‘হাউসফুল ৪’ মুক্তির আর মাত্র তিন দিন বাকি।  এই ছবিতেই অক্ষয় কুমার, রীতেশ দেশমুখের পাশাপাশি অভিনয় করতে দেখা যাবে ববি দেওলকে। কিন্তু ছবির পরিচালক সাজিদ খানকে দুই অভিনেত্রী এবং সাংবাদিকের উপর যৌন নির্যাতনের অভিযোগে ছবির শুটিং-এর মাঝপথেই বার করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় প্রযোজক সংস্থা। বাড়তি ঝামেলা চাননি তাঁরা।

পরিচালকের ভূমিকায় আসেন ফারহাদ সামঝি। পরিচালক বদলের ফলে ছবির উপর কি এর কোনও প্রভাব পড়েছে? সম্প্রতি এক দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ববি বলেন, “এক দিন শুটিং পিছিয়েছিল। #মিটুর জন্য শুটিং-এ কোনও ছেদ পড়েনি।”

ববি যোগ করেন , “কারও ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে আমার পক্ষে জানা সম্ভব নয়। যা যা অভিযোগ উঠে এসেছে তা যদি সত্যি হয়, তাহলে দোষীদের যথাযথ সাজা হওয়া উচিত। কিন্তু অনেক সময় শোনা যায় মেয়েরাও ছেলেদেরবিভিন্ন ভাবে অসুবিধের মধ্যে ফেলছেন। সেই কাহিনী গুলো প্রকাশ পায়না। আবার উল্টোটাও দেখা যায়। ”

আরও পড়ুন- অ্যাকাউন্টে ১৮ টাকা, ছিল না খাবার, জামাকাপড়ও: রাজকুমার রাও

 

আরও পড়ুন-ক্রিকেটার কে এল রাহুলের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন নিধি আগরওয়াল

 

#মিটু আন্দোলন নিয়ে তাঁর মত কী? ববি বললেন, “এখন সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে অনেকেই তাঁদের মতামত প্রকাশের সুযোগ পাচ্ছেন। তবে মানুষের উচিত তা দায়িত্ব নিয়ে প্রকাশ করা। মত প্রকাশের সুযোগ পাচ্ছেন বলেই তার অপব্যবহারও কাম্য নয়।” শুক্রবার হাউসফুল ৪ মুক্তি পাবে। আপাতত ববি-সহ টিমের বাকি অভিনেতারা সমস্ত বিতর্ককে দূরে সরিয়ে সিনেমার সাফল্যের দিকেই মন দিয়েছেন বেশি করে।