×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৬ মে ২০২১ ই-পেপার

সুশান্তের উপর বিষপ্রয়োগের প্রমাণ মেলেনি, জানিয়ে দিল এমস

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৪:৩৮
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের উপর বিষপ্রয়োগ করা হয়েছিল, এমন কোনও প্রমাণ মেলেনি। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই-কে দেওয়া রিপোর্টে দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সেস (এমস)এমনটাই জানিয়েছে।

গত ১৪ জুন বান্দ্রার বাড়ি থেকে অভিনেতার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের পর থেকেই তাঁর মৃত্যুর কারণ নিয়ে নানা জল্পনা চলছিল। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের ভিত্তিতে মুম্বই পুলিশ জানিয়েছিল সুশান্ত আত্মহত্যাই করেছেন। কিন্তু বিষপ্রয়োগ করে তাঁকে মেরে ফেলা হয়ে থাকতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন সুশান্তের পরিবারের লোকজন ও অনুরাগীরা।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সিবিআই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে। অভিনেতার ভিসেরা পরীক্ষা করে মৃত্যুর কারণ নির্ধারণের দায়িত্ব পড়ে এমসের কাঁধে। গোয়েন্দা সূত্রে খবর, সম্প্রতি সিবিআইয়ের হাতে ভিসেরা পরীক্ষার রিপোর্ট তুলে দিয়েছে এমস। তাতে সাফ জানানো হয়েছে, অভিনেতার উপর বিষপ্রয়োগের কোনও প্রমাণ মেলেনি।

Advertisement

আরও পড়ুন: সারা-শ্রদ্ধাকে টানা জেরা ফোন বাজেয়াপ্ত, তবু ফাঁক রেখে দিল এনসিবি!​

আরও পড়ুন: বাড়ি মাদকের আস্তানা, মাদক জোগান, রিয়ার জামিনের বিরোধিতায় এনসিবি​

মুম্বইয়ের হাসপাতালে যে ভাবে প্রয়াত অভিনেতার ময়নাতদন্ত করা হয়, তা নিয়ে যদিও আগেই গাফিলতির অভিযোগ তুলেছিল এমসের একটি প্যানেল। তবে বিষপ্রয়োগের প্রমাণ না মেলায় আপাতত আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগটিই খতিয়ে দেখছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। মুম্বই পুলিশও আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার বিষয়টি নিয়েই তদন্ত করছিল।

অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী তাঁদের ছেলেকে হেনস্থা করেছেন, প্রেসক্রিপশন ছাড়া ওষুধ খাইয়েছেন, টাকা নয়ছয় করেছেন এবং আত্মহত্যায় প্ররোচনা দিয়েছেন বলে অভিযোগ করে সুশান্তের পরিবার। সেই নিয়ে রিয়ার বিরুদ্ধে এফআইআর-ও দায়ের করা হয়। তাক পরেই সিবিআইয়ের হাতে তদন্ত যায়। তবে সিবিআই খামোকা তদন্তে দেরি করছে বলেও সম্প্রতি অভিযোগ করেন সুশান্তের পরিবারের আইনজীবী।

Advertisement