Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২১ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Biplab Chatterjee: ছোট পর্দায় টিআরপি তো কেনাই যায়! ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’-এ অভিনয় করতে এসে বিস্ফোরক বিপ্লব 

নিজস্ব সংবাদদাতা
০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ১৩:০০
বড় পর্দার দাপুটে খলনায়ক ছোট পর্দায় ‘কীর্তনিয়া’?

বড় পর্দার দাপুটে খলনায়ক ছোট পর্দায় ‘কীর্তনিয়া’?

বড় পর্দায় তাঁকে শেষ দেখা গিয়েছে পাভেলের ‘অসুর’ ছবিতে। সেখানে নুসরত জাহানের বাবা তিনি। ইতিবাচক চরিত্রে তাঁর অভিনয় দর্শক-সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে। বাংলা ছবির সেই জনপ্রিয় ‘খলনায়ক’ বিপ্লব চট্টোপাধ্যায় এ বার ছোট পর্দায়। স্টার জলসার ধারাবাহিক ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’-এ। কোন ভূমিকায় দেখা যাবে তাঁকে? আনন্দবাজার অনলাইনকে প্রবীণ অভিনেতা জানিয়েছেন, ‘‘এক বয়স্ক কীর্তনিয়ার চরিত্রে অভিনয় করছি। নাম বিষ্ণুদাস। আমার ঠোঁটে কীর্তন গান আছে। অভিনয় করতে বেশ লাগছে।’’

বড় পর্দার দাপুটে খলনায়ক ছোট পর্দায় ‘কীর্তনিয়া’? বিপ্লব বরাবরের মতোই স্পষ্টবাদী। বললেন, ‘‘আমি কিন্তু আগেও অনেক ছবিতে ভদ্রলোকের চরিত্রে অভিনয় করেছি। ‘আদু’, ‘মৌন মুখর’-র মতো ছবি তার উদাহরণ। এই ধরনের ছবির কথা কেউ মনে রাখে না। আমি মন থেকে চাই, এই ধরনের চরিত্রই আমায় দেওয়া হোক।’’ তার পরেই আক্ষেপ, তাঁকে ঠিক মতো ব্যবহারই করতে পারল না টলিউড। দাবি, ‘‘পরিচালক বন্ধুদের আমায় কেবল খলনায়ক হিসেবেই পছন্দ। ফলে, ওই এক ধরনের চরিত্রে অভিনয় করতে করতে আমিও ক্লান্ত। অপেক্ষায় থাকি, কখন ভদ্রলোকের চরিত্রে আমায় ডাকা হবে। আমি সেখানে অভিনয়ের সুযোগ পাব।’’

Advertisement

‘মহাপীঠ তারাপীঠ’-এর চিত্রনাট্য অনুযায়ী বিপ্লব ওরফে ‘বিষ্ণুদাস’ এক কালের নামী কীর্তনিয়া। বয়সের ভারে আর আগের মতো গাইতে পারেন না। অভাবের সংসারে তাঁর সঙ্গে থাকেন পালিতা অনাথ নাতনি রাধারানি। তাকে তিনি বিয়ে করতে চান। কিন্তু অভাব সেই বাদ সেধেছে। বিষ্ণুদাসের পাশে দাঁড়াতে তাঁর কুটিরে পা রাখবেন সাধক বামদেব। বিপ্লব জানিয়েছেন, তিন দিনের শ্যুট হয়ে গিয়েছে। আরও হয়তো কয়েক দিন শ্যুট হবে।

এই ধরনের ছোট চরিত্রে অভিনয়ে মন সায় দেয়? প্রবীণ অভিনেতার কথায়, ইদানীং ধারাবাহিকের মান খুবই পড়ে গিয়েছে। ব্যতিক্রম, ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’ এবং ‘আয় তবে সহচরী’। ফলে, একঘেয়ে গল্পের ধারাবাহিকে একই ধারার চরিত্রে অভিনয় করতে করতে তিনি ক্লান্ত হয়ে পড়বেন। তাই অল্প দিনের কাজই তাঁর পক্ষে ভাল। যে দু’টি ধারাবাহিকের নাম অভিনেতা বললেন তার কোনওটির টিআরপি-ই এই মুহূর্তে ভাল নয়। কথা ফুরনোর আগেই ফের বিস্ফোরক বিপ্লব, ‘‘টাকা দিয়ে টিআরপি কেনা যায় এ কথা কে না জানে! যে যাই বলুন, ‘সহচরী’তে সাহানা দত্তের চিত্রনাট্য আর কণীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিনয় আমার ভীষণ ভাল লাগছে। কাজ করতে এসে দেখছি, ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’-এর সেটের সবাইও ভীষণ ভদ্র।‘’

তাঁর আরও দাবি, রাজা সেনের ‘সুবর্ণলতা’র মতো ধারাবাহিক আর হবে না। তাই ছোট পর্দা নিয়ে যত কম বলা যায় ততই ভাল!

আরও পড়ুন

Advertisement