×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

রণবীর-কঙ্কনা এ বার বিবাহ বিচ্ছেদের পথে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ১৩:৫১
রণবীর-কঙ্কনা। ছবি: ফাইল চিত্র।

রণবীর-কঙ্কনা। ছবি: ফাইল চিত্র।

সম্পর্কে চিড় ধরেছিল ২০১৫-য়। তার পর থেকে দু’জনে আলাদাই থাকতেন। এ বার প্রকাশ্যে এল রণবীর শোরে এবং কঙ্কনা সেনশর্মার বিচ্ছেদ প্রক্রিয়া শুরুর খবর। সম্প্রতি আদালতে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা দায়ের করেন রণবীর-কঙ্কনা।

২০১৫ সালে ‘তিতলি’-ছবির ট্রেলর লঞ্চের সময় রণবীর জানিয়েছিলেন যে,কঙ্কনা আর তাঁর মধ্যেকার সম্পর্কে ইতি ঘটেছে। সম্পর্কে অবনতির জন্য সেই সময় রণবীর নিজেকেই দায়ী করেন। বেশ কয়েক বছর ধরে আলাদা থাকলেও অবশেষে তাঁদের বিচ্ছেদে আইনি সিলমোহর পড়তে চলেছে।

রণবীর এবং কঙ্কনা দু’জনেই আলাদা আলাদা ভাবে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁরাস্বেচ্ছায় এই বিচ্ছেদের পথে যাচ্ছেন। দু’জনের কেউই আর এই সম্পর্ককে দ্বিতীয় সুযোগ দিতে রাজি নন বলেও জানিয়েছেন তাঁরা। ইতিমধ্যেই আইনি প্রক্রিয়ার কাজকর্ম প্রায় সবটাই সেরে ফেলেছেন দু’জনে। তাঁদের আশা, আগামী ছ’মাসের আইনি বিচ্ছেদ হয়ে যাবে।

Advertisement

আরও পড়ুনসোনার সংসারে টলি তারকাদের মেলা, দেখুন ফোটো অ্যালবাম

রণবীর-কঙ্কনার ছ’বছরের ছেলে হারুন কার কাছে থাকবে? আদালতের কাছে দু’জনে জানিয়েছেন, তাঁরা যৌথ ভাবে ছেলের দায়িত্ব সামলাবেন। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে তিক্ততা এলেও এখনও বন্ধুত্বের রণবীর-কঙ্কনার বন্ধুত্বের সম্পর্ক অটল। ছেলে হারুনের খেয়াল তাঁরা দু’জনে মিলেই রাখেন। তার পড়াশোনা থেকে শুরু করে সবটা সামলান দু’জনে।

২০১০ সালে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন রণবীর-কঙ্কনা। বিবাহ বিচ্ছেদ হলেও সারা জীবন ভাল বন্ধু হিসেবে একে অপরের পাশে থাকবেন, এমনটাই দাবি করেছেন তাঁরা।

Advertisement