• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘যুদ্ধ শেষ করব আমিই’, কঙ্গনার হুঁশিয়ারি, পাল্টা মুখ খুললেন ঊর্মিলাও

kangana and urmila
কঙ্গনা-ঊর্মিলা তরজার শেষ কোথায়?

শুরু করেননি তিনি, কিন্তু শেষ দেখেই ছাড়বেন…উত্তাল বলিউডে ফের টুইট হুঁশিয়ারি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের। পাশাপাশি, অফিস ভাঙার প্রসঙ্গ টেনে বৃহন্মুম্বই পুরসভাকে তাঁর তোপ, “এটা ধর্ষণ। আমার স্বপ্নের, আমার সাহসের, আমার আত্মসম্মানের এবং আমার ভবিষ্যতের।’’ থেমে থাকেননি ঊর্মিলাও। বৃহস্পতিবার গোটা দিন চুপ থাকার পর শুক্রবার পাল্টা দিলেন তিনিও।

গত দু'দিন ধরে চলা 'সফ্ট পর্ন অভিনেত্রী' বিতর্কে কঙ্গনা-ঊর্মিলা তরজায় শুক্রবার টুইটারে কঙ্গনা লেখেন, “অনেকে বলেন আমি খুব লড়াকু। তা সত্যি নয়। ঝামেলা আমি শুরু করিনি। যদি তা প্রমাণ করতে পারেন তবে টুইটার ছেড়ে দেব। তবে হ্যাঁ, ঝামেলা যখন শুরু হয়েছেই তবে শেষ করব আমি। ভগবান কৃষ্ণ বলেছেন, যদি কেউ যুদ্ধে আমন্ত্রণ জানায় তবে তা অগ্রাহ্য করা অনুচিত।’’ 

অন্যদিকে বলিউডের বেশিরভাগকে পাশে পাওয়া ঊর্মিলা এ দিন টুইটারে লেখেন, "ভারতের আসল মুখদের ধন্যবাদ। ধন্যবাদ পক্ষপাতহীন সংবাদমাধ্যমকে। ফেক আইটি সেলের বিরুদ্ধে এই জয় তোমাদের। আমি অভিভূত"। 

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু, স্বজনপোষণ বিতর্ক, সিবিআই, বলিউডের মাদক যোগ এবং কঙ্গনা রানাউত...গত কয়েক মাসে বলিউড উত্তাল। এরই মধ্যে কখনও তাঁর অফিস ভাঙাকে কেন্দ্র করে উদ্ধব ঠাকরে সরকারকে তুলোধনা, মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা, বলিউডের প্রায় সবাই ড্রাগ নেয় বলে দাবি করা, আবার কখনও বা জয়া বচ্চনকে আক্রমণ করে কঙ্গনা অনেকটা সময় শিরোনামে। বিতর্কের তালিকায় তাঁর সাম্প্রতিক সংযোজন,‘ঊর্মিলা সফ্ট পর্ন অভিনেত্রী।” দু'দিন আগে এক সংবাদমাধ্যমে এমনটাই বলেছিলেন কঙ্গনা। 

বলিউড এবং মাদক যোগের ঘটনায় কঙ্গনা যখন বলিউড সম্পর্কে একের পর এক খারাপ মন্তব্য করছেন কঙ্গনা তখন জয়া বচ্চন প্রতিবাদ করেছিলেন। পাল্টা দিয়েছিলেন কঙ্গনাও। এর পরেই সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়ার পাশে দাঁড়িয়ে প্রাক্তন কংগ্রেস নেত্রী ঊর্মিলা মাতণ্ডকর ‘বিজেপি ঘনিষ্ঠ’ কঙ্গনার উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘‘সংস্কৃতিমনস্ক পরিবারের কোনও মহিলা এমন ভাষায় কথা বলেন? কঙ্গনার রাজ্য হিমাচল প্রদেশ মাদক সেবনের আখড়া। তাঁর উচিত আগে সেই সমস্যার সমাধান করা।’’

 

কঙ্গনাও যে পাল্টা দেবেন তা খানিক প্রত্যাশিত ছিলই। অগত্যা ঊর্মিলা সম্পর্কে তাঁর ওই বিতর্কিত মন্তব্য এবং বলিউড জুড়ে হইচই। এমতাবস্থায় সারা-স্বরা যখন কঙ্গনার মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করছেন তখন ‘কুইন’-এর পাল্টা দাবি , এক দিন এই ঊর্মিলাই তাঁকে যৌনকর্মী বলেছিলেন।

আরও পড়ুন- কলকাতার ক্যানভাস বদলে দেওয়া শর্বরী নেই, ভাবতেই পারছে না টলিউড

বৃহস্পতিবার দিনভর টুইটের পর শুক্রবারেও কঙ্গনা থামেননি। আজ তাঁর ‘ওপেন চ্যালেঞ্জ’,শেষ তিনি দেখে ছাড়বেন। অন্য দিকে বলিউড নিয়ে কঙ্গনার পাহাড় প্রমাণ অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ঊর্মিলা কঙ্গনাকে ‘রুদালি’ বলেছিলেন। ঊর্মিলা আজ বলেন, এতে যদি কঙ্গনার খারাপ লেগে থাকে তা হলে তিনি কঙ্গনার কাছ থেকে ক্ষমাও চেয়ে নিতে পারেন। যদিও কঙ্গনার ওই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সরাসরি কঙ্গনাকে আক্রমণ না করলেও ঊর্মিলা ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁর পাশে দাঁড়ান মানুষদের। 

আর কঙ্গনা? তিনি কি ঊর্মিলার কাছে ক্ষমা চাইবেন? কঙ্গনার যুক্তি, “একদা পর্নস্টার সানি লিওনিকে গোটা ইন্ডাস্ট্রি গ্রহণ করেছে। হঠাৎ করেই ভন্ড নারীবাদীদের পর্নস্টার কথাটা এত খারাপ শোনাচ্ছে কেন?” জল গড়িয়েছে অনেক দূর। এই তরজার শেষ কোথায়? জানেনা বলিউড।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন