×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৩ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

‘তাণ্ডব’ নির্মাতাদের মাথা কাটার হুমকি! কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করার দাবি নেটাগরিকদের

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২০ জানুয়ারি ২০২১ ১৮:৫৫
কঙ্গনা রানাউত

কঙ্গনা রানাউত

‘তাণ্ডব’ নির্মাতাদের মাথা কেটে দেওয়ার হুমকি দিলেন কঙ্গনা রানাউত। হিংসায় উস্কানি দেওয়ার অভিযোগে তাঁর অ্যাকাউন্ট বাতিল করে দেওয়ার একাধিক অভিযোগ জমা পড়ল টুইটার কর্তৃপক্ষর কাছে। সাময়িক ভাবে কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করার দাবি ওঠে। কিন্তু তাতেও থেমে থাকেননি কঙ্গনা রানাউত। ফের টুইট করে ‘বাঁচা মুশকিল করে দেব’ বলে হুমকি দিতে ছাড়লেন না ‘লিবারাল’-দের।

১৫ জানুয়ারি অ্যামাজন প্রাইমে ‘তাণ্ডব’ ওয়েব সিরিজটি মুক্তি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তোলপাড় গোটা দেশ। ‘উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে হিন্দু দেবদেবীকে অপমান’ করার অভিযোগে বিরাট অংশের দেশবাসী ওয়েব সিরিজটি বয়কটের দাবি তোলেন। তার জল গড়ায় বহু দূর। যোগী পুলিশ ইতিমধ্যে মুম্বই পৌঁছে গিয়েছে এই বিষয়ে তদন্ত করার জন্য। পরিচালক আলি আব্বাস জফর সমস্ত কলাকুশলীদের হয়ে ক্ষমা চাওয়ার পরেও বিতর্ক থামেনি।

এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত দু’দিন আগে একটি টুইট করেন। যেখানে ওয়েব সিরিজের সমস্ত কলাকুশলীদের ‘মাথা কেটে দেওয়া হোক’ বলে হুংকার ছাড়েন। ক্ষুব্ধ নেটাগরিকরা টুইটার কর্তৃপক্ষকে উদ্দেশ্য করে আর্জি জানান, যেন কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করে দেওয়া হয়। দাবি তোলা হয়, তিনি হিংসার উদ্রেক ঘটাচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। এমনকি টুইটারে ট্রেন্ড হয়, ‘সাসপেন্ড কঙ্গনা রানাউত’। রানাউত তার পর সেই টুইটটি সরিয়ে দেন তাঁর প্রোফাইল থেকে।

Advertisement

বুধবার কঙ্গনা রানাউত নিজেই টুইট করে সে কথা জানান। অভিনেত্রীর দাবি, ‘দেশদ্রোহীরা তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করানোর জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। ওরা যদি এটায় সফল হয়, তবে আমি বলে দিচ্ছি, ভার্চুয়াল দুনিয়া থেকে সরে গেলেও বাস্তব জীবনে আসল কঙ্গনার সঙ্গে সাক্ষাৎ হবে সকলের। আমি ওই সব বাবাগুলোর মা!’ হ্যাশট্যাগে লেখা ‘বব্বর শেরনী’।

শেষ মেশ কঙ্গনার ‘তাণ্ডব’-এর জল কত দূর গড়াবে, সেই প্রশ্নের উত্তর পেতে বসে রয়েছেন গোটা দেশের নেটাগরিকরা।


Advertisement