Advertisement
০১ এপ্রিল ২০২৩

‘একলা মেয়ের লড়াই খুব কঠিন, একা মেয়ে মানেই লোকে আড়চোখে দেখে’

পুরস্কার শিল্পীর খিদে বাড়িয়ে তোলে। অকপট ইমন চক্রবর্তীজাতীয় পুরস্কারের নাম ঘোষণার পর হোয়াটস্অ্যাপে ছবি বদলালেন। বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি। এত দিন ছিল শুধু ইমনের একার ছবি। পুরস্কার কি তবে বয়ফ্রেন্ড শোভনকেই উৎসর্গ করছেন?

স্রবন্তী বন্দ্যোপাধ্যায়
শেষ আপডেট: ১০ এপ্রিল ২০১৭ ০২:০৪
Share: Save:

জাতীয় পুরস্কারের নাম ঘোষণার পর হোয়াটস্অ্যাপে ছবি বদলালেন। বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি। এত দিন ছিল শুধু ইমনের একার ছবি।

Advertisement

পুরস্কার কি তবে বয়ফ্রেন্ড শোভনকেই উৎসর্গ করছেন?

‘‘সব বাঙালির জন্যই এই পুরস্কার। আমার জাতীয় পুরস্কারে শোভন খুবই খুশি। কিন্তু ওর একটু হিংসেও হয়েছে। সেটা ও বলেও দিয়েছে। ও যখন অপর্ণা সেনের ছবিতে গান গাইল, আমারও হিংসে হয়েছিল। ও সব আমাদের হয়, আবার বলেও দিই। তার পর পার্টি করি। আমার থেকে তিন বছরের ছোট ও। কিন্তু আমার চেয়ে বেশি ভাল গায়,’’ বললেন ইমন। হয়তো চব্বিশ ঘণ্টাই শোভনের সঙ্গে আছেন। কিন্তু বিয়ে নিয়ে কথা উঠলেই বলেন, ‘‘বিয়ের কী দরকার! শোভনের সঙ্গেই তো বাংলাদেশ, আমেরিকা যাচ্ছি। এই তো ভাল!’’

শোভনের দেওয়া শাড়ি পরেই পুরস্কার নেবেন বলে ঠিক করেছেন। ৭ মার্চ পুরস্কার ঘোষণার পর প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা, ঊষা উত্থুপ থেকে জয়-লোপামুদ্রা... শুভেচ্ছায় ভরে গিয়েছে তাঁর দিন। কেউ টুইট করেছেন, কেউ ফোন। পেয়েছেন ‘প্রাক্তন’-এর পরিচালক নন্দিতা রায়ের অভিনন্দন। কিন্তু সবচেয়ে মিস করেছেন মা-কে।

Advertisement

আর শিবপ্রসাদ? ‘‘শিবুদা বলেছে পার্টি না দিলে আমার ফোন তুলবে না,’’ উত্তেজিত ইমন! তবে ‘প্রাক্তন’-এর প্রযোজক অতনু রায়চৌধুরী নাকি বলেছেন, খুব শিগগিরই তিনি মিডিয়াকে জানিয়ে দেবেন, জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত গায়িকা ইমন চক্রবর্তীর সঙ্গে তাঁর আড়ি। ‘‘আসলে সে দিন এত ফোন এসেছে যে, অতনুদাকে আর ফোন করা হয়নি,’’ আড়ষ্ট ইমন।

ভাবতেও পারেননি লিলুয়ার অজগাঁয়ের সেই মেয়ে গলার জোরে এত দূর আসবেন! ‘‘একলা মেয়ের লড়াই খুব কঠিন। একা মেয়ে মানেই লোকে আড়চোখে দেখে! সহজেই তাঁর গায়ে চরিত্রের কালো দাগ খুঁজে বের করতে ব্যস্ত হয় সমাজ…,’’ ইমনের গলায় ঝড়।

সুন্দর দেখতে বলেই কি এক গানেতে স্টার?

‘‘নিজেকে অ্যাট্রাক্টিভ করে রাখার মধ্যে খারাপ কিছু নেই। আজকের দর্শক বোকা নয়। যে যত সুন্দরই হোক, গান ভাল না গাইলে দর্শক স্টেজ থেকে নামিয়ে দেবেন,’’ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বললেন ইমন।

শুধু নিজের গান নয়। একটা প্রোডাকশনের জায়গা থেকে গানকে দেখছেন তিনি। তাই নিজের গানের অ্যালবাম না করে সিনিয়রদের সঙ্গে নিয়ে পুজোর অ্যালবামের কাজ শুরু করেছেন। ‘‘আমি ভাবতেই পারিনি। রূপঙ্করদা, রাঘবদা, লোপাদি আমার সঙ্গে কাজ করতে রাজি হবেন,’’ বিস্মিত ইমন! পুজোয় অ্যালবাম রিলিজ করলেও গানের ভিডিয়ো আগেই ইউটিউবে দেখা যাবে। অ্যালবামে ইমন গাইছেন ‘বিপুল তরঙ্গ রে’। সেই গানের রাগে ভীমপলশ্রীর অন্য বন্দিশ গেয়েছেন রূপঙ্কর। লালনের গানের সঙ্গে থাকবে রবীন্দ্রনাথের গান। লোপামুদ্রা আর ইমন এই অ্যালবামে ডুয়েট গেয়েছেন। অ্যালবামের নাম ভাবছেন ‘রং মিলান্তি’। প্রত্যুষ বন্দ্যোপাধ্যায় ‘রং মিলান্তি’র সুরের দায়িত্বে।

ডিজিটাল মাধ্যমেও মিউজিকের নানা দরজা খুলে যাচ্ছে বলে বিশ্বাস করেন ইমন। তবে একটা গানে যে কখনওই স্টার হওয়া যায় না, সেটা অকপটে স্বীকার করলেন। ‘‘শিল্পীর জীবনে পুরস্কার শেষ কথা নয়। ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড দিয়েই কেবল মাত্র গানের গুণমান বিচার হয় না। এটা একটা স্বীকৃতি মাত্র। ‘তুমি যাকে ভালবাস’র চেয়ে ভাল অনেক গান আছে যা পুরস্কার পায়নি। তার মানে সেটা কি খারাপ গান?’’ প্রশ্ন রাখলেন ইমন। জানেন, অনুপম রায় বা তিনি প্রত্যেক বারই যে ‘তুমি যাকে ভালবাস’-র মতোই গান দিতে পারবেন তাও নয়। ‘‘তবে পুরস্কার ভাল কাজের খিদে বাড়ায়,’’ বললেন ইমন। পুরস্কার পেলেও তাঁর মাটিতেই পা। সামনে অরিন্দম শীলের ‘দুর্গা সহায়’ ছবিতেও তিমিরের সঙ্গে কোলাজ করে গান গেয়েছেন। ফিল্মের গান সম্মান এনে দিলেও বেসিক গানেই মন দিতে চান। মনে করেন, ‘‘আজও সবচেয়ে সেলেবল রবীন্দ্রনাথের গান।’’

জীবনের প্রত্যেকটা খারাপ থাকা জয় করে এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি। একটাই মন্ত্র মাইক্রোফোনের সামনে, ‘ইউ হ্যাভ টু বি বেস্ট!’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.