Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Swami Vivekananda Merit cum Means Scholarship

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিন্স স্কলারশিপ-এর ঘোষণা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের

এই বৃত্তিটি পশ্চিমবঙ্গের অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া মেধাবী শিক্ষার্থীদের উচ্চমাধ্যমিক স্তর থেকে গবেষণা স্তরে পড়াশুনো চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্যই চালু করা হয়েছে।

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিন্স স্কলারশিপ-এর ঘোষণা

স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিন্স স্কলারশিপ-এর ঘোষণা সংগৃহীত ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৩ নভেম্বর ২০২২ ২১:৫১
Share: Save:

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উচ্চশিক্ষা দফতরের তরফে এই শিক্ষাবর্ষের জন্য 'স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিন্স স্কলারশিপ স্কিম'-এর ঘোষণা করা হয়েছে। এই স্কলারশিপে আবেদন জানানোর পোর্টালটি বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টে নাগাদ চালু করা হয়েছে বলে রাজ্য শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু জানিয়েছেন।

এই বৃত্তিটি পশ্চিমবঙ্গের অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া মেধাবী শিক্ষার্থীদের উচ্চমাধ্যমিক স্তর থেকে গবেষণা স্তরে পড়াশুনো চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্যই চালু করা হয়েছে। প্রতি বছরই এই বৃত্তি প্রকল্পের ঘোষণা করা হয় রাজ্যের তরফে।

এই স্কলারশিপে আবেদন জানানোর জন্য শিক্ষার্থীদের পারিবারিক আয় বার্ষিক ২,৫০,০০০ টাকা বা তার কম হতে হবে।

শিক্ষার্থীরা একই কোর্সের জন্য অন্য কোনও বৃত্তি বা অনুদানের আওতাভুক্ত হলে এই স্কলারশিপটি পাওয়া যাবে না। তবে যদি অন্য বৃত্তি বা অনুদানটি এককালীন হয়, তাহলে এই স্কলারশিপে আবেদন করার ক্ষেত্রে কোনও বাধা থাকবে না।

এই স্কলারশিপে বিভিন্ন কোর্সের জন্য প্রার্থীদের আলাদা শিক্ষাগত যোগ্যতার মান যেমন ধার্য করা হয়েছে, সেই সঙ্গে প্রতি কোর্সে আলাদা আলাদা বৃত্তিও প্রদান করা হবে, যথা -

১. উচ্চ মাধ্যমিক স্তর, কলা, বাণিজ্য, বিজ্ঞান শাখার স্নাতক স্তর, ইউজিসি অনুমোদিত অন্যান্য পেশাদারি কোর্সে স্নাতক স্তরের আবেদনকারীদের শেষ পরীক্ষায় ৬০ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে। বিজ্ঞান শাখার স্নাতক স্তর, ইউজিসি অনুমোদিত অন্যান্য পেশাদারি কোর্সে স্নাতক স্তরে শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ হবে মাসিক ১৫০০ টাকা এবং উপরোক্ত বাকি কোর্সের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ হবে মাসিক ১০০০ টাকা।

২. কলা, বাণিজ্য, বিজ্ঞান শাখা ও পেশাদারি কোর্সের স্নাতকোত্তর স্তরের এসভিএমসিএমএস আবেদনকারীদের শেষ পরীক্ষায় ৫৩ শতাংশ এবং কে-৩ আবেদনকারীদের শেষ পরীক্ষায় ৪৫ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে। স্নাতকোত্তর স্তরের বিজ্ঞান শাখা ও পেশাদারি কোর্সের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ হবে মাসিক ২৫০০ টাকা এবং উপরোক্ত বাকি কোর্সের শিক্ষার্থীদের জন্য বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ হবে মাসিক ২০০০ টাকা।

৩. নন-নেট এমফিল/নন-নেট পিএইচডি এবং নেট এলএস পিএইচডি স্তরের আবেদনকারীদের ক্ষেত্রে স্কলারশিপের জন্য আবেদন জানাতে কোন নির্দিষ্ট নম্বরের সীমা রাখা হচ্ছে না এবং এ ক্ষেত্রে বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ ধার্য হয়েছে যথাক্রমে মাসিক ৫০০০ ও ৮০০০ টাকা।

৪. স্নাতক স্তরের ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সের আবেদনকারীদের স্নাতকে ৬০ শতাংশ নম্বর এবং স্নাতকোত্তরের ইঞ্জিনিয়ারিং ও এআইসিটিই অনুমোদিত পেশাদারি কোর্সের আবেদনকারীদের স্নাতকে ৫৫ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে। এ ক্ষেত্রে বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ ধার্য হয়েছে মাসিক ৫০০০ টাকা।

৫. পলিটেকনিক কোর্সের আবেদনকারীদের শেষ পরীক্ষায় ৬০ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে এবং এ ক্ষেত্রে বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ হল মাসিক ১৫০০ টাকা।

৬.স্নাতক স্তরের মেডিক্যাল ডিগ্রি ও ডিপ্লোমা কোর্সের আবেদনকারীদের শেষ পরীক্ষায় ৬০ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে এবং এ ক্ষেত্রে বরাদ্দ বৃত্তির পরিমাণ হল যথাক্রমে মাসিক ৫০০০ ও ১৫০০ টাকা।

আবেদন জানানোর পদ্ধতি

১. শিক্ষার্থীদের প্রথমেই https://banglaruchchashiksha.wb.gov.in/ ওয়েবসাইটে গিয়ে এসভিএমসিএম বিকল্পটি ক্লিক করতে হবে।

২. এর পর এখানে শিক্ষাগত যোগ্যতার সমস্ত তথ্য ও নথি আপলোড করতে হবে, যেমন-মাধ্যমিকের মার্কশিট, বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কশিট, পারিবারিক আয়ের শংসাপত্র,সরকার প্রদত্ত সচিত্র প্রমাণপত্র, ব্যাঙ্কের তথ্য ও ভর্তির রসিদ।

আবেদনকারীদের এ ক্ষেত্রে যে কোনও সমস্যা হলে ১৮০০-১০২-৮০১৪ নম্বরে ফোন করে বা helpdesk.svmcm-wb@gov.in মেল করে জানাতে হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE