Advertisement
০৩ অক্টোবর ২০২২
Deepak Tijori

Dipak Tijori: বাবা মরে গেল! ‘গুলাম’-এর ট্রেনের দৃশ্যে দীপককে দেখে কেঁদে ভাসায় তাঁর ছোট্ট মেয়ে

‘গুলাম’-এর সেই গায়ে কাঁটা দেওয়া দৃশ্য! ছুটন্ত ট্রেনের দিকে দৌড়চ্ছেন আমির খান ও দীপক তিজোরি। দেখে ভয়ে কেঁদে ফেলে দীপকের মেয়ে সামারা।

ছুটন্ত ট্রেনের মুখোমুখি দৌড়েছিলেন দীপকও।

ছুটন্ত ট্রেনের মুখোমুখি দৌড়েছিলেন দীপকও।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ১৫ জুন ২০২২ ১৮:১৯
Share: Save:

রাতের অন্ধকারে তীব্র গতিতে ছুটে আসছে ট্রেন। রেল লাইন ধরে তার দিকে প্রাণপণ ছুটছেন আমির খান এবং দীপক তিজোরি। লাইনেই পড়ে থাকা রুমাল কে আগে তুলে নিতে পারে! ট্রেন এসে ধাক্কা দেওয়ার এক পলক আগের মুহূর্তে রুমাল কুড়িয়ে ছিটকে সরে গেলেন আমির। অন্য পাশে দীপকও। ‘গুলাম’ ছবির এ দৃশ্য দেখে শিউরে উঠেছিল গোটা দেশ! কিন্তু জানেন কি, পর্দার সেই দৃশ্য ঠিক কতটা ভয় পাইয়েছিল তাঁদের পরিবারকেও?

১৯৯৮ সালের ছবি ‘গুলাম’। দীপকের মেয়ে সামারা তিজোরি তখন বছর ছয়েকের ছোট্ট মেয়ে। বাড়ির টেলিভিশনে ছবিটা চলছে। ট্রেনের দৃশ্য দেখে ভয়ে কেঁপে উঠেছিল ছোট্ট মেয়ে। হাউহাউ করে কেঁদে উঠেছিল তার পর। তার ধারণা হয়েছিল, বাবা মরে গিয়েছে! দীপক তখন ছিলেন বাড়িতেই। তবে অন্য ঘরে। একরত্তি মেয়েকে সে কথা বোঝায়, কার সাধ্য!

সে দিনের ছোট্ট সামারা এখন বছর তিরিশের তরুণী। মুম্বই সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দীপক-কন্যা বলেন, ‘‘খুব ছোট ছিলাম তখন। পর্দায় যা দেখছি, তা যে সত্যি নয়, বুঝব কী করে? আর দৃশ্যটাও এত নিখুঁত ভাবে শ্যুট করা হয়েছিল যে মনে হয় পুরোটাই বাস্তবে ঘটছে। আমি ধরেই নিয়েছিলাম, বাবা ওই খানেই মরে গেল। একেবারে হাউমাউ করে কান্না জুড়ে দিয়েছিলাম। অথচ বাবা তখন বাড়িতেই!’’

সামারা নিজেও এখন অভিনেত্রী। কিছু দিনের মধ্যেই ডিজনি হটস্টারের নতুন সিরিজ ‘মাসুম’-এ দেখা যাবে তাঁকে। মিহির দেশাইয়ের পরিচালনায় এই সিরিজটিতে রয়েছেন বোমান ইরানি।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তেফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.