কিথ থমাস। জন্ম এবং বড় হওয়া আটলান্টায়। গান লেখা তাঁর নেশা। পেশাও বটে। তিনি প্রোডিউসারও। আর এ সবই তাঁর ঝুলিতে এনে দিয়েছে গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ড। সদ্য ভারতে এসেছিলেন কিথ। সঙ্গী প্রযোজক মার্কাস রিক্সন। কিথ-মার্কাস জুটি। ১২ জন শিল্পীকে নিয়ে দু’সপ্তাহ ধরে প্রায় ৪০টি গান রেকর্ড করলেন তাঁরা।

কিথ-মার্কাসের টিমে জায়গা করে নিয়েছিলেন সোমচন্দা ভট্টাচার্য, অন্বেষা দত্ত, সায়ন চৌধুরী, অরুণাশিস রায়, মনীষা কর্মকার, রিক বসু, শুভম বন্দ্যোপাধ্যায়, অরিত্র বন্দ্যোপাধ্যায়, পোর্সিয়া সেন— প্রমুখ। এঁরা প্রত্যেকেই কোনও না কোনও রিয়্যালিটি শো-এ পারফর্ম করেছেন।

হঠাত্ করেই এই শিল্পীদের কেন বেছে নিলেন? কিথ বললেন, ‘‘আসলে যে সব শিল্পীর পরিচিতি রয়েছে, তাঁদের তো পায়ের তলার মাটি শক্ত। আমরা নতুনদের খুঁজতে চেয়েছি। যাঁদের ট্যালেন্ট কিন্তু প্রতিষ্ঠিতদের তুলনায় কোনও অংশে কম নয়।’’ মার্কাসের কথায়: ‘‘আমি মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে শুরু করার সময় থেকেই সব সময়েই স্থানীয় শিল্পীদের খুঁজতে চেষ্টা করেছি। কলকাতাতেও আমার সেই খোঁজেই আসা। সত্যি বলতে কি, এরা এত ভাল গেয়েছে— আমি খুব খুশি। আর কিথকে সঙ্গে পাওয়া তো উপরি পাওনা। এই পার্টনারশিপটা চলুক, আমি চাইব।’’

আরও পড়ুন, কোন সম্পর্ক ‘শেষ থেকে শুরু’ করতে চান ঋতাভরী?

ভারতীয় সঙ্গীতের ইতিহাস যেন রত্নখনি। তার সম্পর্কে কতটা ধারণা রয়েছে কিথের? জবাব দিলেন, ‘‘ভারতীয় সঙ্গীত বলতে, প্রথমেই শুনে মনে হয়েছিল, এমন একটা সাউন্ড যেটা আনন্দ দেয়। কলকাতায় এসে বহু মানুষের সঙ্গে আলাপ হল। তাঁদের কাছ থেকে আরও বেশি করে জানছি, শুনছি। আমার শ্রদ্ধা বেড়ে যাচ্ছে, এটুকু বলতে পারি।’’

আরও পড়ুন, ৫০ বছর পর কেমন আছে সত্যজিতের ফেলুদা?

কিথ জানালেন, যে নতুন শিল্পীদের নিয়ে তিনি কাজ করলেন, তাঁদের শেখার খিদে দেখে মুগ্ধ তিনি। এই প্রজেক্টের পর ভারত-মার্কিন সাঙ্গীতিক বোঝাপড়া আরও সুন্দর হবে বলে মনে করেন কিথ।

(টলিউডের প্রেম, টলিউডের বক্স অফিস, বাংলা সিরিয়ালের মা-বউমার তরজা -বিনোদনের সব খবর আমাদের বিনোদন বিভাগে। )

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।