Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
Shibpur Controversy

সমস্যা যদি মিটে যায়, তা হলে সেটা ছবির জন্যই স্বাস্থ্যকর, ‘শিবপুর’ প্রসঙ্গে মত খরাজের

যাবতীয় বিতর্ক দূরে রেখে মুক্তি পাচ্ছে ‘শিবপুর’। ছবিতে একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন খরাজ মুখোপাধ্যায়।

Tollywood actor Kharaj Mukherjee

খরাজ মুখোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৯ জুন ২০২৩ ১৪:২৬
Share: Save:

চলতি মাসেই মুক্তি পাচ্ছে অরিন্দম ভট্টাচার্য পরিচালিত ছবি ‘শিবপুর’। সাম্প্রতিক অতীতে এই ছবি নিয়ে একাধিক বিতর্ক প্রকাশ্যে এসেছে। ছবির অন্যতম প্রযোজকের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ এনেছিলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। ছবির প্রচার পর্ব থেকেও তিনি নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। কিন্তু এই ছবিকে নিয়ে কতটা আশাবাদী ছবির আর এক অভিনেতা খরাজ মুখোপাধ্যায়?

আশির দশকে শিবপুরের অপরাধ জগতের সঙ্গে পুলিশের সমীকরণের প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়েছে এই ছবি। ছবিতে বাস্তব থেকে অনুপ্রাণিত ‘মাছ তপন’ চরিত্রে অভিনয় করেছেন খরাজ। সাম্প্রতিক অতীতে বলিউডের একাধিক ছবির ক্ষেত্রে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। ‘বিতর্ক’ কি কোনও ছবির সাফল্যে বাড়তি সাহায্য করে? খরাজ বললেন, ‘‘সেটা নির্ভর করে বিতর্কটা কী নিয়ে শুরু হয়েছে তার উপর। হয়তো কোনও দৃশ্য নিয়ে সমস্যা হলে সেটা ছবিকে মাইলেজ দিতে পারে।’’ কিন্তু ইউনিটের অভ্যন্তরীন সমস্যার কারণেও তো অসংখ্য ছবি মুক্তির আলো দেখে না। যেমন স্বস্তিকার অভিযোগের পর প্রাথমিক ভাবে ‘শিবপুর’-এর মুক্তি পিছিয়েছিল। কিন্তু উভয় পক্ষের যৌথ সিদ্ধান্তে আপাতত সমস্যা মিটিয়ে ছবিটি মুক্তি পেতে চলেছে। এই প্রসঙ্গে খরাজের যুক্তি, ‘‘সেটা কোনও ভাবেই বাঞ্ছনীয় নয়। কে বিড়ালের গলায় ঘণ্টা বাঁধবে, তার অপেক্ষায় না থেকে দ্রুত সমস্যা মিটিয়ে নেওয়াটাই ছবির ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যকর।’’

Tollywood actor Kharaj Mukherjee

‘শিবপুর’ ছবিতে খরাজ মুখোপাধ্যায়ের লুক। ছবি: সংগৃহীত।

প্রযোজনা সংস্থার তরফে ছবির পরিচালককেও প্রচারপর্ব থেকে দূরে রাখা হয়েছে। পরিচালক যদি তাঁর ছবি থেকে ব্রাত্য থাকেন, তার পরেও সহ-অভিনেতাদের সেই ছবির প্রচার করা উচিত কি না, সম্প্রতি পরিচালক প্রতিম দাশগুপ্ত ফেসবুকে এই প্রশ্ন তুলেছিলেন। পরিচালক তাঁর পোস্টে ‘শিবপুর’-এর উল্লেখ না করলেও তাঁর ইঙ্গিত স্পষ্ট। এই প্রসঙ্গে খরাজের মত একটু অন্য রকমের। অভিনেতার কথায়, ‘‘আমার অভিনীত সব ছবি আমার সন্তানসম। তাই সেই ছবি দর্শককে দেখতে অনুরোধ করাটাও আমার দায়িত্ব।’’ কিন্তু তার মানে যে তিনি স্বস্তিকার পাশে নেই, সে কথাও স্পষ্ট করলেন খরাজ।

বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে ভাল প্রযোজকের যে অভাব রয়েছে সেই প্রসঙ্গ উত্থাপন করলেন খরাজ। বললেন, ‘‘প্রযোজকের কাছে এটা তো ব্যবসা। ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির প্রযোজকই হোন বা এক জন মাছ বিক্রেতা, ছবি প্রযোজনা করলেও দু’জনের ক্ষেত্রেই আমি সমান যত্ন নিয়ে অভিনয় করব।’’

এই মুহূর্তে ‘বগলা মামা’ ছবির ডাবিংয়ে ব্যস্ত খরাজ। পাশাপাশি করিশ্মা কপূর অভিনীত ‘ব্রাউন’ এবং অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘ক্যাপসুল গিল’ ছবিতেও দর্শক তাঁকে দেখবেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE