• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘শক্তিমান’ সোনু সুদের উদ্যোগে বাড়ি ফিরছেন লকডাউনে আটকে পড়া বহু মানুষ

Sonu Sood
সোনু সুদের ফেসবুক থেকে নেওয়া ছবি।

করোনার লকডাউনে দেশের বেশির ভাগ মানুষ যখন ঘরবন্দি, তখন অনেককেই রাস্তায় নামতে হচ্ছে। কেউ ভিন্‌ রাজ্য থেকে পায়ে হেঁটে বা অন্য কোনও ভাবে ঘরে ফেরার চেষ্টা করছেন। আর কেউ আবার সেই সব আটকে পড়া মানুষদের সাহায্য করতে পথে নামছেন। নিজেদের সাধ্য মতো চেষ্টা করছেন এই পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে। এমনই একজন অভিনেতা সোনু সুদ

সোনু সুদ মুম্বইয়ে আটকে পড়া ভিন্‌ রাজ্যের কিছু মানুষকে ঘরে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছেন। বিষয়টা হঠাৎ করেই শুরু হয়। শুরু হয় টুইট দিয়ে। একাধিক ব্যক্তি সোনু সুদকে ট্যাগ করে টুইট করে জানান, তাঁরা মুম্বইয়ে আটকে পড়েছেন। তাঁদের বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করলে ভাল হয়।

এমনই একজন লেখেন, তাঁরা পাঁচ জন মু্ম্বই সেন্ট্রালের কাছে আটকে আছেন। বিহারের দ্বারভাঙ্গায় তাঁদের বাড়ি ফিরতে চান। সঙ্গে তাঁর ফোন নম্বরও পোস্ট করেন। শনিবার দুপুর ১২:৫৪ মিনিটে এই পোস্ট করেন বরকত আলি নামে ওই ব্যক্তি। আর সোনু সুদ সেই পোস্টের রিপ্লাই করেন ১:১২ মিনিটে।

আরও পড়ুন: ছবি এঁকে এই ইঁদুরের আয় প্রায় লাখ টাকা!

আরও পড়ুন:সাধারণ ওষুধের দোকানের সাইনবোর্ডে ‘ব্যতিক্রমের’ ছবি, প্রশংসায় নেটাগরিরা!

সোনু সুদ টুইটের রিপ্লাইয়ে জানান, পরশু তাঁরা বাড়ি পৌঁছে যাবেন। তাঁরা যেন জিনিসপত্র গুছিয়ে রাখেন।

সোনু সুদের টুইট:

এমন আরও কয়েক জনের টুইটের রিপ্লাই করেন সোনু সুদ। তিনি একাধিক বাসের ব্যবস্থা করেন মুম্বই থেকে তাঁদের বাড়ি ফেরার জন্য। এমনকি, নিজে দাঁড়িয়ে থেকে সেই সব ব্যবস্থা তদারকি করেন। সোনু সুদের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তার ভিডিয়ো আপলোড হয়েছে।

সোনু সুদের পোস্ট করা ভিডিয়ো:

সোনু সুদের সেই টুইট:

পরে এক ব্যক্তি ছবি টুইট করে জানান, তাঁরা বাড়ি ফিরছেন। সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একটি বাসের মধ্যে অনেকে রয়েছেন, বাসটি প্রায় ভর্তি। এই বাসটি বিহার যায়। সোনু সুদ সেই পোস্টেরও রিপ্লাই করেন।

দেখুন সেই পোস্ট:

সোনু সুদের এমন উদ্যোগের অকুণ্ঠ প্রশাংসা করেছেন নেটাগরিকরা। নেটাগরিকরা তাঁকে ‘সুপারহিরো’, ‘শক্তিমান’ ইত্যাদি নামে ডাকতে শুরু করেছেন। কোনও কোনও শিল্পী সোনু সুদের এই ভূমিকার ছবিও আঁকেন। পরে যা সোনু সুদ তাঁর ফেসবুক পেজে পোস্টও করেন সেই ছবি।

দেখুন সেই পোস্ট:

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন