Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
Madan Mitra

Madan Mitra's Biopic: এক নয়, মদন মিত্রকে নিয়ে টলিউডে দু’দুটো বায়োপিক, এমনই রংদার তাঁর জীবন

বিধায়কের দ্বিতীয় বায়োপিকে ‘মদন মিত্র’ কে হবেন? মুখ্যমন্ত্রীর ভূমিকায় রফিয়াত রাশিদ মিথিলা? নিজের পরিকল্পনা জানালেন পরিচালক রাজর্ষি দে।

মদন মিত্রকে নিয়ে তৈরি হতে পারে দু’টি ছবি।

মদন মিত্রকে নিয়ে তৈরি হতে পারে দু’টি ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৭:৪২
Share: Save:

মদন মিত্রকে নিয়ে জোর টক্কর টলিউডে। রাজা চন্দের পর তাঁকে নিয়ে বায়োপিক বানাতে চলেছেন রাজর্ষি দে। রাজর্ষি ‘মায়া’-র শ্যুটিং শেষ করেই আনন্দবাজার অনলাইনকে জানিয়েছিলেন, ‘‘খুব ইচ্ছে মদন মিত্রের বায়োপিক তৈরি করব।’’ইতিমধ্যেই পরিচালক রাজা চন্দ সোমবার কামারহাটির বিধায়কের বায়োপিক বানানোর কথা ঘোষণা করেছেন। মঙ্গলবার আনন্দবাজার অনলাইনকেই ফের রাজর্ষি জানালেন, তাঁর কোনও তাড়াহুড়ো নেই। পুজোর আগেই শ্যুট শুরু করে দিতে হবে, এমনও কোনও ব্যাপার নেই। ভাল করে গবেষণা করে, মদন মিত্রকে খুঁটিয়ে পর্যবেক্ষণের পর চিত্রনাট্য লিখবেন তিনি। সব ঠিক থাকলে ২০২২-এ তাঁর এলাকার বিধায়ককে নিয়ে বায়োপিকের শ্যুট শুরু করবেন রাজর্ষি। দাবি, তাঁর এই অনুরোধে মান্যতা দিয়েছেন স্বয়ং শাসকদলের প্রাক্তন মন্ত্রী। কাকতালীয় ভাবে মদন মিত্রের চরিত্রে তাঁরও প্রথম পছন্দ শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়!

Advertisement

বরাবরই মদন মিত্রের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাজর্ষির। তাঁর ‘মায়া’ ছবির শ্যুটে অনেক সাহায্য করেছেন কামারহাটির বিধায়ক। পরিচালকের কথায়, ‘‘ডানলপের অনেক প্রত্যন্ত জায়গায় আমরা শ্যুট করেছি। যেমন, বালি জুট মিলের ওয়ার্কাস কলোনিতে শ্যুটিং হয়েছে। শ্যুটিং হয়েছে জেটিয়াবাড়িতেও। সব জায়গায় শ্যুটের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন মদনদা।’’ শুধু ব্যবস্থা করে দেওয়া নয়, আউটডোর শ্যুটেও এসেছিলেন তিনি। জেটিয়াবাড়ি থেকে লাইভ সম্প্রচারও করেন।

সেই জায়গা থেকেই রাজর্ষির দাবি, ‘‘একই বিষয় নিয়ে একাধিক ছবি তৈরি হয়েছে। সে ভাবেই আমার বিধায়ককে নিয়ে আমি আমার মতো ছবি বানাব। তাঁর এক ডাকে সর্বভারতীয় মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের সম্মেলনে আট হাজার মহিলা সদস্য যোগ দেন। তিনি যা-ই করেন তাই-ই ভাইরাল! আমি সেই মদন মিত্রকে তুলে ধরব। রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব থেকে ব্যক্তি মদন মিত্র, পুঙ্খানুপুঙ্খ ধরার চেষ্টা করব ছবিতে।’’ উদাহরণ হিসেবে তিনি রামগোপাল বর্মার ‘সরকার’, ‘গুরু’ ছবির কথা বলেন। জানান, ছবিতে উঠে আসবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে মদন মিত্রের ঘনিষ্ঠতাও। একই সঙ্গে এই বায়োপিকে তিনি রাজনীতি আর শিল্পীর মধ্যেকার বিরোধকেও মুছে দিতে চান।

রাজর্ষির দাবি, বিরোধী দলের সমর্থক অভিনেতাদের এই ছবিতে তিনি বেশি করে চাইবেন। সবার আগে বাছবেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, রাহুল অরুণোদয় বন্দ্যোপাধ্যায়কে। চেষ্টা করবেন, তাঁর পুরো টিম যেন বায়োপিকের সঙ্গে যুক্ত থাকে।

বিধায়কের দ্বিতীয় বায়োপিকে মদন মিত্র কে হবেন? প্রশ্ন করতেই রাজর্ষির আক্ষেপ, ‘‘আমার পছন্দও ছিলেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়। এখন হয়তো পছন্দ বদলাতে হবে। তবে ওঁকে কোনও ভাবেই ছাড়ছি না। আমার ছবিতে শাশ্বত থাকবেন। অবশ্যই থাকবেন মিথিলাও। তবে কোন চরিত্রে থাকবেন এখনই বলা সম্ভব নয়। থাকবেন মদনদার প্রিয় পঙ্কজ ত্রিপাঠিও। ইতিমধ্যেই কথা বলা হয়ে গিয়েছে ওঁর সঙ্গে। অনেকেই জানেন না, পঙ্কজ ভবানীপুরের ছেলে।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.