Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

১৯ দিনের শিশুর জন্য অর্থ সাহায্য চেয়ে ট্রোলড রাজ, নেটাগরিকদের তোপ ‘নিজেই সাহায্য করতে পারতেন’

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০১ মে ২০২১ ১৩:৫৩
রাজ চক্রবর্তী।

রাজ চক্রবর্তী।

৮ দফার নির্বাচন শেষ। ব্যক্তিগত যোগাযোগ নম্বর বিতর্ক কিন্তু এখনও জারি। পারস্পরিক চাপানউতর, দোষারোপের পালাও থামেনি। শনিবার সকালে রাজ চক্রবর্তীর একটি পোস্ট করেন।এই পোস্ট ঘিরে ফের নতুন করে বিতর্ক শুরু নেটমাধ্যমে।

পোস্টে কী লিখেছেন রাজ? শেয়ার হওয়া বার্তা বলছে, একটি ১৯ দিনের শিশুর জন্য আর্থিক সাহায্য চেয়েছেন ব্যারাকপুরের প্রার্থী। জানিয়েছেন, ‘চিকিৎসকদের মতে, নবজাতকের হৃদযন্ত্রে জটিল সমস্যা আছে। সন্তানকে নিয়ে অসহায় মা-বাবা উদভ্রান্তের মতো পথে পথে ঘুরছিলেন। খবর পেয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের সাহায্য নিয়ে শিশুটিকে হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করার ব্যবস্থা করতে পেরেছি।’ ওই বেসরকারি হাসপাতালের প্রতি দিনের খরচ দুঃস্থ দম্পতির পক্ষে বহন করা অসম্ভব। তাই তাঁদের আর্থিক সাহায্যের অনুরোধ জানিয়ে ওঁদের পাশে সবাইকে দাঁড়ানোর অনুরোধও জানান তিনি। রাজ শেয়ার করেন ৩টি যোগাযোগ নম্বর।

সঙ্গে সঙ্গে নেটাগরিকেরা ইনস্টাগ্রামে তুলোধোনা করে ছেড়েছেন পরিচালককে। কী তাঁদের বক্তব্য? কেউ লিখেছেন, ‘লজ্জা করে না আপনার এই ছোট্ট শিশুটার জন্য আর্থিক সাহায্য চাইতে! ভোট ভিক্ষা করার সময় মানুষের হয়ে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। রাজনীতিতে আসেন কেন আপনারা? নিজের পকেট ভরতে?’ আরেক নেটাগরিকের কটাক্ষ, ‘আপনার তো লাখ লাখ টাকা। বিএমডব্লিউ, অডি চড়ে ঘুরে বেড়ান। পারছেন না চিকিৎসার খরচা দিতে?’ তিনি ‘রাজ’পুত্র ইউভানকে নিয়েও তোপ দাগেন। প্রশ্ন তোলেন, ছেলের জন্য লাখ লাখ টাকা যে বাবা খরচ করতে পারেন তিনি কেন সন্তানতুল্য আর এক শিশুর চিকিৎসার খরচ বহন করবেন না?

Advertisement

শাসকদলের স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প নিয়েও মন্তব্য জনৈক নেটাগরিকের, ‘আপনি যে দলের প্রার্থী হয়েছেন মানুষের জন্য কাজ করার তাড়নায়, সেই দলের সরকার ভোটের আগে অত ঢাকঢোল পিটিয়ে সাধারণ মানুষদের নিখরচায় চিকিৎসার জন্য যে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প আনল তা হলে কি সেটা ভাঁওতা? এখন জনতার কাছে সাহায্য চাইতে পাঠাচ্ছেন কেন?’

ইনস্টাগ্রামে কারওর কোনও মন্তব্যেরই উত্তর দেননি রাজ। তবে ফেসবুকে ওই পোস্টের সঙ্গে আরও একটি ছোট্ট পোস্ট জুড়ে দিয়েছেন। সেখানে নিজের ব্যক্তিগত যোগাযোগ নম্বর দিয়ে রাজের স্পষ্ট বক্তব্য, ‘এই সময়ে দাঁড়িয়ে কে কতটা করলাম সেই হিসেব নাই বা ভাবলাম। একা যতটা করা যায়, সকলে মিলে তার থেকে অনেক বেশি করা সম্ভব৷ আরও অনেক মানুষের পাশে দাঁড়ানো সম্ভব। তাই আমার অনুরোধ, দলমত নির্বিশেষে একে অপরের পাশে থাকুন৷ সকলে সুস্থ থাকুন। ভাল থাকুন ও ভাল রাখুন৷’

শাসকদলের প্রার্থীর আরও দাবি, এরপরেও যদি মনে হয় ১৫ বছর ইন্ডাস্ট্রিতে থেকে রাজ চক্রবর্তী কী করেছে এই শিশুর জন্যে, তা'হলে সেই হিসেবের জায়গা সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়। ৮৩৩৪৯-৮১১১১, এই নম্বরে যোগাযোগ করবেন। কথা হবে।’

আরও পড়ুন

Advertisement