Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Bengali serial: জি বাংলায় আসছে ‘শ্রীময়ী’-র বোন ‘সর্বজয়া’? ইন্দ্রাণী এবং দেবশ্রীর মধ্যে জোর করে তুলনা টানছেন নেটাগরিকরা

ধারাবাহিক ‘সর্বজয়া’-র কিছু ঝলক নেটমাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ার পরেই নেটাগরিকদের মনে হচ্ছে, এর গল্প নাকি অনেকটাই ‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকের মতো।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৮ মে ২০২১ ১৭:২০
ইন্দ্রাণী হালদার এবং দেবশ্রী রায়।

ইন্দ্রাণী হালদার এবং দেবশ্রী রায়।

দেবশ্রী রায় ধারাবাহিকে ফিরছেন, এ কথা আগেই জানিয়েছিল আনন্দবাজার ডিজিটাল। কিন্তু সেই ধারাবাহিক ‘সর্বজয়া’-র কিছু ঝলক নেটমাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ার পরেই নেটাগরিকদের মনে হচ্ছে, এর গল্প নাকি অনেকটাই ‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকের মতো। এই নিয়ে নেটাগরিকদের মধ্যে শুরু হয় বাকবিতণ্ডা। কেউ লিখেছেন, জি বাংলায় আসছে ‘শ্রীময়ী’র যমজ বোন ‘সর্বজয়া’। কারও দাবি, ‘জি তে আসছে ‘সর্বজয়া’। এ যেন পুরো ‘শ্রীময়ী’র কপি। মা গো! এমন কপি আমি কোনও দিন দেখিনি’।

অনেকে কৌতূহল ও আবেগ প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘কোনও কিছুর সঙ্গে ‘শ্রীময়ী’-র তুলনা করা মানে শ্রীময়ী চরিত্রকেই ছোট করা’। নেটাগরিকদের একাংশ ধারাবাহিক দু’টির মধ্যে মিল খুঁজে পেয়ে লিখেছেন ‘শ্রীময়ী’-র মতো ‘সর্বজয়া’-তে জয়া চরিত্রটিও সংসারের জন্যই নিজের সব স্বপ্ন বিসর্জন দিয়েছেন। জয়াও তার শাশুড়ির অপছন্দের পাত্রী। তবে এই সাদৃশ্য নিয়ে সমালোচনা করা ও মিম বানিয়ে ‘সর্বজয়া’-কে '‘শ্রীময়ী লাইট’ তকমা দেওয়াটা অন্যায় বলে মনে করেছেন কিছু নেটাগরিক।

সমস্ত বিষয়টি জানার পর ‘সর্বজয়া’ ধারাবাহিকের লেখক স্নেহাশিস চক্রবর্তী আনন্দবাজার ডিজিটাল কে বলেন, ‘‘আমি কখনও কোনও পুরনো বা চলতি ধারাবাহিক দেখে নতুন ধারাবাহিক বানাইনি। প্রত্যেক দিন নতুন নতুন বিষয় উপহার দিই নিজের ভাবনা থেকে। যাতে কেউ মিল খুঁজে না পান তার জন্য কোনও ধারাবাহিকও দেখি না।’’ ধারাবাহিক না দেখেই ‘সর্বজয়া’-র সঙ্গে যাঁরা শ্রীময়ীর মিল খুঁজে পাচ্ছেন, তাঁদের বুদ্ধিমত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন লেখক। স্নেহাশিসের বক্তব্য, ‘‘জাতীয় পুরস্কারজয়ী দেবশ্রী রায় পুরনো বিষয় নিয়ে তৈরি ধারাবাহিকে অভিনয় করতে রাজি হবেন, এটাই বা ভাবলেন কী করে তাঁরা?”

‘শ্রীময়ী’-র লেখক লীনা গঙ্গোপাধ্যায় আনন্দবাজার ডিজিটালকে জানান, “আমি ধারাবাহিকটি এখনও দেখিনি, তাই না দেখে কোনও মন্তব্য করা ঠিক হবে না। তবে ‘শ্রীময়ী’ মধ্য বয়সের মহিলাদের লড়াইয়ের প্রথম নিদর্শন ধারাবাহিকে রেখেছিল। তার দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে কেউ যদি কিছু নির্মাণ করেন সেটা তো ভালই।”

একই ভাবে ইন্দ্রানী হালদারও সাক্ষাৎকারে জানান, ‘সর্বজয়া’ ধারাবাহিকের ঝলক দেখে তাঁর কোথাও মনে হয়নি যে এটি ‘শ্রীময়ী’-র নকল। যাঁরা নেটমাধ্যমে এ কথা লিখছেন, তাঁরা অন্যায় করছেন। তাঁর কথায়, “দেবশ্রী রায় একজন নামী অভিনেত্রী। বহু বছর পরে ধারাবাহিকে ফিরছেন। হয়তো ধারাবাহিকের ঝলকে ঠাকুরকে প্রদীপ দেওয়ার দৃশ্যটি দেখে দর্শক ‘শ্রীময়ী’-র সঙ্গে ‘সর্বজয়া’র তুলনা করছেন। কিন্তু এর কোনও মানে নেই।’’ একইসঙ্গে স্নেহাশিস চক্রবর্তী লেখনীর প্রশংসা করলেন অভিনেত্রী। প্রশ্ন তুললেন, ‘‘তিনি নকল করবেনই বা কেন?”

সকলের মনে একটাই প্রশ্ন, ‘সত্যিই কি ‘শ্রীময়ী’-র আদলে সর্বজয়া তৈরি’? অনেক নেটাগরিক ‘শ্রীময়ী’ বা ‘সর্বজয়া’-ধারাবাহিকের চেয়ে ইন্দ্রাণী হালদার এবং দেবশ্রী রায়কে এঁকে অপরের প্রতিযোগী হিসেবে ভাবছেন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement