উইঙ্ক গার্ল প্রিয়া প্রকাশ বারিয়ারকে মনে আছে? এক বছর আগে ‘চোখ মেরে’ যিনি বিখ্যাত হয়েছিলেন, তিনিই ‘শ্রীদেবী বাংলো’ ছবির হাত ধরে বলিউডে পা রাখছেন। কিন্তু প্রিয়ার বলিউড ডেবিউ খুব একটা সহজ হচ্ছে না। কারণ ইতিমধ্যেই প্রযোজক বনি কপূর ওই ছবির নির্মাতাদের আইনি নোটিস পাঠিয়েছেন।

হঠাৎ বনির এমন আক্রোশ কেন? জানা গিয়েছে, ‘শ্রীদেবী বাংলো’র টিজারে একটি দৃশ্য আছে, যেখানে শ্রীদেবী, অর্থাৎ প্রিয়া প্রকাশের নিথর দেহ বাথটবে ভাসছে। দৃশ্যটা ভেবে বাস্তবের সঙ্গে কোনও মিল পেলেন? হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন, যে সময় ‘চোখ মেরে’ প্রিয়া বিখ্যাত হন, ঠিক সে সময় দুবাইয়ের এক হোটেলে উদ্ধার হয়েছিল শ্রীদেবীর মৃতদেহ। প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছিল বাথটবে ডুবে অস্বাভাবিক মৃত্যু। সেই মৃত্যু নিয়ে টালমাটাল হয়েছিল বলিউড-সহ গোটা ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি। সেই ঘটনার এক বছরের মাথায় ‘শ্রীদেবী বাংলো’র টিজার কি তবে বনি-পত্নীর মৃত্যুকে উস্কে দিচ্ছে? নেটিজেনরা এমন প্রশ্ন তুলছেন। পাশাপাশি, বনি কপূরও স্ত্রীর নাম ব্যবহার করে ছবি তৈরি এবং বাথটবে মৃত্যুর দৃশ্য চিত্রায়নের কারণ জানতে চেয়ে আইনি নোটিস ধরিয়েছেন ছবির পরিচালক প্রশান্ত মাম্বুলিকে।

সেই নোটিসের সত্যতা স্বীকার করে পরিচালক বলেছেন, “আমরা লড়ব। আমার ছবিটা সাসপেন্স থ্রিলার। ঘটনাচক্রে শ্রীদেবীজির সঙ্গে আমার ছবির মূল চরিত্রের মিল রয়েছে। কিন্তু শ্রীদেবী একটা কমন নাম। আমার চরিত্র ছবিতে এক জন সফল নায়িকা। তাই আমরা লড়ব।’’ যদিও এ বিষয়ে মুখ খোলেননি প্রিয়া প্রকাশ ও তাঁর পরিবার। বিতর্ক মেটাতে তাঁরা নির্মাতাদের উপরই ভরসা রাখছেন।

আরও পড়ুন, এই স্টারকিড বলিউডের এক খানের মেয়ে, চেনেন এঁকে?

(মুভি ট্রেলার থেকে টাটকা মুভি রিভিউ - রুপোলি পর্দার সব খবর জানতে পড়ুন আমাদের বিনোদন বিভাগ।)