Advertisement
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
Sudipta Chakraborty

Sudipta Chakraborty: জন্মদিনে মনে হয় প্রতি বছর এগিয়ে যাচ্ছে! অথচ জীবনে কিছুই করা হল না

মেয়ের জন্মদিনে সেজেছি, নিজের জন্মদিন পাজামা পরেই কাটাব।

সুদীপ্তা চক্রবর্তী

সুদীপ্তা চক্রবর্তী

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৩ নভেম্বর ২০২১ ১৫:৫৯
Share: Save:

চার দিন আগে এক মাত্র মেয়ে শাহিদার জন্মদিন গিয়েছে। বাড়ি ভর্তি লোক, হইহই ব্যাপার। এ বার মায়ের জন্মদিন। উত্তেজনায় আগের রাত থেকেই উদযাপনে মাতল মেয়ে! মঙ্গলবার সুদীপ্তা চক্রবর্তীর জন্মদিন। মেয়ে কী কী করছে? মায়ের স্নেহ, প্রশ্রয়, কপট শাসন মিলেমিশে একাকার ‘বাড়িওয়ালি’র কথায়। বললেন, ‘‘মেয়ে কত কিছু বানিয়েছে আমার জন্য! মাঝরাতে চমকে দিয়েছে কাগজের ওয়ালেট, গ্রিটিংস কার্ড, কবজি বন্ধনি উপহার দিয়ে। সব নিজে হাতে বানিয়েছে। সাহিদা আমাদের গাড়ির চালককে দাদাজি বলে ডাকে। তাঁর সঙ্গে পরামর্শ করে উপহারগুলো আবার রঙিন কাগজ, রঙিন ফিতে দিয়ে যত্ন করে মুড়েছে!’’

এ তো গেল জন্মদিনের আগের রাতের অনুষ্ঠান। মায়ের জন্মদিনেও রীতিমতো পার্টি করার মেজাজে মেয়ে! সুদীপ্তাকে শাহিদা আগাম ফাঁস করেছে, ‘‘এ বার বাবার ফোন থেকে সবাইকে ফোন করে নিমন্ত্রণ করব। তুমিও জানতে পারবে না। কেউ ‘না’ বলবে না! তোমারও আমার মতোই জন্মদিনের পার্টি হবে। কী মজা!’’ সত্যিই কি জন্মদিনের বিশেষ আয়োজন হয়েছে? শুনেই হাঁ হাঁ করে উঠেছেন ‘জ্যেষ্ঠপুত্র’-র অভিনেত্রী। জানিয়েছেন, শাহিদা আর তাঁর জন্মদিন এত কাছাকাছি যে পরপর দুটো পার্টির আয়োজন করার বিন্দুমাত্র ইচ্ছে তাঁর নেই। আজ তিনি পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাবেন। সারা দিন কোথাও বেরোবেন না। কোনও কাজ নেই আজ তাঁর। কেকও কাটবেন না। সাজেও নেই। হাসতে হাসতে বলেছেন, ‘‘কোনও কালেই সাজগোজে নেই। আজ তো আরও বেশি করে নয়। মেয়ের জন্মদিনের পার্টিতে ভাল মতো সেজেছি। নিজের জন্মদিনে পছন্দের পাজামা পরেই দিন কাটাব।’’

মেয়ে যদিও এ সব শুনে বিন্দুমাত্র দমেনি। সে এ বার জোট বেঁধেছে সুদীপ্তার মা অর্থাৎ দিদিমার সঙ্গে। অভিনেত্রীর কানে এসেছে, তাঁর মা সুক্তো, পাঁচ রকম ভাজা, তরকারি, মাছের কালিয়া, পায়েস ইত্যাদি রেঁধে নিয়ে আসছেন। ছোট থেকেই মা তাঁদের জন্মদিনে এ ভাবেই গুছিয়ে নিজের হাতে রান্না করে আসছেন বলে জানালেন তিনি। স্বামী অভিষেক সাহা স্ত্রীকে নিজের হাতে পাঁঠার মাংস রান্না করে খাওয়াচ্ছেন। সুদীপ্তার একাডেমির ছাত্র-ছাত্রীর একটি দল গত রবিবারেই কেক এনে ছোটখাটো উদযাপন সেরেছেন। বাকিদের ফোনে একটাই প্রশ্ন, তাঁদের ম্যাম কখন বাড়িতে থাকবেন? তাঁরা তা হলে আসবেন। সুদীপ্তার দাবি, ‘‘কাউকে কিচ্ছু বলিনি। আজ কোনও ভিড়ভাট্টা চাইছে না মন।’’

এক বছর এগিয়ে গিয়ে মন কি ক্লান্ত? ‘‘একেবারেই না’’, টানটান জবাব। প্রতি বছর এই দিনটি এলেই নাকি আফশোস-আক্ষেপে জর্জরিত হন তিনি, দাবি সুদীপ্তার। ‘‘বছর এগিয়ে যাচ্ছে! অথচ জীবনে কিছুই করা হল না। তাই প্রতি বছর এক বছরের রুটিন গোছাতে বসি। আজও সেটাই করব’’, আলগোছে জানালেন ‘ষড়রিপু’র অভিনেত্রী।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.