• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘আমি ড্রাগ অ্যাডিক্ট ছিলাম’, কঙ্গনার পুরনো ভিডিয়ো ঘিরে হইচই

kangana ranaut
কঙ্গনা রানাউত।

মাদক কাণ্ডে উত্তাল মুম্বই নগরী। রিয়া-শৌভিকের পর এ বার নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর নজরে রিয়ার বয়ানে উল্লিখিত ২৫ জন বলিসেলেব। এ সব ডামাডোলের মধ্যে হঠাৎই ভাইরাল, অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের একটি পুরনো ভিডিয়ো। যে ভিডিয়োতে কঙ্গনাকে প্রকাশ্যেই বলতে শোনা যাচ্ছে, কেরিয়ারের শুরুতে মাদক সেবনের কথা, মাদকাসক্ত হওয়ার কথা।

কঙ্গনার ইনস্টাগ্রামে এ বছরের মার্চ নাগাদ পোস্ট করা হয়েছিল ভিডিয়োটি।  ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, মানালির বাড়িতে বসে কঙ্গনা বলছেন, “ছোটবেলাতেই বাড়ি থেকে পালিয়ে চলে এসেছিলাম। এর কয়েক বছরের মধ্যেই আমি ফিল্মস্টার হই। একই সঙ্গে হয়ে উঠি মাদকাসক্তও।” তখন সদ্য কেরিয়ার শুরু, মিলছে খ্যাতি কিন্তু ব্যক্তিগত জীবনে ঝড়, জানান কঙ্গনা। তাঁর কথায়, “জীবনকে কেন্দ্র করে অনেক কিছু হচ্ছিল। অদ্ভুত সব মানুষ জীবনের সঙ্গে জুড়ে গিয়েছিল হঠাৎই। আমার তখন ১৮-ও হয়নি। টিনএজার ছিলাম’।

আরও পড়ুন: মাদক তদন্তে রিয়ার মুখে নাম সারাদেরও

ভিডিয়োটি ভাইরাল হতেই নেটাগরিকদের একাংশের প্রশ্ন, সুশান্ত কাণ্ডে মাদক যোগ নিয়ে যে কঙ্গনা প্রথম থেকেই সরব, যে কঙ্গনা প্রকাশ্যে বলেছিলেন বলিসেলেবদের প্রায় ৯৯ শতাংশই মাদক নেন, সেই কঙ্গনা নিজেও ব্যতিক্রমী নন? এরই মধ্যে আবার ২০১৬ সালে কঙ্গনার প্রাক্তন প্রেমিক অধ্যয়ন সুমনের দেওয়া সাক্ষাৎকার আগুনে ঘি ঢেলেছে। প্রায় চার বছর আগে অধ্যয়ন এক সংবাদমাধ্যমে দাবি করেছিলেন কঙ্গনা নাকি তাঁর জন্মদিনের পার্টিতে অধ্যয়নকে কোকেন নেওয়ার জন্য জোর করেছিলেন। অধ্যয়ন তা অস্বীকার করায় কঙ্গনার সঙ্গে তাঁর ভীষণ ঝামেলা হয়। অধ্যয়ন বলেছিলেন, “২০০৮ সালে কঙ্গনা তাঁর জন্মদিনে ‘দ্য লীলা’তে কাছের মানুষদের আমন্ত্রণ জানায়। আমায় হঠাৎ করেই ও বলে ‘চল আজ সারারাত কোকেন নিই’। এর আগে আমি কঙ্গনার সঙ্গে গাঁজা খেয়েছি। আমার ভাল লাগেনি। আমি না বলি। এর পরেই কঙ্গনা রেগে যায়। আমাদের মধ্যে বিশ্রী ঝামেলা শুরু হয়।”

দেখুন সেই ভিডিয়ো 

 

যদিও দিন কয়েক আগে কঙ্গনা তাঁর ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে মুম্বই পুলিশকে ট্যাগ করে লেখেন, “দয়া করে আমার ড্রাগ টেস্ট করুন। আমার কল রেকর্ডও চেক করতে পারেন। যদি কোনও মাদক পাচারকারীর সঙ্গে আমার যোগাযোগ প্রমাণ করতে পারেন অথবা খুঁজে পান তবে আমি আমার ভুল স্বীকার করব এবং সারাজীবনের জন্য মুম্বই ছেড়ে দেব।”

কঙ্গনার টুইট 

অন্য দিকে মুম্বই পুলিশ সূত্রে খবর, মাদক যোগে তদন্ত শুরু হতে চলেছে বলিউডের অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে। মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ শুক্রবার বিধানসভায় বলেন, কঙ্গনার প্রাক্তন প্রেমিক অধ্যয়ন সুমন সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন— ‘‘২০১৬ সালে একটি পার্টিতে অভিনেত্রী নিজে কোকেন নিয়েছেন, তাঁকেও নেশা করার জন্য পীড়াপীড়ি করেছেন। এর তদন্ত হবে।’’ এর পরেই মহারাষ্ট্র সরকার চিঠি দিয়ে বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেয় মুম্বই পুলিশকে। পুলিশ সূত্রে খবর, নির্দেশ মেনে তারা অচিরেই তদন্ত শুরু করবে। তলব করা হতে পারে কঙ্গনা ও অধ্যয়নকে ।

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন