Advertisement
১৩ জুলাই ২০২৪
Anushka Shetty

হাসতে শুরু করলে আর থামতে পারেন না, কোন বিরল রোগে ভুগছেন ‘বাহুবলী’র অভিনেত্রী অনুষ্কা?

এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী অনুষ্কা শেট্টি নিজেই স্বীকার করেছিলেন যে তিনি একটি বিরল রোগে ভুগছেন। এক বার হাসি শুরু হলে নাকি আর নিজেকে থামাতেই পারেন না তিনি। কী হয়েছে অভিনেত্রীর?

Do you know that Bahubali actress Anushka Shetty has a rare laughing disease

হঠাৎ কী হল অনুষ্কার? ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২২ জুন ২০২৪ ১৪:০৪
Share: Save:

বিরল রোগে ভুগছেন ‘বাহুবলী’-র অভিনেত্রী অনুষ্কা শেট্টি। ছবিতে রোম্যান্টিক দৃশ্য হোক কিংবা অ্যাকশন দৃশ্য, অনুষ্কার অভিনয় সর্বত্রই সাবলীল। গত বছর এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী নিজেই স্বীকার করেছিলেন যে, তিনি একটি বিরল রোগে ভুগছেন।

কী রোগে আক্রান্ত অভিনেত্রী? অভিনেত্রী বলেন, ‘‘আমি সিনড্রম অফ লাফিং ডিজ়িজ়-এ ভুগছি। কোনও হাসির কথা শুনলে আমি যখন হাসতে শুরু করি, তখন ১৫ থেকে ২০ মিনিটের আগে আমি হাসি থামাতে পারি না কিছুতেই। এটাই আমার সমস্যা।’’

সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী একটি মজার গল্পও ভাগ করে নিয়েছিলেন। অনুষ্কা বলেন, ‘‘এক বার একটি কমেডি ছবির শুটিংয়ের সময় আমি ফ্লোরে হেসে গড়াগড়ি খাচ্ছিলাম। আমার হাসির কারণে বহুব বার শুটিং বন্ধ করতে হয়েছিল।’’

লাফিং ডিজ়িজ় বিষয়টি ঠিক কি?

চিকিৎসা বিজ্ঞানের পরিভাষায় একে বলে 'সিউডোবালবার এফেক্ট'। এ ক্ষেত্রে রোগী হঠাৎ হাসতে শুরু করেন কিংবা কান্নাকাটি শুরু করেন, এবং একটানা বেশ কিছু ক্ষণ সেই পর্ব চলতে থাকে। এ ক্ষেত্রে কারণ খুব তুচ্ছ হলেও হাসি বা কান্নার মাধ্যমে রোগীর আবেগের বহিঃপ্রকাশটা অনেক বেশি হয়ে যায়। রোগী চাইলেও নিজেকে থামাতে পারেন না। নিউরোলজিক্যাল ডিজ়অর্ডার, যেমন মোটর নিউরন ডিজ়িজ়, অ্যামেয়োট্রফিক ল্যাটেরাল স্ক্লেরোসিস, মাল্টিপ্‌ল স্ক্লেরোসিস, ব্রেন টিউমার, ব্রেন স্ট্রোকের মতো বিভিন্ন কারণ সিউডোবালবার এফেক্ট হতে পারে। কোনও রকম মানসিক সমস্যার কারণে এই রোগটি হয় না। যাঁরা এই রোগে আক্রান্ত তাঁরা মোটেও মানসিক রোগী নন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE