Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১১ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

মহেশ, একতার বিরুদ্ধে পর্ন স্টারকে সুযোগ দেওয়ার অভিযোগ পায়েল রোহতগির, রাজনীতির রং সুশান্তের মৃত্যুতে?

সুশান্তের মৃত্যুকে সামনে রেখে কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আনলেন পায়েল রোহতগি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৭ জুন ২০২০ ১৭:৫০
Save
Something isn't right! Please refresh.
সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে সরব পায়েল।

সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে সরব পায়েল।

Popup Close

আরও এক বার রাজনীতি বনাম শিল্প-সংস্কৃতি। আরও এক বার বলিউডের অন্দরে ছায়া রাজনীতির। সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর চার দিন পরেও অবসাদ বনাম স্বজনপোষণ তরজা চলছেই। সেই ক্ষোভে যেন আস্তে আস্তে রং লাগছে রাজনীতির। গতকাল অভিনেতার অপমৃত্যু নিয়ে মুখ খুলেছিলেন কংগ্রেস নেতা সঞ্জয় নিরুপম। ভাইয়ের মৃত্যু নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন পটনার বিজেপি বিধায়ক নীরজ বাবলু। এ বার সেই তালিকায় উঠল আর এক বিজেপি তারকা-নেতা পায়েল রোহতগির নাম।

ছোট-বড়পর্দার এই তারকা যত না জনপ্রিয় তাঁর অভিনয়গুণে, তার থেকেও বেশি পরিচিত বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য। এ বার তিনি সুশান্তের মৃত্যুকে সামনে রেখে সামনে আনলেন কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য।

সোশ্যালে সদ্য শেয়ার হওয়া ভিডিয়োবার্তায় কী বললেন পায়েল? বক্তব্যের শুরুতেই তাঁর আক্রমণ মহেশ ভট্ট, একতা কপূরকে। তাঁর অভিযোগ, এই দুই প্রযোজক-পরিচালক বিদেশ থেকে পর্ন স্টার এনে তাঁকে সুযোগ দেন ভারতের শিল্প-সংস্কৃতিকে নষ্ট করতে। তবু দেশের প্রথম সারির অভিনেতাকে কাজের সুযোগ দেবেন না! এখানে পর্ন স্টার বলে তিনি যে সানি লিওনিকেই বিঁধলেন, সেটা দিনের আলোর মতোই স্পষ্ট।

Advertisement

আরও পড়ুন: ‘আমি যদি তোমার ভেঙে যাওয়া মনটাকে জোড়া দিতে পারতাম... ’

তাঁর আরও দাবি, সুশান্ত একতারই আবিষ্কার। তাই একতার দায় বর্তায় তাঁর অভাব-অভিযোগ শোনার। তা না করে একতা সুশান্তের মৃত্যুর এক সপ্তাহ আগে কিছু ভাল ভাল কথা সোশ্যালে পোস্ট করে দেখালেন, তিনি সুশান্তের কতখানি সহমর্মী। এর বদলে তিনি যদি ডেকে কাজ দিতেন সুশান্তকে তা হলে এক সপ্তাহ পরে সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে কুম্ভীরাশ্রু ঝরাতে হত না তাঁকে।

একই ভাবে তাঁর তোপ মহেশ ভট্টকে নিয়েও। কাজের ইচ্ছে নিয়ে বার বার সুশান্ত দৌড়ে গেছেন ভট্ট ক্যাম্পে। বার বার বাদ পড়েছেন। মহেশ নাকি তাঁকে দেখেই বলেছিলেন, এ তো আর এক পরভিন ববি! যা জানিয়েছেন তাঁর ক্যাম্পের এক লেখক সুচরিতা সেনগুপ্ত। এক জন প্রবীণ পরিচালক কী করে এমন অবিবেচকের মতো মন্তব্য করেন? প্রশ্ন তুলেছেন পায়েল।

আরও পড়ুন: সুশান্তের সঙ্গে ছিল ছয় বছরের প্রেম, রাজ্যস্তরের ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় ছিলেন অঙ্কিতা লোখন্ডে

সেই সঙ্গে তাঁর জোর গলার দাবি, সুশান্ত কাজ পেতেন না, পার্টিতে আমন্ত্রণ পেতেন না, বলিউডের আপন হয়ে উঠতে পারেননি। কারণ তিনি ছোটপর্দা থেকে উঠে এসেছিলেন। ছোটপর্দার তারকাদের বড়পর্দা অভিনেতা বলেই মনে করে না! বরং একঘেয়ে হয়ে গিয়েও মুঠো ভর্তি কাজ পান আলিয়া ভট্ট, অনন্যা পাণ্ডে, সারা আলি খানের মতো স্টার কিড। যাঁরা অনায়াসে করণের সঙ্গে হাসাহাসি করতে পারেন সুশান্তকে নিয়ে। স্টার রেটিংয়ে তাঁদের কাছে এক্কেবারে শেষ নাম হন সুশান্ত। অর্থাৎ, স্টার কিড নন বলে সুশান্ত জাত-অভিনেতা নন। তাই তাঁর সঙ্গে অভিনয়ে আগ্রহ পাননি বলিউডের এখনকার স্টাররা।

ভিডিয়োবার্তায় পায়েলের আরও খেদ, বলিউড বড্ড হৃদয়হীন। ফ্ল্যাশবাল্বের ঝলকানি, গ্ল্যামারের ছটায় সারা ক্ষণ মায়ানগরী ঝলমল করলেও আসল রূপ ভীষণ কদর্য। যাঁরা একের পর এক হিট দিতে পারেন তাঁদের পোঁছে বি-টাউন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement