Advertisement
২১ মে ২০২৪
Fitness Tips

জিমে যাওয়ার সময় নেই? বাড়িতে দু’মিনিটের ব্যায়ামেই ঝরবে পেটের মেদ, জানতে হবে সঠিক নিয়ম

ফিটনেস বিশেষজ্ঞদের মতে, পেটের মেদ কমানোর ক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম মানতেই হয়। তবে যদি অত সময় না-ও পান, সঠিক নিয়ম মেনে যদি নিয়মিত প্লাঙ্ক করা যায়, তা হলেও মেদকে জব্দ করা যায়।

দু’মিনিটের ব্যায়ামেই কমবে ভুঁড়ি।

দু’মিনিটের ব্যায়ামেই কমবে ভুঁড়ি। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২১ এপ্রিল ২০২৪ ১২:৩৪
Share: Save:

নির্মেদ শরীর পেতে কে না চায়! কিন্তু অনেকেই অফিসের চাপে জিমে গিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কসরত করার সময় পান না। ডায়েটে একটু অনিয়ম হলেই শরীরের মধ্যপ্রদেশে তা জানান দেয় যখন তখন। ভুঁড়ি বেড়ে যাওয়ার সমস্যা তাই বাঙালির আর এক চিন্তা!

তবে জানেন কি, হাতে মাত্র দু-এক মিনিট সময় থাকলেই আপনি ভুঁড়ি কমাতে পারেন? হ্যাঁ, ফিটনেস বিশেষজ্ঞেরা অন্তত তেমনটাই মনে করছেন। তাঁদের মতে, পেটের মেদ কমানোর ক্ষেত্রে বেশ কিছু নিয়ম মানতেই হয়। তবে যদি অত সময় না-ও পান, সঠিক নিয়ম মেনে যদি নিয়মিত প্লাঙ্ক, করা যায় তা হলেও মেদকে জব্দ করা যায়।

প্লাঙ্ক করার সঠিক নিয়ম কী?

ম্যাটের উপর উপুড় হয়ে শুয়ে হাত দু’টিকে সামনের দিকে ভাঁজ করে কাঁধ বরাবর রাখুন। এ বার হাতের তালুর উপর ভর দিয়ে শরীরকে উপরের দিকে ঠেলে তুলুন। শরীর উপরে তোলার সময় শরীরের সমস্ত ভার থাকবে হাতের তালু ও পায়ের বুড়ো আঙুলের উপর। বাকি শরীরটা হাওয়ায় ভাসবে। কনুই যাতে ভাঁজ না হয়, সেই দিকে নজর রাখুন। পেটও টেনে রাখবেন ভিতরের দিকে। প্রথম প্রথম দশ সেকেন্ড এমন করে থাকার অভ্যাস করুন। তার পর আয়ত্তে এলে ধীরে ধীরে সময় বাড়াবেন। দু’পায়ের মাঝে ফাঁকও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে কমিয়ে আনবেন।

হাতে মাত্র দু-এক মিনিট সময় থাকলেই আপনি ভুঁড়ি কমাতে পারেন!

হাতে মাত্র দু-এক মিনিট সময় থাকলেই আপনি ভুঁড়ি কমাতে পারেন! ছবি: শাটারস্টক।

নিয়মিত প্লাঙ্ক করলে আর কী কী উপকার হয় শরীরের?

১) নিয়মিত এই ব্যয়ামটি অভ্যাস করলে পেট ও কোমরের কোর পেশিগুলির শক্তি বাড়়ে। পেশি টানটান হয়, সঙ্গে মেদ জমে থাকার অবকাশও পায় না।

২) পিঠে ব্যথার সমস্যায় ভুগলেও এই ব্যয়ামটি নিয়ম করে করলে দারুণ কাজ দেয়।

৩) বিপাকহার বৃদ্ধি করতেও এই ব্যয়ামের জুড়ি মেলা ভার।

৪) মানসিক অবসাদে ভুগছেন? নিয়মিত প্লাঙ্ক করলে মানসিক স্বাস্থ্যেরও উন্নতি হয়।

৫) যাঁরা শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভোগেন, তাঁরাও নিয়মিত প্লাঙ্ক করতে পারেন, সমস্যা দূর হবে।

প্লাঙ্ক করতে গিয়ে কোন ভুলগুলি করা চলবে না?

১) ব্যায়াম করতে করতে ঠিক সময়ে শ্বাস না ছাড়লে প্লাঙ্ক করার উপকার মেলে না।

২) প্লাঙ্ক করতে করতে ঘাড় নিচু করে রাখা চলবে না। এতে শরীরের ভারসাম্য বিঘ্নিত হয়। হাঁটু যেন ভাঁজ না হয়, সে দিকেও লক্ষ রাখবেন।

৩)শরীরে ব্যথা নিয়ে প্লাঙ্ক করলে ব্যথা কমে যাবে, এই ধারণা অনেকেই রাখেন। তবে এতে আদতে কোনও উপকার হয় না। ব্যথা কমলে তবেই প্লাঙ্ক করা উচিত, নইলে আঘাত পাওয়ার ঝুঁকি বাড়ে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Fitness Tips Fitness tricks
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE