• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘না’ মানে যে ‘না’-ই হয়, তা অনেকেই বুঝতে চান না : তাপসী

Taapsee Pannu
তাপসী পান্নু।

নিজের দেশেই শপিং মলে গিয়ে কেনাকাটা করতে পারেননা তাপসী পান্নু। যেতে হয় বিদেশে। সম্প্রতি এক সংবাদ মাধ্যমকে নিজেই সে কথা জানিয়েছেন অভিনেত্রী। এমনটা নয় যে, ভারতের জামা কাপড় না পসন্দ তাঁর। তবে কেন বাইরে যেতে হয় তাঁকে?

অভিনেত্রী জানালেন, রাজধানী শহর দিল্লিতেই তাঁর বেড়ে ওঠা। সেখানেই তাঁর ‘আড্ডার ঠেক’। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি বদলেছে। ২০১৫-তে ‘বেবি’-র সাফল্যের পর থেকেই দিল্লির সেই ‘গার্ল নেক্সট ডোর’ রাতারাতি তকমা পেয়ে যান সেলিব্রিটির। বদলে যায় সবকিছু।

তাপসীর কথায়, “রাস্তায় এখন আর আগের মতো ঘুরে বেড়াতে পারিনা, পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে পুরনো জায়গায় আর যেতে পারিনা। মানুষজন আমায় ভালবাসেন, সে জন্য আমি সত্যি খুবই কৃতজ্ঞ। কিন্তু, নিজের জন্য যে একটা স্পেস দরকার হয় তা অনেক সময়তেই ভুলে যান অনেকে। খারাপ লাগে যখন দেখি বারণ করা সত্ত্বেও রাত বিরেতে ফ্যানেরা ফোন করছেন অথবা আমি বাড়ি পৌঁছেছি কিনা তা জানবার জন্য বারবার করে জোর করছেন। এতে নিজের পরিবারের উপরেও এর প্রভাব পড়ে। তাদের নিরস্ত করা যায় না। ‘না’ মানে যে ‘না’-ই হয়, তা অনেকেই বোঝেননা, বুঝতে চান না ।”

আরও পড়ুন-‘মনে হচ্ছিল মহিষাসুরই বধ করবেন মা দুর্গাকে’, প্রথম বার দুর্গা হয়ে বললেন মধুমিতা...

 

আরও পড়ুন- ফেলে আসা এগারোটা মাস কোথায় গেল?উত্তর খুঁজছেন নীতু...

 

তাপসীর জীবনের চাকা ঘুরে গিয়েছে ১৮০ ডিগ্রি। মলে গিয়ে জামাকাপড়ও কিনতে পারেন না আজকাল। পাপারাৎজির ভিড় যে সেখানেও। অগত্যা গন্তব্য বিদেশ। নিজেই জানিয়েছেন, এমনটা নয় যে দামী ব্র্যান্ডের জামা কাপড় পরবেন বলে বিদেশে গিয়ে কেনাকাটা করেন তিনি। বাধ্য হন, তাই যান।

 

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন