Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১২ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Rupankar-KK Debate: রূপঙ্করের মুখে আমাদের নাম কেন, কেকে-বিতর্কে বিস্ফোরক রাঘব-ইমন, আপত্তি সোমলতারও

কেকে-র সমালোচনায় তাঁদের নাম বলেন রূপঙ্কর সেখানেই আপত্তি রাঘব, ইমন, সোমলতার। কেউ বলছেন, অনুমতি নেওয়া উচিত ছিল। কারও দাবি, বক্তব্যে সায় নেই।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৪ জুন ২০২২ ১৭:১৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রয়াত বলিউড গায়ক কেকে-কে নিয়ে করা রূপঙ্করের বিতর্কিত মন্তব্য নিয়ে নিজেদের আপত্তি জানিয়েছেন প্রত্যেকেই।

প্রয়াত বলিউড গায়ক কেকে-কে নিয়ে করা রূপঙ্করের বিতর্কিত মন্তব্য নিয়ে নিজেদের আপত্তি জানিয়েছেন প্রত্যেকেই।

Popup Close

আগেই ফেসবুকে মুখ খুলেছিলেন ইমন চক্রবর্তী। এ বার একই পথে হাঁটলেন রাঘব চট্টোপাধ্যায়, সোমলতা আচার্য চৌধুরীও। প্রয়াত বলিউড গায়ক কেকে-কে নিয়ে করা বিতর্কিত মন্তব্য নিয়ে নিজেদের আপত্তি জানিয়েছেন প্রত্যেকেই।

শুক্রবার রূপঙ্করের সাংবাদিক সম্মেলনের পরে বিস্ফোরক রাঘব চট্টোপাধ্যায়। আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে তাঁর দাবি, ‘‘আমাদের নাম এ ভাবে বলবে কি না, সেটা আমাদের কাছে জানতে চাওয়া উচিত ছিল। কাল যদি বলি, আমি রোনাল্ডোর থেকে ভাল ফুটবল খেলি এবং শ্রীকান্ত আচার্য, নচিকেতাও রোনান্ডোর থেকে ভাল ফুটবল খেলে, আমার কথার দায় তো ওঁদের হতে পারে না। আমিও এমন কথা বলতে পারি না। অন্য কারও নাম তাঁর অনুমতি ছাড়া নেওয়া উচিত নয়।’’

শুধু রাঘবই নন, এর আগে ইমনও একই কথা বলেছেন তাঁর ফেসবুক লাইভে, আনন্দবাজার অনলাইনের কাছেও ইমন সেই ইঙ্গিতই দিলেন। তাঁর বক্তব্য, ‘‘কেউ কোনও প্রসঙ্গে ব্যক্তিগত মতামত দিতেই পারেন, কিন্তু সেখানে যদি অন্য কোনও শিল্পীর নাম নেওয়া হয়, তখন এ বিষয়ে তাঁর অনুমতি নেওয়া হয়েছে কি না, তাঁর সঙ্গে কথা বলা হয়েছে কি না, সবটাই স্পষ্ট হওয়া উচিত। এই মন্তব্যের ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না, এটা স্পষ্ট করতেই আমি ফেসবুক লাইভ করে আমার বক্তব্য জানিয়েছিলাম।’’ ভুল হয়েছে, তা রূপঙ্কর স্বীকার না করার প্রসঙ্গে ইমনের সাফ জবাব, ‘‘এ ব্যাপারে আমি কিছু বলতে চাই না। এটা ওঁর নিজস্ব সিদ্ধান্ত।’’

Advertisement

কিছু দিন আগেই মনোময়ের সঙ্গে হিন্দি গানের ব্যান্ড করেছেন রূপঙ্কর। সঙ্গে উজ্জয়িনী মুখোপাধ্যায়। ব্যান্ডের নাম ‘ইউএমআর’। সাংবাদিক সম্মেলনে যাওয়ার কথা থাকলেও যাননি উজ্জয়িনী। একই ভাবে অনুপস্থিত ছিলেন মনোময় ভট্টাচার্যও। রূপঙ্কর বিবৃতি পাঠ করে ঠিক কী বলেছেন জানেন না মনোময়, তবে ব্যক্তিগত ভাবে তাঁর মত, অন্যের নাম ব্যবহারের ক্ষেত্রে অনুমতি চাওয়ার প্রয়োজন নেই। শিল্পীর দাবি, ‘‘ও যে আমাদের নাম বলেছে , সেটা ওর ইমোশন থেকে বলেছে। ওর ভাবনা। তার জন্য অনুমতি নিতে হবে কেন? আমরা তো ওকে বলতে বলিনি। তাই আলোচনা বা অনুমতি, কোনওটাই এখানে প্রযোজ্য নয়। এর সঙ্গে একটা কথা বলতে পারি, কেকের আকস্মিক মৃত্যু এই বিতর্কের আঁচ বাড়িয়ে দিয়েছে। না হলে এই বিতর্ক অনেক আগেই থেমে যেত।’’

বিশেষ কাজে কলকাতার বাইরে যাচ্ছেন সোমলতা আচার্য চৌধুরী। ট্রেনে যেতে যেতেই কথা বললেন আনন্দবাজার অনলাইনের সঙ্গে। তাঁর কথায়, ‘‘কোনটা উচিত, কোনটা অনুচিত, বলতে পারব না। তবে রূপঙ্করদা যে কথাটা বলছেন কেকে প্রসঙ্গে, তার সঙ্গে আমি সহমত নই। কেকে আমার অনুপ্রেরণা। ছোটবেলা থেকে ওঁর গান শুনে বড় হয়েছি। তার থেকে ভাল গান আমি গাই, এটা কোনও দিন ভাবতেই পারব না।’’

রূপঙ্করের ফেসবুক ভিডিয়ো এবং কেকে-র মৃত্যুর পর কেটে গিয়েছে বেশ কয়েকটা দিন। বিতর্কের আগুন এখনও নেভেনি। সাংবাদিকদের ডেকে বিবৃতি পাঠ করেছেন গায়ক। তবে নেটমাধ্যম থেকে সংস্কৃতি জগতে অনেকেরই বক্তব্য, সেটুকুই যথেষ্ট নয়।

সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তেফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement