Isis claims it could buy its first nuclear weapon from Pakistan within a year - Anandabazar
  • সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পারমাণবিক অস্ত্র সংগ্রহের চেষ্টা করছে আইএস

Advertisement

পারমাণবিক অস্ত্র সংগ্রহের দিকে এগচ্ছে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)। সম্প্রতি প্রকাশিত এক প্রবন্ধে এমনই দাবি আইএস-এর। আইএস-এর অন্যতম মুখপত্র ‘দাবিক’-এ এই প্রবন্ধটি প্রকাশিত হয়েছে। মনে করা হচ্ছে আইএস-এর হাতে পণবন্দি ব্রিটিশ নাগরিক জন কান্টলি এই প্রবন্ধটির লেখক। দু’বছরেরও বেশি আইএস-এর হাতে পণবন্দি এই ব্রিটিশ নাগরিক। জন কান্টলি এর আগেও আইএস-এর হয়ে নানা প্রচারে অংশ নিয়েছেন। এর আগে জঙ্গি মহলে বহুল প্রচারিত ‘লেন্ড মি ইয়োর ইয়ার্স’ ভিডিওটিতে জন অংশ নিয়েছিলেন।

আইএস-এর এই দাবি নিয়ে গোয়েন্দামহলে সন্দেহ থাকলেও বিষয়টিকে হালকা ভাবে নিতে রাজি নন তাঁরা। এর বড় কারণ আইএস-এর আর্থিক ক্ষমতা। এখনও আইএস-এর হাতে বেশ কিছু তেল এবং প্রাকৃতিক গ্যাসের খনি আছে। এক সময়ে চোরাবাজারে সেই প্রাকৃতিক সম্পদ বিক্রি করে দৈনিক কয়েক মিলিয়ন ডলার আয় করত আইএস। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে বেশ কয়েকটি প্রত্নস্থল থেকে পাওয়া প্রত্নসামগ্রীর বিক্রি। ফলে আইএস-এর হাতে পারমাণবিক অস্ত্র সংগ্রহের মতো অর্থ রয়েছে বলে আশঙ্কা গোয়েন্দাদের।

প্রবন্ধে দাবি করা হয়েছে, পারমাণবিক অস্ত্র সংগ্রহের জন্য পাকিস্তানকে নিশানা করছে আইএস। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলির মধ্যে এক মাত্র পাকিস্তানের কাছেই পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে। প্রবন্ধ অনুসারে, আইএস-এর প্রতি সহানুভুতি সম্পন্ন এজেন্টরা এ বিষয়ে সক্রিয় রয়েছেন। পাকিস্তানের পারমাণবিক কর্মসূচির সঙ্গে জড়িত উচ্চপদস্থ কর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে। তাঁদের দুর্নীতির সুযোগ নিয়ে পারমাণবিক অস্ত্র পাওয়ার চেষ্টা চলছে বলে প্রবন্ধে দাবি করা হয়েছে।

বেশ কয়েক মাস যাবৎ পিছু হটলেও কয়েক দিন আগে আবার ঘুরে দাঁড়িয়েছে আইএস। ইরাকের রামাদি দখল করেছে তারা। সিরিয়ায় ইউনেস্কোর হেরিটেজ সাইট পালমারও আইএস-এর দখলে চলে এসেছে। আইএস-এর হয়ে লড়াই করতে সারা বিশ্ব থেকে জেহাদিরে ডাক দিয়েছে আইএস নেতা আবু বকর আল-বাগদাদি। মার্কিন বিমান হানায় শিরদাঁড়ার চোটে আপাতত শয্যাশায়ী বাগদাদি। সেই অবস্থাতাতেও এক অডিও বার্তায় এই আবেদন করেছেন বাগদাদি। পাশাপাশি শুক্রবার সৌদি আরবের আল-কাদি গ্রামে শিয়াদের ইমামা আলি-র মসজিদে আত্মঘাতী আক্রমণ চালায় আইএস। এই হামলায় ২১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আহতের সংখ্যা প্রায় ৮০। ফলে আইএস-এর দাবিকে উড়িয়ে দিচ্ছে না বিশেষজ্ঞ মহল।

পাশাপাশি এই প্রবন্ধে দাবি করা হয়েছে, বিচ্ছিন্ন ভাবে না থেকে জঙ্গি সংগঠনগুলি আইএস-এর ছাদের তলায় আসছে। যেমন, আফ্রিকার জঙ্গি সংগঠন বোকো হারাম। কিছু দিন আগেই বোকো হারামের তরফ থেকে আইএস-এর প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করা হয়েছিল। এ ভাবে আইএস অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠবে বলেও প্রবন্ধে দাবি করা হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন