কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যে জৌলুস থাকে, সমাপ্তি অনুষ্ঠান বরাবরই তার চেয়ে ফিকে হয়। প্রথম দিনের মতো তারকাখচিত সন্ধে শেষ দিনে ছিল না। তবে কথায় বলে, ওস্তাদের মার শেষ রাতে। অমিতাভ বচ্চনের রেকর্ডেড স্পিচ সেটাই ছিল। অমিতাভ তাঁর বয়ান ভিডিয়ো করে পাঠান। শুক্রবার নজরুল মঞ্চের সমাপ্তি অনুষ্ঠানে তা দেখানো হয়। 

সমাপ্তি অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন শাবানা আজ়মি। অনুষ্ঠান মঞ্চে ছিলেন টলিউডের একাধিক তারকা। রঞ্জিত মল্লিক, মাধবী মুখোপাধ্যায়, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়, আবীর চট্টোপাধ্যায়, শুভশ্রী, তনুশ্রী প্রমুখ। গোল্ডেন রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার অ্যাওয়ার্ডের প্রাপকদের ঘোষণা ছিল এ দিনের অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ। ইন্টারন্যাশনাল কম্পিটিশন বিভাগে সেরা ছবি ‘দ্য উইপিং উওম্যান’, পরিচালক জায়রো বুস্তামান্তে এবং সেরা পরিচালক ভ্যাসলভ মারুল (‘দ্য পেন্টেড বার্ড’)। এই বিভাগে স্পেশ্যাল জুরি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে পরিচালক লেন্ডিটা জ়েসিরাইয়ের ‘আগা’জ় হাউস’। হীরালাল সেন মেমোরিয়াল অ্যাওয়ার্ড ফর বেস্ট ফিল্ম ইন ইন্ডিয়ান ল্যাঙ্গোয়েজ পেয়েছে অনন্ত মহাদেবনের ‘মাই ঘাট ক্রাইম নাম্বার একশো তিন-দু’হাজার পাঁচ’। সেরা পরিচালক হয়েছেন ইন্দ্রাশিস আচার্য, ‘পার্সেল’ ছবির জন্য। ইন্ডিয়ান ল্যাঙ্গোয়েজ বিভাগে স্পেশ্যাল জুরি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে গীতা জে-র ‘রান কল্যাণী’। নেটপ্যাক বিভাগে সেরা ছবি আদিত্য কৃপালনির ‘দ্য গডেস অ্যান্ড দ্য হিরো’। বেস্ট ইন্ডিয়ান শর্ট ফিল্ম হয়েছে শ্রাবণ কেতেকানেনির ‘সামার র‌্যাপসডি’। বেস্ট ইন্ডিয়ান ডকুমেন্টরি গৌরব পুরীর ‘অ্যাব্রিডগেড’।

পুরস্কার-তালিকায় চোখ বোলালে বোঝা যাবে, কী ভাবে বিশ্ব মিলে যাচ্ছে উৎসবের আঙিনায়। প্রাক-শীতের পড়ন্ত বেলায় সেটাই প্রাপ্তি।