Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪
Assistant Professor Recruitment 2024

লোকসভা ভোটের আগেই সহকারী অধ্যাপকের পদে নিয়োগ সম্পূর্ণ করবে কলেজ সার্ভিস কমিশন

গত সেপ্টেম্বর থেকেই ১০০০ উপর শূন্য পদে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর নিয়োগের মেরিট প্যানেল প্রকাশ হতে শুরু করেছে। ৩২ হাজারেরও বেশি অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর পদপ্রার্থী অংশগ্রহণ করেন।

ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৫:৪৯
Share: Save:

লোকসভা ভোটের আগেই রাজ্যের বিভিন্ন কলেজে সহকারী অধ্যাপক নিয়োগের প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাবে বলে জানাল কলেজ সার্ভিস কমিশন।

গত সেপ্টেম্বর থেকেই ১০০০ উপর শূন্য পদে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর নিয়োগের মেরিট প্যানেল প্রকাশ হতে শুরু করেছে। ৩২ হাজারেরও বেশি অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর পদপ্রার্থী অংশগ্রহণ করেন। সরকার পোষিত ৪৫০টি কলেজে এই নিয়োগ সম্পূর্ণ করা হবে এপ্রিল মাসের মধ্যেই।

কমিশন জানিয়েছে, এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ইন্টারভিউ নেওয়ার কাজ ৯০ শতংশ সম্পূর্ণ হয়েছে। ১০০ থেকে ১৫০ অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসরের শূন্য পদ বাকি আছে, যার নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পূর্ণ করা হবে। রাজ্যের সরকার পোষিত সমস্ত কলেজে প্রায় ৪০ বিষয়ে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর নিয়োগ চলছে।

ইতিমধ্যে ৩০ বিষয়ের উপর ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে ফেলেছে কলেজ সার্ভিস কমিশন। প্রায় ৩১ হাজার অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর পদপ্রার্থী ইন্টারভিউ নেওয়ার পর মেরিট প্যানেলও প্রকাশ করা হয়েছে। পুজোর আগে সেপ্টেম্বর মাস থেকে ধাপে ধাপে নিয়োগের প্যানেল প্রকাশ করে কমিশন। প্রথমে ১৬ প্যানেল প্রকাশ করা হয়। পুজোর পরে আরও ১৪ প্যানেল প্রকাশ করা হয়।

কলেজ সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান দীপক কর বলেন, “সারা রাজ্যে ৪৫০ মতো সরকার পোষিত কলেজ রয়েছে। এই কলেজগুলিতে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর পদে আগামী দিনে ‌যাতে কোন শূন্য পদ না থাকে সেটাই আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য। তাই দ্রুত এই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করা হবে।”

৪০ বিষয়ের মধ্যে বাকি যে ১০ বিষয়ে রয়েছে তাও ফেব্রুয়ারি মাসে দ্রুত সম্পূর্ণ হয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন কমিশন। তাঁদের প্রত্যেকের হাতে সুপারিশপত্র তুলে দেওয়া হবে এপ্রিল মাসের মধ্যে ।

প্রসঙ্গত, অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসরের অবসরের সময়সীমা ৬০ বছর থেকে বৃদ্ধি করে ৬৫ করা হয়েছে। যার ফলে ২০১৭ সাল থেকে ২১ সাল পর্যন্ত সময়সীমায় অবসরপ্রাপ্তদের হার কমে গিয়েছিল। সরকারি অধ্যাপকদের অবসর প্রক্রিয়া শুরু হয় ২০২২ সালে জানুয়ারি মাস থেকে। তারপর কলেজগুলির কাছ থেকে অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর পদের শূন্য আসনের তালিকা চেয়ে পাঠানো হয়। কমিশনের তরফ থেকে ২০২৩ সালের অগস্ট মাস থেকে প্যানেল গঠনের কার্য শুরু করে বলে কমিশন সূত্রে খবর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE