Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Gantchora: ‘বনি’র বাজিমাত! ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-এর অঞ্জলির বঙ্গ-সংস্করণ ‘গাঁটছড়া’র অনুষ্কা?

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৪ জানুয়ারি ২০২২ ২০:৫৭
বনি, চিকু না ম্যাগি! অনুষ্কা কোনটা?

বনি, চিকু না ম্যাগি! অনুষ্কা কোনটা?

‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’ দেখেছেন? ‘টমবয়’ চেহারার কাজল ওরফে কলেজবেলার ‘অঞ্জলি’কে নিশ্চয়ই ভোলেননি?

দর্শক বলছেন, ১৯৯৮-এর ‘অঞ্জলি’র বঙ্গ সংস্করণ নাকি ধারাবাহিক ‘গাঁটছড়া’র ‘বনি’! চরিত্রের দিক থেকে তফাত প্রচুর। কিন্তু দু’জনের চেহারায় অদ্ভুত মিল। চেক প্রিন্টের শার্ট, জিন্স, টুপি মাথায় ছোট চুলের বনি পর্দায় এলেই সেই মিল আরও প্রকট। গৌরব চট্টোপাধ্যায়, অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়, শোলাঙ্কি রায়, শ্রীমা ভট্টাচার্য, অনুরাধা রায়ের পাশে দিব্যি নজর কাড়ছে এই চরিত্র! আর সেই জোরে দ্বিতীয় ধারাবাহিকেই জনপ্রিয় অনুষ্কা গোস্বামী।

কেমন লাগছে ছেলেদের মতো সাজতে? আনন্দবাজার অনলাইনকে অভিনেত্রী খোলা মনে বলেছেন, ‘‘এক ঘণ্টা ধরে সাজসজ্জা। তার পরে ‘বনি’ হয়ে ক্যামেরার মুখোমুখি। যত অভিনয় করছি, ততই যেন প্রেমে পড়ে যাচ্ছি ‘বনি’র!’’ সেটে কেউ বলছেন না, ঠিক যেন ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-এর ‘অঞ্জলি’? শুনে ফোনেই আনন্দে প্রায় আকাশ ছুঁয়ে ফেলার দশা! উচ্ছ্বসিত অনুষ্কার কথায়, ‘‘কী বলছেন, তা হলে আমার হৃদস্পন্দনই বেড়ে যাবে! কোথায় কাজল আর কোথায় আমি?’’

Advertisement

অনুষ্কা জানিয়েছেন, এই চরিত্র করে তিনি ভীষণ খুশি। তিনি নিজেও যে অনেকটাই ‘বনি’র মতো! বাড়িতে যখন থাকেন, সকলের পিছনে লাগেন। মজা করেন। হাসিখুশিতে মাতিয়ে রাখেন। এক কথায় খুবই প্রাণচঞ্চল। হয়তো তারই ছায়া পড়ছে তাঁর কাজে, দাবি অভিনেত্রীর। এই স্বভাবের কারণেই ইতিমধ্যেই তিনটি আদরের নামও তাঁর ঝুলিতে! পর্দায় ‘বনি’, বাড়িতে ‘চিকু’। সেটে অনেকেই তাঁকে আদর করে ‘ম্যাগি’ বলেন!

ইতিমধ্যেই অনুষ্কার অনুরাগীর দল ভারী হয়ে গিয়েছে। এক ঝাঁক তারকা-অভিনেতার মধ্যে থেকে এই জনপ্রিয়তা আদায় করে নেওয়া সহজ কথা নয়! অভিনেত্রী পুরো কৃতিত্ব দিচ্ছেন পরিচালক সৌমেন হালদার আর গৌরব, শোলাঙ্কি, অনিন্দ্য, শ্রীমাকে। তাঁর মতে, যে ভাবে পরিচালক খুঁটিয়ে চরিত্র বুঝিয়ে দিচ্ছেন, তাতে অভিনয় করাটা সহজ হয়ে যাচ্ছে। এ ছাড়া, বাকি অভিনেতাদের পরামর্শ তো রয়েইছে।
অনুষ্কার প্রথম ধারাবাহিক ‘দীপাবলির সাতকাহন’। সেখানে তিনি ছিলেন মুখ্য চরিত্রে। অভিনয়ের পাশাপাশি অনুষ্কা স্নাতক স্তরের পড়াশোনা করছেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তাঁর কথায়, ‘‘প্রথমে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে নাটক নিয়ে ভর্তি হয়েছিলাম। একটা সময়ের পরে পড়া শেষ করতে পারিনি। ফলে, রবীন্দ্রভারতী থেকে বেরিয়ে এসে ভর্তি হয়েছি মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে।’’

পর্দায় ডানপিটে মেয়ের শিল্পী বর! বাস্তবে কী? এ বার ‘বনি’র মতো করেই ঝরঝরিয়ে হাসি। অনুষ্কার পাল্টা জবাব, ‘‘মাত্র ২১ আমার! এখনই বর কী হবে? ৬১ পর্যন্ত অভিনয় করতে করতে ভাবা যাবে, কেমন ছেলেকে বিয়ে করব!’’

আরও পড়ুন

Advertisement