Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

কঙ্গনাকে মারছিলেন আদিত্য, সাক্ষী হতে রাজি প্রত্যক্ষদর্শী!

নিজস্ব প্রতিবেদন
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ২০:৪০
আদিত্যর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে রাজি প্রত্যক্ষদর্শী।

আদিত্যর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে রাজি প্রত্যক্ষদর্শী।

কঙ্গনা রানাওয়াত অভিযোগ করেছিলেন, ১৭ বছর বয়সে শারীরিক ভাবে হেনস্থা হতে হয়েছিল তাঁকে। সরাসরি আদিত্য পাঞ্চোলির নাম প্রকাশ্যে এনে অভিযোগ করেছেন অভিনেত্রী। স্বামীর সঙ্গে কঙ্গনার যে সম্পর্ক ছিল তা নিয়ে মুখ খুলেছেন আদিত্যর স্ত্রী জারিনা ওয়াহাবও। কঙ্গনার হয়ে টুইটারে গলা ফাটিয়েছেন তাঁর বোন রঙ্গোলিও। সম্প্রতি বলিউডের কঙ্গনা-পাঞ্চোলি ‘হট’ বিতর্কে এ বার বিস্ফোরক দাবি করেছেন এক ব্যক্তি।

আরও পড়ুন, আমার স্বামীর সঙ্গে ডেট করত কঙ্গনা, বিস্ফোরক দাবি আদিত্যর স্ত্রীর

আরও পড়ুন, ফাঁকা ফ্ল্যাটে আদিত্যকে নিয়ে চলে গিয়েছিলেন কঙ্গনা!

Advertisement

পিপিং মুন ডট কমের টুইটার পেজে শেয়ার করা একটি ভিডিওতে এক সর্দারজির দাবি, তিনি কঙ্গনাকে আদিত্যর হাতে মার খেতে দেখেছিলেন। গুরুপ্রীত আনন্দ নামে ওই প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন, ‘‘কয়েক বছর আগে রাত ১২-১২.৩০টা নাগাদ আমি বাইক চালিয়ে ফিরছিলাম। মু্ম্বইয়ের জুহুতে জে ডব্লুউ ম্যারিয়ট হোটেলের বাইরের রাস্তায় একটি মেয়ে রিকশা করে চিত্কার করে যাচ্ছিল। রিকশাচালককে বার বার ওই মেয়েটি বলছিল জোরে চালাতে। এমন সময় একটি সাদা রঙের গাড়ি রাস্তার কোণ ঘেঁষে এসে ওই রিকশার সামনে এসে দাঁড়ায়। আমি রিকশার দিকে তাকাতেই ওই মেয়েটি সাহায্য করুন বলে চিৎকার করতে শুরু করল। দেখলাম, গাড়ি থেকে বেরিয়ে এলেন টাক মাথা এবং লম্বা এক ব্যক্তি। চুলের মুঠি ধরে ওই মেয়েটিকে টানতে শুরু করে ওই ব্যক্তি। ঘুঁষিও মারে। বাইক থেকে নেমে দেখি লোকটা আদিত্য পাঞ্চোলি আর মেয়েটি কঙ্গনা রানাউত। আমি তাদের থামাতে গেলে, আদিত্য আমাকে বলেছিলেন সর্দারজি আপনি এর মধ্যে আসবেন না। এটা আমাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার।’’

_


ওই ব্যক্তি আরও জানিয়েছেন, ৮-১০ জন লোক জরো হয়ে গেলে কঙ্গনা নাকি রাস্তা পার হয়ে পালিয়ে যান। এর পর পুলিশকেও খবর দিয়েছিলেন ওই সর্দারজি।

কঙ্গনা যদি আদিত্যর বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে এফআইআর করেন, তবে আদালতে গিয়ে সাক্ষী দিতেও রাজি হয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন

Advertisement