×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

জেলে যাওয়ার আগে মারামারির কারণ জানালেন ভাইরাল হওয়া ‘চাচা’

সংবাদ সংস্থা
লখনউ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১৫:৩৭
মারামারি করে ভাইরাল হওয়া চাচা।

মারামারি করে ভাইরাল হওয়া চাচা।
ছবি ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

দু’টি খাবারের দোকানের মালিক এবং তাঁদের কর্মচারিদের মধ্যে মারামারি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে নেটমাধ্যমে। উত্তরপ্রদেশের বাগপত জেলার বড়ৌত শহরের অতিথি ভবন বাজারের ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন ১২ জন। মারামারি জন্য ৮ জনকে গ্রেফতারের কথাও জানিয়েছে পুলিশ। জেলে যাওয়ার আগে নেটমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ‘চাচা’ এক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন কেন তাঁদের মারামারি হয়েছে। মারামারি সুবাদে নেটামাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ওই ‘চাচা’কে নিয়ে ইতিমধ্যেই মিমের বন্যা বইছে।

‘চাচা’ নামে পরিচিত ওই ব্যক্তির নাম হরিন্দর। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর খাবারের দোকান প্রায় ৪০ বছরের পুরনো। ওই বাজারের মধ্যে তাঁর প্রতিযোগী একটি দোকান তেমন চলে না। কিন্তু সেই দোকানের কর্মচারিরা তাঁর দোকানের নামে উল্টোপাল্টা কথা বলে ক্রেতাদের। হরিন্দার বলেছেন, ‘‘ওরা খালি আমার ক্রেতাদের টানার চেষ্টা করে। বলে, আমার দোকানের খাবার আগের দিনের তৈরি। গত ক’দিনে ৪-৫ বার এ রকম করেছে তাঁরা।’’

এই নিয়েই সোমবার মারামারি হয়েছে ওই দুই দলের মধ্যে। যে ভিডিয়ো এখন নেটমাধ্যমে ভাইরাল। সেখানে দেখা যাচ্ছে, লাঠি, রড নিয়ে একে অপরকে মারছেন তাঁরা। এলোপাথারি মারামারিতে সক্রিয় হরিন্দরও। মাটিতে পড়ে গিয়েও মারামারি করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। এই ঘটনা নিয়ে সেখানকার পুলিশ অফিসার এম এস রাওয়াত বলেছেন, ‘‘দু’টো খাবারের দোকানের মালিক ও কর্মচারিরা ক্রেতা আসা নিয়ে নিজেদের মধ্যে মারামারি করেছে। ঘটনায় দু’পক্ষের মোট ৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’’

Advertisement


Advertisement