• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘অবসাদে প্রবীণ অভিনেতারা আত্মহত্যা করলে কি হুঁশ ফিরবে সরকারের?’

main
গ্রাফিক: তিয়াসা দাস।

উগরে পড়ছে ক্ষোভ, জমাট বাঁধছে অভিমান। “সব নিয়ম শুধু আমাদের বেলাতেই”— প্রশ্ন তুলছেন তাঁরা। কারা?

কোভিড পরবর্তী শুটিং শুরু নিয়ে মহারাষ্ট্র সরকার নির্দেশ দিয়েছে পঁয়ষট্টি বছরের বেশি বয়স হলে শুটিং ফ্লোরে আসতে পারবেন না অভিনেতারা। আর তাতেই অথৈ জলে বলিউডের প্রবীণঅভিনেতাদের একটা বড় অংশ। সেই দলে রয়েছেন সুহাসিনী মূলে থেকে শুরু করে কনওয়ালজিৎসিংহের মতো বলিউডে দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত থাকা প্রবীণ  অভিনেতারা।

কনওয়ালজিৎ সিংহকে যেমন ইতিমধ্যেই ‘স্যান্ডউইচ’ শো থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছ। বদলে নেওয়া হয়েছে অপেক্ষাকৃত কম বয়সি এক অভিনেতাকে। আর এক অভিনেতা পৃথ্বী জুতশিও বাদ পড়েছেন ধারাবাহিক ‘প্যায়ার কি লুকাছুপি’ থেকে। এ রকম উদাহরণ আরও রয়েছে। প্রযোজনা সংস্থা সাফ জানিয়ে দিয়েছে, কিচ্ছু করার নেই তাদের। সরকারের আদেশ, মানতেই হবে।

‘সরকার কী করে বলতে পারে, কাজ না করে ঘরে থাকুন’ 

আর এ প্রসঙ্গেই কনওয়ালজিতের প্রশ্ন, “আমার মতো প্রবীণ অভিনেতারা যদি কাজ হারানোর অবসাদে আত্মহত্যা করে, তবেই কি হুঁশ ফিরবে এই সরকারের? কাজ না করে, ঘরে বসে থাকার মতো সামর্থ্য তো সবার নেই। পেট চালাতে কাজ দরকার আমাদের। সরকার কী করে বলতে পারে, কাজ না করে ঘরে থাকুন” ?

সরকারের তরফে বক্তব্য, যেহেতু চিকিৎসকরা বারেবারেই বলেছেন, কম বয়সি এবং প্রবীণদের মধ্যে সংক্রমণের আশঙ্কা বেশি তাই তাঁদের সুরক্ষার কথা ভেবেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদিও এ প্রসঙ্গে খানিকটা উত্তেজিত হয়েই পৃথ্বীর বক্তব্য, “এই নিয়ম শুধুমাত্র শিল্পীদের জন্যই কেন? সব্জিবিক্রেতা থেকে শুরু করে রাজনীতিবিদ, যাঁরা প্রতিদিন বেরোচ্ছেন, মিছিলে অংশ নিচ্ছেন, কই তাঁদের ক্ষেত্রে তো এই নিয়ম বর্তায় না? তা হলে?”

আরও পড়ুন- ‘বলিউডি চিত্রনাট্যের হুবহু কপি ক্যাট’! বিকাশ দুবের এনকাউন্টারকে ঠুকলেন তাপসী

‘নামের মিল রয়েছে বলে অমিতাভের পরিবর্তে নেওয়া হবে অভিষেককে?’ 

এই নিয়মের পরিবর্তন চান তাঁরা। কেউ যদি নিজে থেকে কাজ করতে চান, সরকার যেন তার অনুমতি দেয়, এমনটাই অনুরোধ তাঁদের। মৃণাল সেনের ‘ভুবন সোম’-খ্যাত সুহাসিনী মূলে ক’দিন আগেও নজরকাড়া অভিনয় করেছেন ওয়েব সিরিজ ‘ইওর অনার’-এ। ৬৯ বছর বয়স্কা অভিনেত্রী এই প্রসঙ্গে টেনে এসেছেন অমিতাভ বচ্চনের কথা। শাহেনশাহর বয়স এখন ৭৭ বছর। নির্দেশ অনুযায়ী তিনিও এখন শুটিং করতে পারবেন না। সুহাসিনীর বক্তব্য, “কোনও একটা ছবিতে যদি অমিতাভ বচ্চনকে ইচ্ছা থাকলেও কাস্ট করা না যায়, তা হলে কি সেক্ষেত্রে অভিষেক বচ্চনকে নেওয়া হবে, শুধুমাত্র দু’জনের নামের মিল রয়েছে বলে?”

যদিও টলিপাড়ার চিত্রনাট্য কিন্তু আলাদা। নিজেদের ইচ্ছেতে ৬৫ বছরের বেশি অভিনেতাদের কাজ করার নির্দেশ দিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। দীপঙ্কর দে, মাধবী মুখোপাধ্যায়ের মতো কিংবদন্তি অভিনেতারা যেমন আগেই আনন্দবাজার ডিজিটালকে জানিয়েছিলেন, আপাতত শুটে যেতে চান না তাঁরা। অন্যদিকে সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, সুমন্ত মুখোপাধ্যায় যেমন নিজে থেকেই আবারও ফ্লোরে নামার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন প্রযোজক-চ্যানেলের কাছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন