জন্মের পর থেকেই পাপারাৎজির নয়নের মণি তৈমুর আলি খান। ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে হাত নাড়ানো থেকে শুরু করে, পোজ দেওয়া— এই বয়সেই তৈমুরের কেতায় বুঁদ আট থেকে আশি। কিন্তু মা করিনা কপূর খান ছবি তুলতে এলেই নাকি সটান না বলে দেয় নবাব পুত্র! সম্প্রতি মুম্বইয়ে একটি অনুষ্ঠানে কর্ণ জোহরের এক প্রশ্নের উত্তরে এমনটাই বলেন করিনা।

করিনা বলেন, “আমি যখনই ছবি তুলতে চাই, তৈমুর আমায় স্পষ্ট করে জানিয়ে দেয় আম্মা, কোনও ছবি তুলবে না।” কিন্তু যে ছেলে ক্যামেরার সামনে এত সাবলীল , মা ছবি তুলতে এলেই মনের ভাবের বদল হয়ে যায় কেন? করিনার মজার মন্তব্য, “ও বোধহয় ভাবে পাপারাৎজিরাই ওর প্রকৃত বন্ধু।”

আরও পড়ুন-‘স্বপ্নের মতো বিয়ে’, সাত পাকে বাঁধা পড়লেন টেলি দুনিয়ার জনপ্রিয় অভিনেত্রী

 

আরও পড়ুন-‘ইন্ডিয়ান আইডল’-এ জামা খুলে গান! লজ্জায় মুখ ঢাকলেন নেহা

 

করিনার ওই কথা শুনে দর্শক মহলে হাসির রোল ওঠে। কর্ণ জোহরও এক পরিচিত সেলেব্রিটি রিপোর্টারের নাম উল্লেখ করে বলেন, তৈমুর বোধহয় ভাবে করিনা সেই ব্যক্তি। তাই যখন তখন ছবি তোলায় এক্কেবারে না করে দেয় সে। কিছু দিন আগেই তৈমুরকে বোর্ডিং-এ পাঠানোর ব্যাপারে মুখ খুলেছিলেন করিনা। পাপারাৎজির চোখ, ক্যামেরার ফ্ল্যাশ আর লাইমলাইট থেকে আড়াল করতেই নাকি বছর দু’য়েকের খুদেকে বোর্ডিং পাঠাতে পারেন, এমনটাই জানিয়েছিলেন পটৌডি পরিবারের পুত্রবধু।