Advertisement
১৬ এপ্রিল ২০২৪
Vikram Vedha

ভাল নাটক কয়েকশো বার মঞ্চস্থ হয়, ‘বিক্রম বেধা’ আর এক বার হলে ক্ষতি কী? প্রশ্ন নির্মাতাদের

শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর বিশ্ব জুড়ে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে চলেছে ‘বিক্রম বেধা’। আসল আর রিমেক, দুই ছবি নিয়ে তুলনামূলক চর্চার মাঝে পুষ্কর জানালেন, কেন তাঁরা দ্বিতীয় বার ছবিটি করতে চেয়েছিলেন।

দু’টি ছবি সম্পূর্ণ আলাদা, বলছেন গায়ত্রী-পুষ্কর।

দু’টি ছবি সম্পূর্ণ আলাদা, বলছেন গায়ত্রী-পুষ্কর।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৫:৩০
Share: Save:

তামিল ছবি ‘বিক্রম বেধা’ টুকে রিমেক হিন্দি ছবিটি বানানো নয়, এমনটাই স্পষ্ট করতে চাইলেন পরিচালক দম্পতি পুষ্কর এবং গায়ত্রী। তাঁরা দাবি করছেন, মূলের থেকে পুরোপুরি আলাদা হৃতিক রোশন এবং সইফ আলি খান অভিনীত ‘বিক্রম বেধা’।

শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর বিশ্ব জুড়ে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে চলেছে ‘বিক্রম বেধা’। ঝলকে দেখা গিয়েছিল, আবহ সঙ্গীত থেকে অনেক দৃশ্যই মূল তামিল ছবির মতো। একে দক্ষ অনুকরণ বলেই মনে করছিলেন সমালোচকরা। তবে সেই ধারণা বদলে দিতে চাইছেন নির্মাতারা।

আসল আর রিমেক, দুই ছবি নিয়ে তুলনামূলক চর্চার মাঝে পুষ্কর জানালেন, কেন তাঁরা দ্বিতীয় বার ছবিটি করতে চেয়েছিলেন। তাঁর কথায়, “যে কোনও বিখ্যাত নাটকের কথা ধরুন। যেমন, ‘স্ট্রিট কার’, ‘ডিজ়ায়ার’ কিংবা ‘ডেথ অফ আ সেলসম্যান’— যেগুলো বিভিন্ন সময়ে পৃথিবী জুড়ে কয়েকশো বার মঞ্চস্থ হয়েছে। অথচ চিত্রনাট্য সেই একই রয়েছে। কিন্তু নতুন একঝাঁক অভিনেতা নিয়ে আসলেই প্রযোজনা বদলে যাবে। ‘বিক্রম বেধা’ করার ক্ষেত্রেও আমাদের সে রকমই পরিকল্পনা ছিল।”

গায়ত্রী জানান, তাঁরা কখনওই তামিল ‘বিক্রম বেধা’ আর এক বার বানাতে চাননি। বরং একই চিত্রনাট্যকে অন্য দৃষ্টিভঙ্গিতে তুলে ধরতে চেয়েছেন। চেন্নাইয়ের বদলে লখনউতে শ্যুটিং করার ফলে সাংস্কৃতিক তারতম্যও প্রকট হয়েছে। পরিচালকের কথায়, “কখনওই ভাবিনি আমরা একই দৃশ্যের পুনর্নির্মাণ করব। অতএব নির্যাস এক হলেও দু’টি ছবি সম্পূর্ণ আলাদা অভিজ্ঞতা হতে চলেছে দর্শকের কাছে।”

পুষ্কর-গায়ত্রী পরিচালিত অ্যাকশন-থ্রিলারে বিক্রম এবং বেধার বেশে হৃতিক রোশন এবং সইফ আলি খান। ছবিটি আদ্যোপান্ত চমকে ভরপুর। কঠোর পুলিশ অফিসার বিক্রম ধাওয়া করে চলে ভয়ঙ্কর গ্যাংস্টার বেধাকে। যদিও দক্ষ গল্পকার বেধা ধারাবাহিক গল্পে বিক্রমকে বিভ্রান্ত করতে থাকে। নৈতিক অস্পষ্টতার মধ্যে দিয়ে অন্ধকারে পৌঁছে যায় পুলিশ অফিসার। সব মিলিয়ে ভাল-মন্দের দ্বন্দ্ব নিয়ে হাজির এই ছবির ঝলক আকৃষ্ট করেছিল দর্শককে। তবে উঠে এসেছিল তুলনাও।

২০১৭ সালে ব্লক ব্লাস্টার তামিল ছবি ‘বিক্রম বেধা’-য় বিক্রমাদিত্যের চরিত্রে ছিলেন আর মাধবন। হিন্দি রিমেকে সেই চরিত্রেই অভিনয় করেছেন সইফ। বেতাল হয়েছেন হৃতিক, যেখানে আগের ছবিতে ছিলেন বিজয় সেতুপতি।

ঠিক ছিল, হিন্দি রূপান্তরে দুই প্রধান চরিত্র সইফ ও হৃতিককে নিয়ে উত্তর প্রদেশে শ্যুটিং করবেন পরিচালক। কিন্তু হৃতিক এই প্রস্তাবে রাজি হননি। তাঁর বায়না, দুবাইয়ে উত্তরপ্রদেশের আদলে বিলাসবহুল রাস্তা তৈরি করে সেখানে শ্যুটিং করতে হবে। নায়কের এই বায়না মেটাতেই ছবির খরচ দ্বিগুণ হয়ে যায়। সূত্রের খবর, হৃতিক রোশনের সব থেকে বেশি বাজেটের ছবির তালিকায় নাম লেখাতে চলেছে ‘বিক্রম বেধা’। এর আগে হৃতিক অভিনীত ‘ওয়ার’ ছবির খরচ ছিল আনুমানিক ১৫৮ কোটি টাকা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Vikram Vedha Bollywood Cinema
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE