×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement
Powered By
Co-Powered by
Co-Sponsors

সাতসকালেই দিলীপ-সাক্ষাতে তৃণমূলের সেই দেবাশিস, রাজ্যের এক মন্ত্রীর হয়েও দৌত্য?

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১২:০৯
ইকো পার্কে সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে দেবাশিস জানা।

ইকো পার্কে সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে দেবাশিস জানা।
—নিজস্ব চিত্র।

রবিবারের সকালে ইকো পার্কে গিয়ে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের সঙ্গে দেখা করলেন বিধাননগরের তৃণমূল নেতা দেবাশিস জানা। বিধাননগর পুরসভার ৩৪ নম্বর পুরসভার বিদায়ী কাউন্সিলর দেবাশিস। বিজেপি-তে যোগ দেওয়া সব্যসাচী দত্ত যখন বিধাননগরে তৃণমূলের হয়ে মেয়র, দেবাশিস তখন তাঁর ঘনিষ্ঠতম বৃত্তে ছিলেন। বিজেপি-র অন্দরের খবর, নিজের এবং সেই সঙ্গে রাজ্যের এক মন্ত্রীর হয়েও দৌত্য করতে তিনি গিয়েছিলেন দিলীপের কাছে। যদিও দিলীপ তা স্বীকার করছেন না। তিনি বললেন, "আমি রোজ মর্নিংওয়াকে আসি। অনেকেই আসেন। অনেকের সঙ্গেই দেখা হয়। ওঁর সঙ্গে এই প্রথম বার দেখা হল। সৌজন্য বিনিময় হল। এর বেশি কিছু নয়।" এ ব্যাপারে সকাল থেকে বার বার দেবাশিসের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁর ফোন সুইচড অফ ছিল।

এই দেবাশিসকে নিয়েই জল্পনা তৈরি হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারী বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার দিন। অমিত শাহ-র মেদিনীপুরের ‘যোগদান সভা’য় দেবাশিসেরও বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার ‘কথা ছিল’। যোগদানকারী হিসেবে তাঁর নামও ঘোষণা করে দেওয়া হয় বিজেপি-র তরফ থেকে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদলে ফেলেন দেবাশিস। সেই সময়ে রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়ে যায় বিজেপি। সে দিন দেবাশিস ছাড়াও বিজেপি-তে যোগদানের তালিকায় নাম ছিল উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃণমূলের সহ-সভাপতি প্রফুল্ল বর্মনের। তিনিও কথা দিয়ে যাননি বলে দাবি করেছিলেন শুভেন্দু ঘনিষ্ঠরা।

এ বার নতুন করে জল্পনা তৈরি হল দেবাশিসকে নিয়ে। দেবাশিস ঘনিষ্ঠরা অনেকে বলছেন, এখন মনস্থির করে ফেলেছেন তিনি এবং সেই কারণেই এই দিলীপ সাক্ষাৎ। তবে বিজেপি-র আর একটি অংশ বলছে, শুধু নিজের জন্যই নয়, রাজ্যের এক মন্ত্রীও ইদানীং বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার জন্য উঠেপড়ে লেগেছেন। ইতিমধ্যেই কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতার সঙ্গে বৈঠকও করেছেন। কিন্তু তেমন আশ্বাস মেলেনি। এ বার তাই দেবাশিসের মাধ্যমে দিলীপের সঙ্গে যোগাযোগ। যদিও কোনও পক্ষই এ ব্যাপারে প্রকাশ্যে কিছু বলতে চান না এখনও।

Advertisement
Advertisement