Advertisement
Back to
Lok Sabha Election 2024

সিপিএমের মিছিলে হাঁটার ‘অপরাধে’ বাম কর্মীদের মারধর, হাওড়ায় অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের

তৃণমূল পরিচালিত ধুলাগড় গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান আখতার হোসেন লস্কর এই হামলার নেতৃত্ব দেন বলে অভিযোগ। তৃণমূলের কর্মীদের হামলার ছবি মোবাইল বন্দি করেন স্থানীয়রা। মুহূর্তে তা ভাইরাল।

হাওড়ায় সিপিএম কর্মীদের মারধরের ভাইরাল ভিডিয়োর অংশ।

হাওড়ায় সিপিএম কর্মীদের মারধরের ভাইরাল ভিডিয়োর অংশ। — ছবি: ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
হাওড়া শেষ আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০২৪ ১৬:৩১
Share: Save:

মিছিলে হাঁটার ‘অপরাধে’ সিপিএম কর্মীদের মারধর করার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। রবিবার ঘটনাটি ঘটে হাওড়ার সাঁকরাইলের ধুলাগড় মল্লিকপাড়ায়। ঘটনাস্থলে নামানো হয় বিরাট পুলিশবাহিনী এবং র‌্যাফ। তৃণমূল অবশ্য হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

রবিবার সকালে সাঁকরাইলের ধুলাগড় মল্লিকপাড়ায় কর্মীদের নিয়ে মিছিল বার করেন হাওড়া সদর কেন্দ্রের সিপিএম প্রার্থী সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায়। মিছিল শেষে তিনি শিবপুর চলে যান। অভিযোগ, তখন তাঁর হয়ে যারা মিছিলে হেঁটেছিলেন, তাঁদের বাড়িতে লাঠি নিয়ে চড়াও হন তৃণমূল কর্মীরা। তৃণমূল পরিচালিত ধুলাগড় গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান আখতার হোসেন লস্কর এই হামলার নেতৃত্ব দেন বলেও অভিযোগ। তৃণমূলের কর্মীদের হামলার ছবি মোবাইল বন্দি করেন স্থানীয়রা। মুহূর্তের মধ্যে তা ভাইরাল হয়ে যায়। যদিও আনন্দবাজার অনলাইন সেই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি।

সিপিএম কর্মীদের অভিযোগ, মিছিলে যোগদান এবং স্লোগান দেওয়ার কারণেই তাঁদের উপর চড়াও হয়ে লাঠি দিয়ে মারধর করে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনায় তিন সিপিএম কর্মী আহত হন। হামলার কথা শুনে ফের ঘটনাস্থলে চলে আসেন সিপিএম প্রার্থী সব্যসাচী। তিনি বলেন, ‘‘আমাদের কর্মীদের গায়ে কেউ যদি আঁচড় দেয়, তা হলে আমরা বুঝে নেব। এ ভাবে মারধোর করে, ভয় দেখিয়ে আমাদের রোখা যাবে না।’’ প্রয়োজনে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন সিপিএম প্রার্থী।

এ দিকে, ধুলাগড় গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান আখতার হোসেন লস্কর যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘‘সিপিএম কর্মীরা আপত্তিকর কথাবার্তা বলে উত্তেজনা ছড়ানোর চেষ্টা করছিলেন। সিপিএমের লোকজনই তৃণমূল কর্মীদের মারধর করেছে। তার পর তৃণমূলের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছে।’’ সাঁকরাইলের তৃণমূল বিধায়ক প্রিয়া পাল জানান, সামান্য তর্কাতর্কি হয়েছে বলে তিনি জানতে পেরেছেন। বড় কোনও ঘটনা ঘটেনি বলেও তাঁর দাবি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE