বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে ধারাবাহিকগুলির রেটিং নিম্নমুখী। তালিকার একেবারে প্রথম দিকে থাকা ধারবাহিকগুলির টিআরপি রেটিংও কমেছে। কেন? খোঁজ নেওয়া গেল টেলি ইন্ডাস্ট্রির কয়েকজনের কাছে।

লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে টেলিভিশনের সান্ধ্য আসর রাজনৈতিক তরজায় উত্তপ্ত। ভোটের ফলঘোষণা হয়ে গেলেও  সেই তাপ কমতে কিছুটা সময় লাগবে। ফলে টেলি সিরিয়ালের দর্শকসংখ্যায় কিছুটা হলেও ঘাটতি দেখা দিয়েছে। তার উপর আছে আইপিএল।

লেখক-প্রযোজক সুশান্ত দাস জানালেন, “আইপিএল খেলার রেশ চলছে। টিআরপি রেটিং কিছুদিন একটু কম থাকবে। প্লাস স্টার জলসা চ্যানেলের রিচের একটু প্রবলেম হওয়ার পর থেকে সেটা নিয়ে ওরা লড়াই করছে। জি বাংলার রিচ বেশি হয়েছে বলে জি এখন নম্বর ওয়ানে আছে। তবে আইপিএল এবং বিশ্বকাপ খেলার জন্য দর্শক একটু ভাগাভাগি হয়েছে এবং হবে। আমাদের লড়তে হবে এখনও তিনমাস। এই তো ৩০ তারিখ থেকে ওয়ার্ল্ড কাপ শুরু হচ্ছে। তো কিছু সিরিয়াল মার খাবেই, দুপুর ৩টে থেকে খেলা শুরু হলেও মার খাবে।”

আরও পড়ুন, ‘বাবাকে মুখ বন্ধ রাখতে বল, না হলে…’, অনুরাগের মেয়েকে ধর্ষণের হুমকি!

দর্শক কমে গেল? তিনি বললেন, “টেলিভিশনের দর্শক কমেনি কিন্তু। দর্শক আছে। হয়তো একটু এদিক ওদিক হচ্ছে। টেলিভিশন অত্যন্ত পপুলার মিডিয়াম। টেলিভিশনের থেকে বড় পপুলার মিডিয়াম ভারতবর্ষে নেই এখনও পর্যন্ত। আমরা ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম বলছি, সিনেমা বলছি... কিন্তু টেলিভিশন হচ্ছে ভারতবর্ষের সমস্ত জায়গায় সবথেকে পপুলার মিডিয়াম এবং তার রিচ রয়েছে। জি, স্টার সবারই রিচ রয়েছে। স্টারের রিচটা একটু নেটওয়ার্ক বেসিসে ঝামেলা হয় তো অনেক সময়... এই নেটওয়ার্ক অফ হয়ে গেছে, ওই নেটওয়ার্কের সঙ্গে ডিলিং হয়নি... এরকম অনেককিছু হয়... সেগুলোর কারণে প্রবলেম হয়। কিন্তু মা-কাকিমারা এখনও সন্ধ্যেবেলা টেলিভিশনই দেখে। সন্ধ্যের পর সব বাড়িতে টেলিভিশনই চলে।”


ত্রিনয়নী ধারাবাহিকের একটি দৃশ্য।

‘কে আপন কে পর’ ধারাবাহিকের পরিচালক কমলেশ বিশ্বাসের মতে, “আগে অডিও ভিজুয়াল মিডিয়াম সিরিয়াল এবং ফিল্ম এই দুটোর মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিল। এখন ওয়েব সিরিজ অনেকটা জায়গা দখল করে নিয়েছে। মানুষ এখন শুধু সিরিয়ালে সীমাবদ্ধ থাকছে না। সিরিয়ালের পাশাপাশি মোবাইল দেখছে, ওয়েব সিরিজ দেখছে। কারণ মেকিং বলুন, স্টোরি লাইন বলুন সব দিক থেকে অনেক উন্নতমানের হচ্ছে ওয়েব সিরিজ। ইন্টারেস্টিং আলাদা আলাদা কনটেন্টের ওপর তৈরি হচ্ছে। সেটা মানুষকে আকর্ষণ করছে। তো টেলিভিশন থেকে বেশ কিছু দর্শক ওয়েব সিরিজের দিকে ঝুঁকেছে। একটু উচ্চবিত্ত বা মধ্যবিত্ত পরিবারেও কিন্তু স্মার্ট ফোন ব্যবহার করছেন আগে যারা টেলিভিশন দেখতেন তাঁরাও। এটা টিআরপি কমে যাওয়ার আর একটা কারণ বলে আমার মনে হয়।”

আরও পড়ুন, কার সঙ্গে ছুটি কাটাচ্ছেন কৌশানী?

সব মিলিয়ে ধারাবাহিক ও চ্যানেলগুলির সঙ্গে যুক্ত কর্মী ও কলাকুশলীরা নির্বাচন ও ক্রিকেট বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার দিনক্ষণ গুনছেন। 

(টলিউডের প্রেম, টলিউডের বক্স অফিস, বাংলা সিরিয়ালের মা-বউমার তরজা -বিনোদনের সব খবর আমাদের বিনোদন বিভাগে।)