বালি তোলাকে কেন্দ্র করে বোমাবাজির ঘটনায় এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের ঘটনা। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম আশরফ শেখ (৩২)। তিনি ভরতপুর থানা এলাকার হরিশচন্দ্রপুর গ্রামের বাসিন্দা। এই ঘটনায় লালু শেখ-সহ পাঁচ জনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। রবিবার বিকেল পর্যন্ত কোনও অভিযুক্ত গ্রেফতার হয়নি।

পুলিশ সূত্রের খবর, আশরফ ওই গ্রামে একটি বাড়ি তৈরি করছিলেন। সে কারণে কয়েকজন কর্মীকে ট্র্যাক্টরে করে পাশের গ্রামের নদী থেকে বালি তুলতে গিয়েছিলেন। সেখানেই বালি তোলাকে কেন্দ্র করে লালু শেখ নামে এক দুষ্কৃতীর সঙ্গে তার বচসা বাধে। পুলিশ জানায়, লালু তাঁকে বালি তুলতে বাধা দেয়। কিন্তু তাতে আমল দেয়নি আশরফ। দু’পক্ষের মধ্যে বচসা চলাকালীনই লালুর দলবল আশরফদের লক্ষ্য করে বোমা ছোড়ে। বোমার আঘাতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় আশরফ।


আশরফ শেখ।

পুলিশ সূত্রের খবর, হরিশচন্দ্রপুর গ্রামের পাশেই ময়ূরাক্ষী নদী। সেই নদী থেকে অভিযুক্ত লালু এবং ম়ৃত aআশরফ দীর্ঘদিন ধরেই বালি তোলে। বালি তোলাকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরেই দুই পরিবারের মধ্যে পুরনো বিবাদ রয়েছে। প্রাথমিক ভাবে পুলিশ জানিয়েছে, বালি তোলার জন্য লালুরা নদীর পাড়ে ঘাট তৈরি করেছে। কিন্তু আশরফ এবং তার পরিবারের লোকেরা  প্রয়োজনে ওই ঘাট থেকেই বালি তোলে। এ দিনও ট্র্যাক্টর নিয়ে আশরফ ওই ঘাটে বালি তুলতে গিয়েছিলেন। বছর ১০ আগে এই একই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আশরফের কাকাকে খুন করেছিল লালুর পরিবার। তেমনই আবার লালুর পরিবারের এক সদস্যকে খুন করে আশরফের পরিবার।