Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Rani Rashmoni: রেটিং চার্টে পিছিয়ে ‘রাণী রাসমণি’, ‘রানিমা’র অনুপস্থিতি নেপথ্য কারণ?

রাসমণির মৃত্যুর পরেই আগের সপ্তাহে ‘সেরা পাঁচ’ থেকে ছিটকে গিয়েছিল ধারাবাহিকটি। চলতি সপ্তাহে সেটি পিছিয়ে নবম স্থানে।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৩ জুলাই ২০২১ ১২:৪৯
দর্শক কি দিতিপ্রিয়ার অনুপস্থিতি একেবারেই মেনে নিতে পারছে না? 

দর্শক কি দিতিপ্রিয়ার অনুপস্থিতি একেবারেই মেনে নিতে পারছে না? 

‘রানিমা’-র জীবদ্দশা শেষ। টানা চার বছর রাসমণিকে নিজের মধ্যে ধারণের পর জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘রাণী রাসমণি’ থেকে বিদায় নিয়েছেন দিতিপ্রিয়া রায়। পাশাপাশি, রানির সঙ্গে থাকা ভূপাল-সহ একাধিক চরিত্রও চিত্রনাট্যের খাতিরে সরে গিয়েছে। ধারাবাহিকের আগামী আকর্ষণ, গদাধরের শ্রী রামকৃষ্ণ হয়ে ওঠা। তাঁর জীবনে মা সারদার উপস্থিতি। আপাতত ইতিহাস মেনে পর্দায় তারই প্রস্তুতি পর্ব দেখানো হচ্ছে। তাতে যেমন ধারাবাহিকের মোড় আবারও ঘুরতে চলেছে তেমনি ঘটেছে একটি অঘটন। রাসমণির মৃত্যুর পরেই আগের সপ্তাহে ‘সেরা পাঁচ’ থেকে ছিটকে গিয়েছিল ধারাবাহিকটি। চলতি সপ্তাহে সেটি পিছিয়ে নবম স্থানে।


কেন এই পিছিয়ে পড়া? দর্শক কি দিতিপ্রিয়ার অনুপস্থিতি একেবারেই মেনে নিতে পারছে না?


ছোট পর্দার ‘রানিমা’ আপাতত ব্যস্ত বড় পর্দা নিয়ে। একাধিক ছবি তাঁর হাতে। সেই বৈঠকে ব্যস্ত থাকায় তিনি কথা বলতে পারেননি আনন্দবাজার অনলাইনের সঙ্গে। বদলে বিষয়টির উপর আলোকপাত করেছেন ধারাবাহিকের কার্যনির্বাহী প্রযোজক অনির্বাণ মুখোপাধ্যায়। তিনি স্পষ্ট জানিয়েছেন, ‘‘গত চার বছর ধরে একটি মেয়ে ছোট থেকে বড় হয়েছে এই ধারাবাহিকের ছত্রছায়ায়। পাশাপাশি, রানিমার প্রতিটি ধাপ নিখুঁত ভাবে ফুটিয়ে তুলেছে পর্দায়। এই ধারাবাহিক যেমন দিতিপ্রিয়ার অভিনয়ে সমৃদ্ধ তেমনই ধারাবাহিক তাঁকে অজস্র অনুরাগী উপহার দিয়েছে। দর্শক তাই দিতিপ্রিয়ার অভাব অনুভব করছেন।’’

Advertisement


সন্দীপ্তা পূরণ করতে পারবেন দিতিপ্রিয়ার অভাব?

সন্দীপ্তা পূরণ করতে পারবেন দিতিপ্রিয়ার অভাব?


অনির্বাণের যুক্তি, রানিমা নেই মানে একটা বড় অধ্যায় শেষ। পরবর্তী অধ্যায়ে থাকবে শ্রী রামকৃষ্ণ, তাঁর লীলা এবং মা সারদার উপস্থিতি। সেই পর্বের প্রস্তুতি চলছে। ইতিহাস মেনে সাধক তোতাপুরী, যোগিনীর কাছে গদাধরের দীক্ষা, সাধনার মতো নানা দিক দেখা হচ্ছে। তাঁর মতে, এই পর্ব অনেকটাই তথ্য নির্ভর। রানিমার জীবনের মতো ততটাও ঘটনাবহুল নয়। সম্ভবত সেই কারণেই দর্শকেরা ধারাবাহিকের থেকে সাময়িক মুখ ফিরিয়েছেন। অনির্বাণের আরও দাবি, ‘মা সারদা’ ওরফে সন্দীপ্তা সেন ধারাবাহিকে পা রাখলেই এই শূন্যতা পূরণ হবে।

তা হলে কি সন্দীপ্তা দিতিপ্রিয়ার বিকল্প? অনির্বাণের দাবি, সন্দীপ্তা সেন ছোট-বড় পর্দা, ওয়েব সিরিজ মিলিয়ে যথেষ্ট জনপ্রিয়। তাঁর অভিনয় দর্শকদের বসিয়ে রাখে। তাই তাঁর আশা, সাময়িক খরা কাটিয়ে খুব শীঘ্রই ফের জনপ্রিয়তায় ভাসতে চলেছে ‘রাণী রাসমণি’।


আনন্দবাজার অনলাইন যোগাযোগ করেছিল সন্দীপ্তার সঙ্গে। ‘মা সারদা’ নলবনে শ্যুটে ব্যস্ত। তাঁর প্রতি টিম ‘রাণী রাসমণি’-র এই আস্থার কথা শুনে অভিনেত্রী জানান, ‘‘আমার প্রতি আস্থা আত্মবিশ্বাস বাড়াচ্ছে। যে কোনও চরিত্রকেই রক্ত-মাংসের করে তুলতে আমি ১০০ শতাংশ নিংড়ে দিই। এখানেও তার ব্যতিক্রম হবে না। বাকিটা দর্শকেরা বলবেন।’’ আস্থা, ভরসা কি আগাম বাড়তি চাপ তৈরি করে দিচ্ছে? মনোবিজ্ঞান নিয়ে পড়াশোনা করা সন্দীপ্তার মতে, বাড়তি চাপ, অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা ভাল কম, খারাপ করে বেশি। তাই বরাবরই তিনি চাপমুক্ত থেকে অভিনয়ে বিশ্বাসী।

আরও পড়ুন

Advertisement