অভিনেত্রী প্রিয়ঙ্কা চোপড়া গত বছরই জানিয়েছিলেন তাঁর হাঁপানি (অ্যাজমা) রয়েছে। সেই প্রিয়ঙ্কা চোপড়াকেই দেখা গেল পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে বসে সিগারেট খেতে। সোশ্যাল মিডিয়ায় সম্প্রতি এমনই একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। আর তারপরই সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে অভিনেত্রীকে।

প্রিয়ঙ্কা গত বছরই একটি সংস্থার হয়ে একটি বিজ্ঞাপন করেন। সেখানে হাঁপানি নিয়ে সচেতনতার কথা বলেন তিনি। ওই সংস্থারইনহেলার উপকারিতার কথাও শোনা যায় তাঁর মুখে। প্রিয়ঙ্কা জানান, তাঁর পাঁচ বছর বয়সে হাঁপানি ধরা পড়ে। কিন্তুজীবনের উত্থানের ক্ষেত্রে তা বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি।

দীপাবলির সময় বাজি পোড়ানো নিয়েও বার্তা দেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া। বাজির ধোঁয়ায় মানুষের অসুবিধা হয়। কিন্তু সেই প্রিয়ঙ্কা এবার স্বামী নিক জোনাস আর মা মধু চোপড়ার সঙ্গে বসে ধূমপান করছেন, এমনই একটি ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে একসঙ্গে বসে প্রিয়ঙ্কাসিগারেট খাচ্ছেন আর তাঁর স্বামী নিক ও মা সিগার খাচ্ছেন।

আরও পড়ুন  : আঙুল ছোঁয়ালেই খুলবে পাকিস্তানের নতুন ‘ভিভিআইপি’ শৌচালয়

আরও পড়ুন  : ‘মোটা মহিলারা স্বর্গে যেতে পারবেন না’

 

স্বভাবতই এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে প্রিয়ঙ্কাকে। তাঁর পুরনো টুইট, যেখানে তিনি ধূমপান ক্ষতিকর বলে মন্তব্য করেছিলেন, সেই সব তুলে ধরে তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে।

একদিকে তিনি হাঁপানির জন্য ইনহেলারের বিজ্ঞাপন করছেন, বলছেন তাঁর পাঁচ বছর বয়সে হাঁপানি ধরা পড়ে, বাজি পোড়ানোর বিরুদ্ধে কথা বলছেন, সেখানে নিজেই বসে ধূমপান করে যাচ্ছেন। কেউ কেউ কটাক্ষের সুরে বলেছেন, বাঃ এত তাড়াতাড়ি হাঁপানি সেরে গেল!

 

তবে এই ছবির সত্যতা আনন্দবাজার যাচাই করেনি।