক কর্মী। দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে রয়েছেন আরও ৩০০ জন অস্থায়ী শ্রমিক। এঁদের মধ্যে রায়গঞ্জ ডিপোতেই সব মিলিয়ে রয়েছেন প্রায় ৪০০ জন কর্মী।

কংগ্রেস প্রভাবিত নিগমের ওয়ার্কার ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক প্রণব বসাক ও কংগ্রেস প্রভাবিত অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের সংগঠন রিটায়ার্ড ওয়েলফেয়ার ফোরামের কার্যনির্বাহী সভাপতি তারাপদ দাসের দাবি, বুধবার দু’টি সংগঠনের তরফে নিগমের রায়গঞ্জের ডিভিশনাল ম্যানেজারের কাছে চলতি মাসের ও এখন থেকে প্রতিমাসে নিয়মিত বেতন ও পেনশন দেওয়ার দাবিতে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। তাঁদের অভিযোগ, বাম আমলের শেষের দিকে নিগমের কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মীরা প্রতিমাসে নিয়মিত বেতন ও পেনশন পেতেন না। ২০১১ সালে তৃণমূল রাজ্যে ক্ষমতা দখলের পর রাজ্য সরকার নিগমের কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের মাসের প্রথমেই বেতন ও পেনশন দেওয়ার আশ্বাস দেয়। তাঁদের কথায়, প্রায় তিন বছর ধরে নিগমের কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মীরা দু’-তিন মাস অন্তর মাস শুরুর এক-দু’সপ্তাহ পর বেতন ও পেনশন পাচ্ছেন। সংগঠনের তরফে বহু আন্দোলন করেও প্রতিমাসে নিয়মিত মাসপয়লা বেতন ও পেনশন চালু করা সম্ভব হয়নি।

সিপিএম প্রভাবিত নিগমের এমপ্লয়িজ ইউনিয়নের সভাপতি পরিতোষ দেবনাথের দাবি, তাঁরাও এ দিন নিগমের রায়গঞ্জের ডিভিশনাল ম্যানেজারের কাছে স্মারকলিপি দিয়ে একই দাবি জানিয়েছেন। তৃণমূল প্রভাবিত নিগমের চালক ও শ্রমিক ইউনিয়নের সহকারি সাধারণ সম্পাদক কৌশিক দের বক্তব্য, ‘‘বাম আমলে সরকারি পরিকল্পনার অভাবে তৃণমূল পরিচালিত রাজ্য সরকার গোড়া থেকে এখনও পর্যন্ত ভর্তুকি দিয়ে নিগমের বাস পরিষেবা স্বাভাবিক রেখেছে। তাই মাঝেমধ্যে নিগমের কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের দেরিতে পেনশন ও বেতন হলেও কোনও মাসে তাঁদের বেতন ও পেনশন বন্ধ হয়নি।’’

মাসের প্রথম দিনেই বেতনের দাবিতে বুধবার দুপুরে মালদহের ইংরেজবাজারে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগম কর্তৃপক্ষকে স্মারকলিপি দিল উত্তরবঙ্গ স্টেট ট্রান্সপোর্ট এমপ্লয়িজ ইউনিয়নও। সংগঠনের শাখা সম্পাদক জাকির হোসেন বলেন, ‘‘স্থায়ী-অস্থায়ী এবং অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের এ দিন পর্যন্ত বেতন হয়নি। ঠিক মতো বেতন দেওয়া হচ্ছে না।’’ বিষয়টি উপরের কর্তাদের জানানো হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।