Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২

দীপিকার নাক কাটব, হুমকি করণী সেনার

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না ‘পদ্মাবতী’র। সঞ্জয় লীলা ভংসালী পরিচালিত এই ছবির মুক্তি আটকাতে শ্রী রাজপুত করণী সেনা আগামী ১ ডিসেম্বর ভারত বন্‌ধের ডাক দিয়ে রেখেছে। আজ আবার আরও এক ধাপ এগিয়ে ছবির অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের নাক কাটার হুমকি দিল তারা।

সংবাদ সংস্থা
জয়পুর শেষ আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৭ ০২:৪৭
Share: Save:

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না ‘পদ্মাবতী’র। সঞ্জয় লীলা ভংসালী পরিচালিত এই ছবির মুক্তি আটকাতে শ্রী রাজপুত করণী সেনা আগামী ১ ডিসেম্বর ভারত বন্‌ধের ডাক দিয়ে রেখেছে। আজ আবার আরও এক ধাপ এগিয়ে ছবির অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোনের নাক কাটার হুমকি দিল তারা। পরিচালক সঞ্জয়ের মাথার দামও নির্ধারণ করে ফেলেছে মেরঠের একটি সংগঠন।

Advertisement

ছবিতে রাজপুতদের ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে বলে শ্যুটিং পর্ব থেকেই নানা গোলমাল বাধিয়ে এসেছে করণী সেনা। চলতি বছরের জানুয়ারিতে জয়পুরে ছবির সেটে ভাঙচুর চালায় তারা। নষ্ট করে দেওয়া হয় শ্যুটিংয়ের বহুমূল্য সামগ্রী। মারধর করা হয় পরিচালককে। সে সময় ছবির শ্যুটিং সাময়িক ভাবে বন্ধ করতে বাধ্য হন সঞ্জয়। তার পর ছবির পোস্টার আর ট্রেলার মুক্তি ঘিরেও হিংসা ছড়িয়েছে দেশের নানা প্রান্তে। রানি পদ্মাবতীর নাচের দৃশ্য নিয়ে আপত্তি উঠেছে বহু জায়গায়। সবচেয়ে বড় আপত্তির জায়গা হল আলাউদ্দিন খিলজির সঙ্গে রানি পদ্মাবতীর ঘনিষ্ঠ স্বপ্ন দৃশ্য। ছবিতে এমন কোনও দৃশ্য নেই বলে বারবার জানিয়েছিলেন পরিচালক নিজে। কিন্তু তাতে বিক্ষোভ-আন্দোলন থামানো যায়নি। এই অবস্থায় আগামী মাসের ১ তারিখ ছবিটির মুক্তি আটকাতে মরিয়া করণী সেনা-সহ বেশ কয়েকটি হিন্দুত্ববাদী সংগঠন।। ছবি মুক্তি নিয়ে আজ আপত্তি তুলেছেন অজমের দরগার দেওয়ান জইনুল আবেদিন আলি খানও। একটি বিবৃতিতে বিতর্কিত লেখক সলমন রুশদির সঙ্গে সঞ্জয় লীলা ভংসালীর তুলনা টেনেছেন তিনি।

বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলে তাদের কোপে পড়েছেন দীপিকাও। ‘দেশ পিছিয়ে পড়েছে’ বলে তিনি যে মন্তব্য করেছিলেন, তাঁর প্রতিবাদেই ভারত বন্‌ধের ডাক দেওয়া হয়েছে বলে কাল জানিয়েছিলেন সেনা সভাপতি লোকেন্দ্র সিংহ কালভি। আজ আবার সেনার এক সদস্য মহিপাল সিংহ মাকরানা একটি ভিডিও বার্তায় বলেছেন, ‘‘রাজপুতরা মেয়েদের গায়ে কখনও হাত দেয় না। কিন্তু প্রয়োজন পড়লে দীপিকারও এমন হাল আমরা করব যেমনটা শ্রী লক্ষ্মণ করেছিলেন শূর্পণখার সঙ্গে।’’ অর্থাৎ রামায়ণের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে ঘুরিয়ে দীপিকাকে নাক কাটার হুমকি দিয়েছেন তিনি। এর সঙ্গেই যোগ হয়েছে সেনা সভাপতি কালভির হুঁশিয়ারি। তিনি বলেছেন, ‘‘আমরা লাখো মানুষ জড়ো হয়ে এই ছবির মুক্তি আটকাব। আমাদের পূর্বপুরুষদের ইতিহাসে অনেক রক্ত ঝরেছে। তাতে যে কেউ কালি দিতে পারে না।’’ হুমকির পরে বাড়ানো হয়েছে দীপিকার নিরাপত্তা।

আরও পড়ুন: এত বুড়ো হইনি যে, দেব বা জিতের বাবার চরিত্রে অভিনয় করব

Advertisement

একই দিনে হুমকি দেওয়া হয়েছে পরিচালক সঞ্জয় লীলা ভংসালীকেও। কালই তাঁকে পুলিশি নিরাপত্তা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে মহারাষ্ট্র সরকার। আজ মেরঠের রাজপুত সংগঠন তাঁর মাথার দাম ঘোষণা করেছে পাঁচ কোটি। ওখানকারই সর্ব ব্রাহ্মণ মহাসভা আবার ছবির মুক্তি আটকাতে রক্ত দিয়ে চিঠি লিখছে সেন্ট্রাল বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশন’ (সিবিএফসি)-কে।

এই বিতর্কের মধ্যেই আবার ছবিটির মুক্তি পিছোতে চেয়ে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রককে চিঠি দিয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। রাজ্যের মুখ্যসচিব (স্বরাষ্ট্র) অরবিন্দ কুমার ওই চিঠিতে লিখেছেন, ১ তারিখ ছবিটি মুক্তি পেলে রাজ্যে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হতে পারে। তাঁর ব্যাখ্যা, ওই দিন স্থানীয় একটি ভোটের গণনা রয়েছে। সেই সঙ্গেই রয়েছে মুসলিমদের বরাওয়াফত নামে এক উৎসব। এই দু’দিক সামলাতে গিয়ে হল মালিকদের যথেষ্ট নিরাপত্তা দেওয়া যাবে না বলেই মনে করছে রাজ্য সরকার। গত কয়েক দিনে ছবির ট্রেলার প্রদর্শনী ঘিরে বিভিন্ন শহরে যে ধরনের হাঙ্গামা হয়েছে, তাতে যোগী সরকার ভীত বলেও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন অরবিন্দ কুমার। যথাযথ ব্যবস্থা না নিয়ে ওই রাজ্যে ছবিটি মুক্তি পেলে বড় ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তাঁরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.