×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২০ জুন ২০২১ ই-পেপার

Covid Help: নিজের গ্রামের বাড়িতে ‘সেফ হোম’ বানালেন টলিউডের পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়

নিজস্ব সংবাদদাতা
লাভপুর ১৬ মে ২০২১ ২১:৪৪
অনিকেত চট্টোপাধ্যায়

অনিকেত চট্টোপাধ্যায়

লাভপুরের প্রত্যন্ত গ্রামে ‘সেফ হোম’-এর ব্যবস্থা করলেন চিত্র পরিচালক অনিকেত চট্টোপাধ্যায়। তিনি একা নন। তাঁর সঙ্গে হাত মিলিয়েছেন লাভপুর বিধানসভার নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়ক অভিজিৎ সিংহ। লাভপুর বিধানসভার ইন্দাস গ্রাম পঞ্চায়েতের চাতরায় তাঁর নিজের বাড়ি রয়েছে। সেই এলাকা এবং আশেপাশের গ্রামবাসীর করোনার চিকিৎসাও করা হবে সেখানে।

রবিবার অনিকেত নিজে সেই এলাকায় উপস্থিত ছিলেন। ১৫টি গ্রামের বাসিন্দাদের হাতে মাস্ক, স্যানিটাইজার-সহ প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র তুলে দিলেন এলাকার বিধায়ক অভিজিৎ এবং অনিকেত।

Advertisement
বাগান বাড়ির একটা অংশ

বাগান বাড়ির একটা অংশ
নিজস্ব চিত্র


লাভপুরের চাতরায় ১৫ বিঘা জমিতে নিজের একটি বাগানবাড়ি বানিয়েছেন অনিকেত। সেই বাড়িই উৎসর্গ করলেন সাধারণ মানুষকে। করোনার কঠিন সময়ে শহরের মানুষ চিকিৎসা পরিষেবা পেলেও গ্রামের মানুষ সে ভাবে চিকিৎসা না পাওয়ার বিষয়টি তাঁকে ভাবিয়ে তোলে। তাই এই সিদ্ধান্ত ‘কবীর’, ‘বাই বাই ব্যাংকক’, ‘গোড়ায় গন্ডগোল’ খ্যাত পরিচালকের। যে সমস্ত মানুষ ছোট বাড়িতে থাকেন, করোনায় আক্রান্ত হলে নিভৃতবাসে থাকার উপায় নেই, তাঁরা ‘সেফ হোম’-এর সুবিধা পাবেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। পাবেন চিকিৎসা এবং খাবারও।

সেফ হোমের ব্যবস্থা

সেফ হোমের ব্যবস্থা
নিজস্ব চিত্র


অনিকেত বললেন, ‘‘কাজের চাপ থেকে মুক্তি পেতেই মাঝে মাঝে এই গ্রামে যাওয়া আসা হয়। সেই সুবাদে গ্রামের মানুষের সঙ্গে আত্মীয়তা তৈরি হয়ে গিয়েছে। অতিমারি পরিস্থিতিতে গ্রামের মানুষ সে ভাবে চিকিৎসা পরিষেবা পাচ্ছেন না। তাই তাঁদের কথা ভেবে করোনার ন্যূনতম চিকিৎসা ব্যবস্থার পাশাপাশি সেফ হোম করা হয়েছে। যেখানে মানুষ করোনার ওষুধপত্র, অক্সিজেন ও খাওয়া-দাওয়া পাবেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। বিধায়ক অভিজিৎ সিংহ যে ভাবে এক ডাকে সাড়া দিয়েছেন, আমি তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ।’’

চিকিৎসার পরিষেবা পাওয়ায় খুশি গ্রামের মানুষ। গ্রামে স্বাস্থ্যকেন্দ্র না থাকায় অসুস্থ হলেই চিকিৎসার জন্য বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ছুটতে হতো তাঁদের। সেই পরিস্থিতির থেকে মুক্তির পথ দেখতে পেয়ে আপ্লুত তাঁরা।

Advertisement