×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement
Powered By
Co-Powered by
Co-Sponsors

Bengal polls 2021: ভোটের আগে মমতার সমর্থনে গান বাঁধলেন কবীর সুমন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৩ মার্চ ২০২১ ১৩:২৮

একদা তিনি তৃণমূলের সাংসদ ছিলেন। সাংসদ থাকাকালীনই দলের সঙ্গে একটা সময়ে তাঁর দূরত্ব বেড়েছিল। তবে শেষপর্যন্ত তা মিটমাটও হয়ে যায়। কিন্তু তার পর তিনি আর ভোটে দাঁড়াননি। বরং সক্রিয় রাজনীতি থেকে নিজেকে খানিকটা গুটিয়েই নিয়েছিলেন। ব্যস্ত ছিলেন (এখনও আছেন) মূলত বাংলা খেয়াল নিয়ে। তবে গত লোকসভা ভোটে রাজ্যে বিজেপি-র উত্থানের পর থেকে তিনি আবার তাঁর রাজনৈতিক অবতারে সক্রিয় হয়েছেন। কবীর সুমনের সেই অবতারই লিখেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে নতুন গান। গানের কথা নেটমাধ্যমে ‘শেয়ার’ও করেছেন সুমন।

ছ’টি অনুচ্ছেদের ওই গানে সুমন লিখেছেন মমতা এবং তাঁর সরকারের আমলে রাজ্যে বিভিন্ন জনমুখী প্রকল্পের কথা। বুধবার সকালে ওই গানটি নেটমাধ্যমে দিয়েছেন তিনি। সঙ্গে লিখেছেন, ‘বাংলা ও মমতার জন্য আমার গান। সুর করে নিয়েছি। রেকর্ড করার কথা আসছে শনিবার। অ্যারেঞ্জমেন্ট আমার। গাইবেন নবীনরা— সঙ্গে এই বুড়ো’। পাশাপাশিই ‘নাগরিক কবিয়াল’ লিখেছেন, ‘লিরিকটি কপি করলেন ও ছবি তুলে দিলেন সৌমী বসু মল্লিক’। দুপুরের আগে পর্যন্ত গানটি নেটমাধ্যমে সুমনের অ্যাকাউন্ট থেকে ১০টি ‘শেয়ার’ হয়েছে। কিছু কিছু ‘কমেন্ট’ও জমা পড়েছে। সুমনের ওই গানে যেমন ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্পের কথা আছে, তেমনই আছে সাইকেল চালিয়ে গ্রামের পড়ুয়াদের স্কুলে যাওয়া এবং স্কুল থেকে ফেরার কথাও।

Advertisement

প্রসঙ্গত, পেশায় গীতিকার, সুরকার এবং গায়ক সুমন রাজ্যে জমি আন্দোলনের সময় সক্রিয় রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। সিঙ্গুর-নন্দীগ্রাম আন্দোলনে সরাসরি আন্দোলনকারীর ভূমিকায় নেমেছিলেন তিনি। তখনই তাঁর পরিচয় তদানীন্তন বিরোধীনেত্রী মমতার সঙ্গে। অচিরেই দু’জনে সিপিএমকে ক্ষমতাচ্যুত করার লক্ষ্যে জোট বাঁধেন। তার পর ২০০৯ সালে সুমন সরাসরি যোগ দেন তৃণমূলে। মমতা তাঁকে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী করেন। বিপক্ষে ছিলেন সিপিএমের পোড়খাওয়া নেতা সুজন চক্রবর্তী। তখনকার সিপিএম-বিরোধী হাওয়ায় তৃণমূলের সুমনের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে সুজনের মতো অভিজ্ঞ রাজনীতিকও কিছু করতে পারেননি। সুজনকে হারিয়ে যাদবপুরে জিতে যান সুমন। সাংসদ হন। মাঝখানে তৃণমূলের দক্ষিণ ২৪ পরগনার তৎকালীন জেলা সভাপতি শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিতর্কেও জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। তখন দলের সঙ্গে তাঁর দূরত্বও তৈরি হয়েছিল। দলীয় শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি সুমনের ‘শাস্তি’র সুপারিশ করেছিল। কিন্তু ধীরে ধীরে সময়ের সঙ্গে আবার তাঁর সঙ্গে তৃণমূলের দূরত্ব কমে।

গত কয়েক বছর থেকেই সুমন আবার মমতার পাশে সক্রিয় ভাবে রয়েছেন। ইদানীং তাঁর সেই ‘সক্রিয়তা’ আরও বেড়েছে। তারই পরিচায়ক সুমনের সাম্প্রতিকতম গানটি। যা শনিবার রেকর্ড করা হবে বলে তিনি নিজেই জানিয়েছেন।

Advertisement